শনিবার ১৩ জুলাই ২০২৪

সম্পূর্ণ খবর

Portugal: সাও মার্টিনহো দিবস উদযাপনে মেতে উঠেছে পর্তুগাল

Pallabi Ghosh | ১১ নভেম্বর ২০২৩ ১৭ : ২৬


সুদেষ্ণা ভট্টাচার্য, লিসবন, পর্তুগাল: একদিকে ভারতে যেমন ভূত চতুর্দশী আর অন্য দিকে পর্তুগিজরা মেতে উঠেছেন সাও মার্টিনহো নিয়ে। বিপরীত গোলার্ধ হলেও, উৎসবের আমেজ সর্বত্র। তবে এই সাও মার্টিনহোর অদ্ভুত এক ইতিহাস রয়েছে।
সাও মার্টিনহো ছিলেন একজন খ্রিস্টান ধর্মাবলম্বী রোমান সৈনিক। সেদিনটা ছিল খুব শীতের দিন, চারিদিক বরফে ঢাকা। রাস্তার ধারে সাও মার্টিনহো দেখতে পেলেন কোনও প্রকার শীতবস্ত্র ছাড়াই একজন শীতে জবুথবু হয়ে বসে রয়েছেন রাস্তার এক পাশে। হতদরিদ্র মানুষকে দেখে খুব দয়া হল ওই রোমান সৈনিকের। নিজের গরম জামার অর্ধেক কেটে নিয়ে তাঁকে দিলেন। হঠাৎই দেখা গেল যে বরফ গলতে শুরু করেছে আর সূর্য অবশেষে দেখা দিচ্ছে। এই ঘটনা থেকেই সাও মার্টিনহোর কথা দিকে দিকে ছড়িয়ে পড়ল। আমেরিকা বা অন্যান্য দেশে তাপমাত্রা কমলে এই দিন পালিত হয় বছরের এই সময়ে। তবে পর্তুগালে যেহেতু বরফ পড়ে না তাই বৃষ্টি কমে শরতের আবাহনে এই দিন পালিত হয়। শরৎকালের অন্যতম একটি প্রধান উৎসব হিসেবে পালন করেন পর্তুগিজরা।
বিদেশ বিভুঁইয়ে পর্তুগালে এই প্রথমবার আমি পুজোর সময় কলকাতার বাইরে রয়েছি। তবে এখানে দেখছি উৎসবের আমেজ রয়েছে সর্বত্র, সবটাই সাও মার্টিনহো দিবস উদযাপনের কল্যাণে। অদ্ভুত হলেও সত্যি, এই উৎসবের অন্যতম দিক হল চেষ্টনাট, যা অনেকটা বাদামি আলমণ্ডের মত দেখতে। মোটামুটি সব মুদির দোকান বা স্টোরেই পাওয়া যায় চেষ্টনাট। আমার মেয়ের স্কুলে গিয়ে সাও মার্টিনহো উপলক্ষে যে কর্মকাণ্ড তা দেখে অনেকটা আমাদের হোলিকা দহনের কথা মনে পড়ল। আমার মেয়ের মতো সব ছেলেমেয়েরাই চেষ্টনাট নিয়ে এসেছিল। এরপর সবাই এক জায়গায় একজোট করল চেষ্টনাট আর তারপর বেশি কেতাবি স্টাইলে রোস্ট করা হল। তারপরের ব্যাপারটাও অবাক করার মত অন্তত আমার জন্য তো বটেই। সবাইকে রোস্ট করা চেষ্টনাট কাগজের ব্যাগে দিয়ে দেওয়া হল। কিছু পর্তুগিজ পরিবারের থেকে জানা গেল যে বাড়িতে বা কোনও পার্টিতে বনফায়ারে চেষ্টনাট রোস্ট করে খাওয়ার প্রবণতা রয়েছে।
তবে আরেকটা জিনিস যেটা না বললেই নয়, সেটা হল বিশেষ এক ধরনের অ্যালকোলিক বেভারেজ খাওয়া হয় এই সময়, পর্তুগিজ ভাষায় যাকে বলে আগুয়া পে। আবার অনেকে বছরের প্রথম ওয়াইন, যা একেবারে টাটকা তার স্বাদ নেন। লাতিন ভাষায় আবার এই উৎসবকে অনেক সময় মাগুস্ত বলা হয়ে থাকে। আশা করছি সামনের দিনে এই বিশেষ দিন উপলক্ষ্যে স্থানীয় কোনও পর্তুগিজ বড় পার্টিতে উপস্থিত থেকে উপভোগ করতে পারব। তবে সারা পৃথিবীর সমস্ত পর্তুগিজ মানুষকে সাও মার্টিনহো দিবসের অনেক শুভেচ্ছা রইল।




বিশেষ খবর

নানান খবর

Advertise with us

নানান খবর

Durga Pujo: নিউ ইয়র্কের টাইমস স্কোয়ারে এই প্রথম দুর্গাপুজো...

Narendra Modi in Austria: চারদশক পর অস্ট্রিয়ায় ভারতের প্রধানমন্ত্রী, ভিয়েনায় গার্ড অব অনার সম্মান মোদিকে...

PM: যুদ্ধ সমস্যার সমাধান নয়-ভারত শান্তির পক্ষে, পুতিনকে বার্তা মোদির...

NABC: বঙ্গ সম্মেলনে মৌ রায়চৌধুরী স্মরণ

Modi-Putin Moscow Meeting: মোদি-পুতিনের একান্ত সাক্ষাতের সঙ্গী, কে এই রহস্যময়ী মহিলা?...

Indonesia: ইন্দোনেশিয়ায় স্বর্ণখনিতে ভূমিধস, নিহত ১১, খোঁজ নেই ৪৫ জনের...

PM Modi:‌ মস্কো পৌঁছলেন মোদি, মঙ্গলবার বৈঠক পুতিনের সঙ্গে...

Sheikh Hasina: ৪ দিনের সফরে চিনে গেলেন শেখ হাসিনা, সই হতে পারে ২০ সমঝোতা স্মারক...

Sheikh Hasina: ‌‌চার দিনের সফরে চীন গেলেন হাসিনা

Earth: ‌‌পৃথিবীর কেন্দ্রের গতি কমছে, কেন? বিজ্ঞানীদের কথা শুনে আতঙ্কে ভুগছেন অনেকে...

Temperature: ‌বিশ্বে জুনে তাপমাত্রার রেকর্ড ২০২৩ সালকে‌‌ও ছাপিয়ে গেল...



রবিবার অনলাইন

সোশ্যাল মিডিয়া