মঙ্গলবার ১৬ এপ্রিল ২০২৪

সম্পূর্ণ খবর

EXCLUSIVE: শৈশবের অশ্লীলতা, অনৈতিক স্পর্শ নারীর জীবন কতটা তছনছ করে? জবাব দেবে ‘বঁধুয়া’

উপালি মুখোপাধ্যায় | ০৫ মার্চ ২০২৪ ০১ : ০১


কমবেশি সবাই জানেন। কিন্তু মুখ খোলেন ক’জন? এমন জ্বলন্ত বিষয় মা-বাবাও চাপা দিয়ে রাখতে চান। নইলে কলঙ্ক ছড়াবে। সমস্যা বাড়বে। এই বিষয় যদি ছোটপর্দায় উঠে আসে? স্টার জলসার নতুন ধারাবাহিক ‘বঁধুয়া’র সেটে তেমনই গল্পের সন্ধান পেল আজকাল টেলিভিশন।

দাসানি স্টুডিওয় ঝিমঝিমে দুপুর। সেটে পা রাখতেই ডানহাতে যত্ন নিয়ে সাজানো রাধা-কৃষ্ণের মূর্তি। পায়ের কাছে রাখা মাটির থালায় আবির, ফাগ। একটুকরো পবিত্রতা পেরিয়ে ভিতরে পা রাখতেই বসার ঘর। সেখানে ধবধবে সাদা পর্দা। দুধসাদা দেওয়ালে রকমারি ঘরসাজানোর মোটিফ, মূর্তি, নানা উপকরণ। বসন্তের ঝাঁঝালো রোদ এড়িয়ে সেই ঘর যেন চোখের আরাম। লাগোয়া মডিউলার কিচেন, খাওয়ার পরিসর। রান্নাঘরের নানা রঙের চিনামাটির জিনিসপত্র দূর থেকে নজর কেড়েছে।

বঁধুয়া আমার চোখে জল এনেছে...

যে বাড়ি এত সাজানো সেই বাড়ির ছেলে আবিরের এমনই দশা। বেচারি বিয়ের জন্য উৎসুক। খুব পছন্দ পেখমকে। তাকে নিয়ে ঘর বাঁধার স্বপ্নও দেখে। কিন্ত সে উত্তর হলে তার প্রিয়া যে দক্ষিণ! যৌথ পরিবারের বড় হওয়া আবির আর একা থাকতে চাওয়া পেখম— যেন সুমেরু আর কুমেরু। তারা কি কোনও দিন মিলবে? প্রশ্ন নিয়ে ৪ মার্চ থেকে রোজ সন্ধে সাড়ে সাতটায় ছোটপর্দায় এসেছে সুশান্ত দাসের নতুন ধারাবাহিক। ‘বাংলা মিডিয়াম’ ধারাবাহিকে এই প্রজন্মের ইংরেজি মাধ্যমের প্রতি আকর্ষণের কথা তুলে ধরেছিলেন টেন্ট প্রযোজনা সংস্থার কর্ণধার। ‘তোমাদের রানি’তে মা হওয়ার পাশাপাশি এক মেয়ের স্বপ্নপূরণের গল্প। সুশান্তর দাবি, ‘‘ধারাবাহিকের জন্য বরাবর সমাজের জ্বলন্ত সমস্যাকেই বেছে নিয়েছি। ছেলেবেলার যৌন হয়রানি মানুষের জীবন কতটা ক্ষতিগ্রস্ত করতে পারে, এই ধারাবাহিক সেই দিক দেখাবে। পেখমকেই দেখুন। বেচারি অনেক গুণের অধিকারি। তবু নিজেকে মেলে ধরতে পারে না। মা-বাবার চাপে ভিতরে বয়ে নিয়ে চলা এই কষ্ট তাকে সুস্থ জীবনে পা রাখতে দেয় না। এবার এই দিকগুলো তুলে ধরতে হবে।’’ সুশান্ত আরও জানান, রিজওয়ান রব্বানির অভিনয় তিনি দেখেছেন। একাধিক জনপ্রিয় ধারাবাহিক তাঁর ঝুলিতে। এই ধারাবাহিকে তাই তিনিই ‘আবির’। নায়িকা নতুন মুখ জ্যোতির্ময়ী কুণ্ডু। তিনি ওঁর ছোট ছোট ভিডিও নিয়মিত দেখতেন। সেই জায়গা থেকেই তিনি ‘পেখম’। আছেন দীপঙ্কর দে, শ্রী বসুর মতো অভিনেতাও।



আবিরের মতোই রঙিন...

নিজের চরিত্র নিয়ে উচ্ছ্বসিত রিজওয়ান। বললেন, ‘‘প্রচার ঝলকে আমার পরা পোশাকগুলো দেখেছেন? নানা রঙে রঙিন। এর আগে এত রং আমার চরিত্রে কেউ ঢালেনি! চোখে সারাক্ষণ টিন্ট গ্লাস, রঙিন পোশাক আর প্রেমিক মন নিয়ে আবির পাক্কা পাগলপ্রেমী। সবাইকে নিয়ে মানিয়ে চলতে ভালবাসে। তার জীবনে একাকীত্ব খোঁজা এক মেয়ে। যার জীবনে রয়ে গিয়েছে দমচাপা কষ্ট। এই মেয়ের জীবনে আবির কি দখিনের খোলা জানলা হয়ে উঠতে পারবে?’’ দর্শকদের সঙ্গে তিনিও উত্তর খুঁজবেন, জানালেন রিজওয়ান। এমন একটি চরিত্রে কাজ করবেন বলেই তিনি ‘নবাব নন্দিনী’ ধারাবাহিকের পরে এতদিন অপেক্ষা করেছেন।

যন্ত্রণাই সাংবাদিকতার হাতিয়া

প্রথম অভিনয়। তিনি পারবেন তো? ভয় ছিলই জ্যোতির্ময়ীর মনে। তাঁর কথায়, ‘‘দেখলাম, আমার থেকেও আমার উপরে বেশি বিশ্বাস প্রযোজনা সংস্থার। সেটাই মনের জোর বাড়াতে সহযোগিতা করেছে। ওঁরা শিখিয়ে পড়িয়ে নিচ্ছেন।’’ আবিরের বিপরীতে পেখম ভীষণ চাপা। নিজের অতীত নিয়ে মুখ খুলতে নারাজ। সারাক্ষণ সেই কারণে যেন দমচাপা কষ্টে ভোগে। অতীত ভুলে ভালবাসতে ভয় পায়। এদিকে সংবাদিকতার স্বপ্ন দেখে! বাস্তবেও কি জ্যোতির্ময়ী তেমনই? জবাব এল, ‘‘পুরোটা নয়, কিছুটা। যদিও আমার কোনও অতীত নেই। আমার কোনও প্রেমও নেই। আমি একা।’’ নায়িকা মডেল হিসেবে খ্যাত। কিন্তু অভিনয় আর মডেলিং তো এক নয়...!! বলতেই ঝকঝকে উত্তর, ‘‘সেই জন্য প্রতি মুহূর্তে শিখছি। নিজেকে ঘষামাজা করছি। সবার অভিনয় দেখছি। খুব সমস্যা এখন আর হচ্ছে না।’’



বিশেষ খবর

নানান খবর

রজ্যের ভোট

নানান খবর

সোশ্যাল মিডিয়া