মঙ্গলবার ১৬ এপ্রিল ২০২৪

সম্পূর্ণ খবর

Murshidabad: মুর্শিদাবাদে কংগ্রেস কর্মীকে পিটিয়ে খুনের অভিযোগ #দক্ষিণবঙ্গ

Pallabi Ghosh | ২০ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ ২২ : ৫৯


আজকাল ওয়েবডেস্ক: এক কংগ্রেস কর্মীকে পিটিয়ে "খুন" করার অভিযোগকে ঘিরে উত্তেজনা ছড়াল মুর্শিদাবাদের রানিনগর থানা এলাকায়। ঘটনাটি ঘটেছে রানিনগর থানার নজরানা গ্রামে। মৃত ওই কংগ্রেস কর্মীর নাম এনামুল মণ্ডল (৬৫)।
স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে- মঙ্গলবার বিকালে নজরানা গ্রামের কংগ্রেসের সক্রিয় কর্মী এনামুল একটি চায়ের দোকানে বসেছিলেন। সেই সময় কয়েকজন দুষ্কৃতী ওই ব্যক্তিকে পুরনো কোনও আক্রোশবশত প্রচণ্ড মারধর করে। গুরুতর আহত অবস্থায় ওই ব্যক্তিকে গোধনপাড়া হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে চিকিৎসকরা তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করেন।
মৃত ওই ব্যক্তির স্ত্রী আলিয়া বিবির অভিযোগ, "আমার স্বামী কংগ্রেস-সিপিএম জোটের সমর্থক ছিলেন। আজ বিকেলে তৃণমূল কংগ্রেসের কিছু সমর্থকের সাথে আমার স্বামীর হঠাৎই বচসা বেঁধে যায়। সেই সময় আমার স্বামীকে তৃণমূলের দুষ্কৃতীরা লাঠি দিয়ে প্রচন্ড মারধর করে।"
তিনি বলেন, এনামুল কোনওক্রমে ওই এলাকা থেকে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করলে তৃণমূলের দুষ্কৃতীরা একটি চাষের জমির মধ্যে নিয়ে গিয়ে মারধর করে। পরে তাঁকে রক্তাক্ত অবস্থায় উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে ডাক্তাররা মৃত বলে ঘোষণা করেন।
জেলা কংগ্রেসের মুখপাত্র জয়ন্ত দাস বলেন, এনামুল আমাদের দলের সক্রিয় কর্মী ছিলেন। আজ বিকেলে তাঁকে লক্ষ্য করে বোমা এবং গুলি চালায় দুষ্কৃতীরা। যদিও সেগুলো তাঁর গায়ে লাগেনি। এরপরই দুষ্কৃতীরা আমাদের কর্মীকে লাঠি ও বাঁশ দিয়ে বেধড়ক মারধর করে ওই ক্ষেতের মধ্যে ফেলে রেখে পালিয়ে যায়। আমরা দুষ্কৃতীদের কঠোর শাস্তির দাবি করছি।"
যদিও এনামুলের মৃত্যুর ঘটনার সাথে তৃণমূলের কোনও যোগ নেই বলে দাবি করেছেন স্থানীয় যুব তৃণমূল কংগ্রেস নেতা মিজান হাসান। তিনি বলেন, ওই ব্যক্তি দীর্ঘদিন ধরে অসুস্থ এবং শারীরিকভাবে প্রতিবন্ধী। আজ হঠাৎই তিনি অসুস্থ হয়ে পড়েন এবং জ্ঞান হারান। হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে চিকিৎসকরা তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করেন। এই খুনের ঘটনার সাথে অকারণে দলের নাম জড়ানো হচ্ছে।
তিনি অভিযোগ করেন, এলাকাতে অশান্তি ছড়ানোর জন্য আজ কংগ্রেস-সিপিএমের গুন্ডাবাহিনী বজলুর রহমান নামে তৃণমূলের এক সক্রিয় কর্মীকে প্রচন্ড মারধর করেছে। বর্তমানে তিনি মুর্শিদাবাদ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছেন।
রানিনগর থানার এক শীর্ষ আধিকারিক নাম না প্রকাশের শর্তে বলেন, "প্রাথমিক তদন্তে এনামুলকে মারধর করার কোনও প্রমাণ আমরা পাইনি। অসুস্থ হয়ে ওই ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে বলে আমরা জানতে পেরেছি। মৃতদেহটি ময়নাতদন্তের জন্য মুর্শিদাবাদ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হচ্ছে।"



বিশেষ খবর

নানান খবর

রজ্যের ভোট

নানান খবর

সোশ্যাল মিডিয়া