SNU

বৃহস্পতিবার ২০ জুন ২০২৪

সম্পূর্ণ খবর

Aravind Kejriwal: আপকে নিশ্চিহ্ন করার চেষ্টা করছেন মোদি, অভিযোগ কেজরিওয়ালের

Kaushik Roy | ১০ মে ২০২৪ ১৯ : ২১


বীরেন ভট্টাচার্য: প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বিরুদ্ধে অপারেশন ঝাড়ু চালু করার অভিযোগ করলেন আপ প্রধান অরবিন্দ কেজরিওয়াল। তাঁর অভিযোগ, আম আদমি পার্টিকে পুরোপুরি শেষ করতে দিতে চান প্রধানমন্ত্রী মোদি। দলের বৃদ্ধি এবং বিভিন্ন রাজ্যে নির্বাচনে জয়ের কারণে ঈর্ষান্বিত হয়ে আপের বিরুদ্ধে প্রধানমন্ত্রী প্রতিহিংসার রাজনীতি করছেন বলে অভিযোগ করেন তিনি। আজ সকালে দিল্লিতে দলের সদর দপ্তর থেকে বিজেপির সদর দপ্তর পর্যন্ত মিছিল করে আপ। জেল ভরো আন্দোলনে কেজরিওয়ালের দাবি, সমস্ত আপ নেতাকে জেলবন্দি করুন প্রধানমন্ত্রী। বিজেপির সদর দপ্তর পর্যন্ত মিছিল শুরুর আগে দলীয় কার্যালয়ে উপস্থিত নেতা কর্মীদের উদ্দেশে বক্তব্য রাখেন কেজরিওয়াল। তাঁর দলের রাজ্যসভার সাংসদ স্বাতী মালিওয়ালকে হেনস্থার অভিযোগে মুখ্যমন্ত্রীর ঘনিষ্ট বৈভব কুমারকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তার প্রতিবাদেই এদিন জেল ভরো আন্দোলনের ডাক দেয় আম আদমি পার্টি।

দলীয় কর্মীদের উদ্দেশে দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী বলেন, " আমরা যাতে বাড়তে না পারি এবং বিজেপিকে চ্যালেঞ্জ করতে না পারি, তারজন্য অপারেশন ঝাড়ু চালু করা হয়েছে প্রধানমন্ত্রী মোদি এবং বিজেপির তরফে। আগামী দিনে আমাদের দলের আরও নেতাকে গ্রেপ্তার করা হবে এবং আমাদের ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট বাজেয়াপ্ত করা হবে।" তিনি বলেন, "ইডির আইনজীবী আদালতে বলেছেন যে, নির্বাচনের পর্ব মিটে গেলেই আপের ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট বাজেয়াপ্ত করা হবে। আইনজীবী বলেছেন, এখন ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট বাজেয়াপ্ত করলে আপ সহানুভূতি ভোট পেয়ে যাবে। সেই কারণে ভোট পর্ব মিটে গেলে আমাদের ব্যাঙ্ক অ্যকাউন্ট বাজেয়াপ্ত করা হবে, দলীয় কার্যালয় থেকে সবাইকে বের করে আমাদের রাস্তায় নামিয়ে দেওয়া হবে।" তিনি হুঁশিয়ারি দেন, "আমাদের সবাইকে একসঙ্গে গ্রেপ্তার করা হোক। আজ সকলকে গ্রেপ্তার না করা হলে, সেটা হবে বিজেপির পরাজয়।" এদিন সকাল থেকেই বিজেপির সদর দপ্তর কার্যত কড়া নিরাপত্তায় মুড়ে ফেলা হয়। ব়্যাফের পাশাপাশি সিআরপিএফ বাহিনীও মোতায়েন করা হয়।

বিজেপি কার্যালয়ের কাছাকাছি যেতেই আপের অনেক কর্মী সমর্থককে আটক করা হয়। কিছুক্ষণ পরেই সেখানে পৌঁছান কেজরিওয়াল। তবে বিজেপির কার্যালয়ের কিছুটা আগেই ব্যারিকেড করে আটকে দেয় নিরাপত্তা বাহিনী। ব্যারিকেডের সামনেই ধরনায় বসে যান কেজরিওয়াল সহ আপের শীর্ষ নেতারা। বিজেপি সদর দপ্তরের সামনে বেশ কিছুক্ষণ ধরনা প্রদর্শনের পর দলীয় কার্যালয়ে ফিরে যান আপের নেতা কর্মীরা। দিল্লির মন্ত্রী এবং আপ নেতা গোপাল রাই অভিযোগ করেন, নির্বাচনে নজর ঘোরানোর চেষ্টা করছে বিজেপি। তিনি বলেন, "জেল এবং জামিনের মধ্য দিয়ে প্রধানমন্ত্রী মোদি এবং বিজেপি নেতারা যেভাবে প্রকৃত ইস্যু থেকে নজর ঘোরানোর চেষ্টা করছেন, তার জন্য আমাদের দল সিদ্ধান্ত নিয়েছে, সকলে একসঙ্গে গ্রেপ্তার হব এবং নির্বাচনে প্রকৃত ইস্যুগুলি নিয়ে চর্চা হবে। মুখ্যমন্ত্রী বিজেপিকে সময় দিয়েছিলেন, বেশ কিছুক্ষণ ছিলেন। যদিও কাউকে গ্রেপ্তার করা হয়নি।"




বিশেষ খবর

নানান খবর

Advertise with us

নানান খবর

Modi : দুদিনের জম্মু-কাশ্মীর সফরে প্রধানমন্ত্রী ...

Canada : কূটনৈতিক সংঘাতে ভারতের হাতিয়ার কনিষ্ক

Meeting : অস্ট্রেলিয়ার কূটনীতিকদের সঙ্গে বাংলার তিন মন্ত্রীর বৈঠক আটকাল কেন্দ্র ...

Sebi : সেবি নিয়ে সুপ্রিম কোর্টে যাবে তৃণমূল

Water : দিল্লির জল সমস্যার সমাধান না হলে অনশনের হুমকি দিলেন অতিশী ...

Narendra Modi: তৃতীয়বার জয়ের পর বারাণসীতে মোদি, কী বললেন? ...

Bihar: বিহারে উদ্বোধনের আগেই হুড়মুড়িয়ে ভেঙে পড়ল ১২ কোটির সেতু ...

FLOOD: অসমে ভয়াবহ বন্যা পরিস্থিতি, ক্ষতিগ্রস্ত ১ লক্ষের বেশি মানুষ...

TMC : নজরে শেয়ার কেলেঙ্কারি, শরদ পাওয়ারের সঙ্গে বৈঠকে তৃণমূলের প্রতিনিধি দল...

Delhi: ভিন জাতের প্রেমিকের সঙ্গে বিয়েতে আপত্তি, মেয়েকে খুন বাবার ...

Priyanka Gandhi: ‌ওয়েনাড় থেকে সংসদীয় রাজনীতিতে অভিষেক হতে চলেছে প্রিয়াঙ্কা গান্ধী ভঢ়রার...

Rahul Gandhi: বিরোধী দলনেতা হবেন না রাহুল গান্ধী

Train Accident: রেলমন্ত্রকের দায়বদ্ধতা নিয়ে প্রশ্ন বিরোধী শিবিরের...

Fire:‌ শো শেষ হতেই উত্তরপ্রদেশের প্রেক্ষাগ্রহে আগুন...

সোশ্যাল মিডিয়া



SNU