শনিবার ২০ এপ্রিল ২০২৪

সম্পূর্ণ খবর

Television: ফের বিয়ে! এবার চুপিচুপি সাতপাক ঘুরলেন রুকমা-সায়ন?

নিজস্ব সংবাদদাতা | ২৯ নভেম্বর ২০২৩ ০৯ : ৪৬


শীত মানেই বিয়ের মরশুম। টলিপাড়ায় বিয়ের গন্ধ ম’ম করছে। ছাদনাতলায় একের পর এক তারকা অভিনেতা। পরমব্রত চট্টোপাধ্যায়-পিয়া চক্রবর্তীকে দিয়ে শুরু। ডিসেম্বরে বিয়ের পিঁড়িতে বসবেন সৌরভ দাস-দর্শনা বণিক। সদ্য বিয়ে সারলেন ছোটপর্দার জনুপ্রিয় মুখ শ্রীপর্ণা রায়। গুঞ্জন, সেই তালিকায় নাকি নতুন সংযোজন রুকমা রায়-সায়ন মুখোপাধ্যায়! দু’জনেই সান বাংলার "রূপসাগরে মনের মানুষ"-এ একসঙ্গে অভিনয় করছেন। রুকমা ‘পূর্ণা’র চরিত্রে, সায়ন ‘উজান’। অভিনেতা ধারাবাহিকে দ্বিতীয় নায়ক।

বিয়ের গুঞ্জনের কারণ একটি ছবি। ছবি অনুযায়ী, রুকমার সিঁথিতে সিঁদুর পরিয়ে দিচ্ছেন সায়ন! সত্যিই কি চুপিসারে চারহাত এক হয়ে গেল? টেলিপাড়া বলছে, একেবারেই না। যা হয়েছে ক্যামেরার সামনে। ‘রূপসাগরে মনের মানুষ’-এ গল্পের মোড় এইভাবেই ঘুরতে চলেছে। এদিকে, চিত্রনাট্য অনুযায়ী পূর্ণা রূপের বিবাহিত স্ত্রী। তা হলে উজান কীভাবে সিঁদুর পরায়? উত্তর লুকিয়ে মোড় ঘোরানো পর্বে। 

আগামী পর্বের ঘল্প অনেকটা এই রকম। বিনয় পূর্ণাকে অপহরণ করার মতলব ভাঁজে। সেই মতো গুণ্ডা ভাড়া করে। পূর্ণাকে তুলে বিয়ে করার পরিকল্পনা ছিল তার। বিপদ বুঝতে পেরে পূর্না উজানকে ফোন করে। ফোনটা অন করে রেখে দেয়। গুণ্ডারা বেহুঁশ করে পূর্ণাকে তুলে নিয়ে যায়। ফোনের মাধ্যমে সব শুনতে পেয়ে উজান সেখানে পৌঁছে যায়। রূপকেও সে জানায় পুলিশ নিয়ে আসতে। কিন্তু রূপ পুলিশ ছাড়াই নিজে পূর্ণাকে উদ্ধার করতে আসে। এদিকে, ওই ভাড়া করা গুণ্ডা পূর্ণাকে সিঁদুর পড়াতে গেলে উজান তার হাত থেকে পূর্ণাকে বাঁচায়। সিঁদুরকৌটা থেকে সিঁদুর নিয়ে পূর্ণার সিঁথিতে পরিয়ে দিয়ে। রূপ নিজের চোখে এই দৃশ্য দেখে! এরপর কী? তা জানতে চোখ রাখুন সান বাংলায়। 




বিশেষ খবর

নানান খবর

রজ্যের ভোট

নানান খবর



রবিবার অনলাইন

সোশ্যাল মিডিয়া