রবিবার ১৪ এপ্রিল ২০২৪

সম্পূর্ণ খবর

EXCLUSIVE: ‘আলোর ঠিকানা’ শেষ, নতুন ধারাবাহিকে দেবাদৃতা, বিপরীতে প্রেমিক রাহুল?

নিজস্ব সংবাদদাতা | ০৮ নভেম্বর ২০২৩ ১৭ : ১৯


‘আলোর ঠিকানা’ শেষ। ছোট্ট বিরতি নিয়ে ছোটপর্দায় খুব শিগগিরিই ফিরতে চলেছেন দেবাদৃতা বসু। এমনই খবর আজকাল ডট ইনের কাছে। যদিও কোন চ্যানেল বা কার পরিচালনায় দেখা যাবে দেবাদৃতাকে, জানা যায়নি। তবে শোনা গিয়েছে, নায়িকাপ্রধান গল্পেই ফিরতে চলেছেন। নায়ক নাকি বেশ কিছু পর্বের পরে পা রাখবেন।

বিপরীতে কি রাহুল দেব বসু? দশমী রাত তাঁদের প্রেমের কথা আনুষ্ঠানিক ভাবে ঘোষণার পরে এই গুঞ্জনই ঘুরছে। সবিস্তার জানতে আজকাল ডট ইন যোগাযোগের চেষ্টা করেছিল রাহুল-দেবাদৃতার সঙ্গে।তাঁরা ফোনে অধরা। তবে টেলিপাড়া বলছে, রাহুল আপাতত ব্যস্ত ‘তুমিই যে আমার মা’ ধারাবাহিক নিয়ে। ফলে, ওই ধারাবাহিক শেষ না হলে তিনি নতুন ধারাবাহিকে যোগ দিতে পারবেন না। নতুন ধারাবাহিকের প্রচার ঝলক শুট হবে দীপাবলি-ভাইফোঁটা কাটিয়ে। এই সময়ে আপাতত ছোট্ট অবসর। সেই ফাঁকে পরিবারের সঙ্গে থাইল্যান্ড বেড়াতে যাচ্ছেন নায়িকা। সঙ্গী কি রাহুলও? সে কথাও জানা যায়নি। তবে থাইল্যান্ড থেকে ফিরেই কাজের মেজাজে ফিরবেন নায়িকা, এখবর পাকা।

সম্পর্কে রাহুল দেব বসু-দেবাদৃতা বসু! এখবর ছড়াতেই তোলপাড় টেলিপাড়া। কবে থেকে, কী ভাবে? আজকাল ডট ইন যোগাযোগ করতেই খুশি গলায় নায়কের উত্তর, ‘‘ধারাবাহিক ‘আলোর ঠিকানা’ আমাদের আলো দেখিয়েছে! গৌরব আলোর প্রথম প্রেম। পাশে থেকে সমর্থন জানায়। যে কোনও ভাল কাজে এগিয়ে দেয়। কিন্তু বড় নীরব, গভীর সেই প্রেম। অভিনয় করতে করতেই আমরা কাছে এসেছি।’’

সামাজিক পাতায় ছবি দিয়ে সে কথা জানিয়েছিলেন অভিনেতা। সিঁদুর মেখে লাল দু’জনেই। সুপুরুষ নায়ক ঝকঝকে লাল পাঞ্জাবিতে। দেবাদৃতা অপরূপা লাল ঢাকাই শাড়িতে। বিবরণীতে লেখা, ‘‘গৌরব আলোকে পায়নি। রাহুল দেবাদৃতাকে খুঁজে পেয়েছে!’’ দশমীতেই ঘোষণা কেন? রাহুলের মতে, এই প্রেম তাঁদের কাছে ঈশ্বরের আশীর্বাদের মতো। তাই বিশেষ দিনে জীবনের বিশেষ মুহূর্তের কথা ঘোষণা করেছেন। আট মাসের প্রেম আরও গাঢ় পুজোর ক’দিনে। শুটিং থেকে দূরে। চারটে দিন কীভাবে সময় কাটালেন তাঁরা? নায়কের কথায়, ‘‘একসঙ্গে থেকেছি, ঘুরেছি, খাওয়াদাওয়া করেছি। মণ্ডপে গিয়ে প্রচুর ঠাকুর দেখেছি। মুখ যদিও মুখোশে ঢাকা ছিল। কেউ চিনতে পারার আগে চট ককরে সরে গিয়েছি। যাঁরা বুঝে গিয়েছেন, তাঁদের সঙ্গে আড্ডা দিয়েছি। সব মিলিয়ে যেন স্বপ্নের মতো।’’

দেবাদৃতা সত্যিই ‘আলো’র মতো? তাই অল্প সময়ে এত গভীর প্রেম? রাহুলের যুক্তি, নায়িকা ভীষণ সরল। ওর সারল্য এড়িয়ে যেতে পারেননি। "আয় খুকু আয়" ছবির ‘সঞ্জয়’-এর অতীত আছে। দেবাদৃতার? সব জেনেই নায়িকা পর্দার ‘প্রথম প্রেম’র হাত ধরেছেন? প্রশ্ন রাখতেই সজাগ রাহুল। স্পষ্ট বললেন, ‘‘কেউ কারও অতীত নিয়ে মাথা ঘামাচ্ছি না। বরং দেবাদৃতার সঙ্গে নতুন স্মৃতি বোনার চেষ্টা করছি।’’

  




 



বিশেষ খবর

নানান খবর

রজ্যের ভোট

নানান খবর



রবিবার অনলাইন

সোশ্যাল মিডিয়া