SNU

শুক্রবার ২১ জুন ২০২৪

সম্পূর্ণ খবর

Narendra Modi: মোদির উদ্দেশে প্রশ্নবাণ বিরোধীদের

Kaushik Roy | ২৮ মে ২০২৪ ১৯ : ৪০


বীরেন ভট্টাচার্য: প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির কলকাতা সফরের দিন একগুচ্ছ প্রশ্নের জবাব চাইল বিরোধী শিবির। মনরেগায় রাজ্যের বকেয়া থেকে শুরু করে করোনাকালে বিধানসভা নির্বাচনের প্রচারসভা করে রাজ্যের মানুষের জীবন ঝুঁকির মধ্যে ফেলা নিয়ে প্রশ্নবাণে বিদ্ধ করল কংগ্রেস, তৃণমূলের মতো ইন্ডিয়া জোটভুক্ত দলগুলি। পাশাপাশি বিগত ১০ বছরে সংসদের মর্যাদা ক্ষুন্ন করার অভিযোগ তুলে প্রধানমন্ত্রী এবং কেন্দ্রীয় সরকারের সমালোচনা করেছেন তৃণমূলের রাজ্যসভার নেতা ডেরেক ও ব্রায়েন। তাঁর অভিযোগ, এই প্রথমবার লোকসভায় কোনও ডেপুটি স্পিকার নিয়োগ করা হয়নি এবং একটি প্রশ্নেরও জবাব দেননি প্রধানমন্ত্রী। ডেরেক ও ব্রায়েন বলেছেন, "সভার সংখ্যার বিচারে সবচেয়ে কমদিন সংসদ বসেছে এবং তা ১৯৫২ থেকে সর্বনিম্ন। এই সরকারের আমলে কোনও ডেপুটি স্পিকার নিয়োগ করা হয়নি। সভা কক্ষে একটি প্রশ্নেরও জবাব দেননি প্রধানমন্ত্রী মোদি।" ডেরেকের কথায়, "রাজ্যসভায় বিরোধীদের দেওয়া একটি নোটিশও আলোচনার জন্য গৃহীত হয়নি। সভাকক্ষে সাম্প্রদায়িক বক্তব্য রেখেছেন ট্রেজারি বেঞ্চের একজন সাংসদ।"

প্রসঙ্গত, বিএসপি সাংসদ দানিশ আলি সম্পর্কে সাম্প্রদায়িক মন্তব্য করেন বিজেপি সাংসদ রমেশ বিধুরী। তিনি আরও কয়েকটি উল্লেখ করেছেন, "প্রথমবার লোকসভায় নিরাপত্তা লঙ্ঘিত হয়েছে। নিরাপত্তা লঙ্ঘন নিয়ে আলোচনার দাবি জানানোয় বিরোধী শিবিরের ১৪৬ জন সাংসদকে সাসপেন্ড করা হয়েছে। বিরোধীদের প্রায় ৩০০টি প্রশ্ন মুছে ফেলা হয়েছে।" ডেরেক ও ব্রায়েনের কথায়, "সংসদকে গভীর অন্ধকার কক্ষে পরিণত করেছে মোদি সরকার। সংসদের প্রতি দায়বদ্ধ থাকে কেন্দ্রীয় সরকার, দেশের জনগণের প্রতি দায়বদ্ধ থাকে সংসদ, ফলে সংসদকে অবহেলা করে দেশের জনগণের প্রতি দায়বদ্ধতা এড়িয়ে যাচ্ছে মোদি সরকার।" ডেরেক ও ব্রায়েন অভিযোগ করেন, "দুর্নীতিগ্রস্ত নেতাদের দলে টানে বিজেপি। ১০ জন দুর্নীতিগ্রস্ত নেতার মধ্যে বিজেপিতে যোগ দেওয়া ৯ জন তদন্ত থেকে রেহাই পেয়েছেন। সেই তালিকায় রয়েছেন হিমন্ত বিশ্বশর্মা, প্রফুল্ল প্যাটেল, নারায়ণ রাণে, অজিত পাওয়ার, অশোক চহ্বান, শুভেন্দু অধিকারী। বিজেপি একটি ওয়াশিং মেশিন।" ডেরেকের বক্তব্য, সন্দেশখালির মহিলারা বিচার চান বলে দাবি করেছেন প্রধানমন্ত্রী মোদি।

যদিও সন্দেশখালির ঘটনাকে হাতিয়ার করে বাংলার মর্যাদাহানি করার বিজেপির চক্রান্ত ফাঁস হয়ে গিয়েছে। বাংলার মহিলাদের টাকা দিয়ে জোর করে সাদা কাগজে স্বাক্ষর করিয়ে ধর্ষণের অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।" কংগ্রেস নেতা জয়রাম রমেশের বক্তব্য, ২০২১ সালে যখন করোনার মারাত্মক দ্বিতীয় ঢেউ চলছিল, সেই সময় তার মোকাবিলা না করে বাংলায় ভোটপ্রচার করেছেন প্রধানমন্ত্রী মোদি। তাঁর কথায়, "সেই সময় করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ছিল ২.৩৪ লক্ষ। যদিও প্রধানমন্ত্রী মন্তব্য করেছিলেন এত বড় জমায়েত তিনি কখনও দেখেননি। আজও যখন সাইক্লোন রেমালে বিপর্যয় এসেছে, বিভাজনের রাজনীতি উস্কে দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী মোদি।" জয়রামের কথায়, "সাক্ষাৎকারে তিনি দাবি করেছেন, কলকাতা এবং বাংলাকে নষ্ট করে দেওয়া হয়েছে। বাংলার এর থেকে বড় অপমান আর কিছু হতে পারে না। যদিও ২০২২ সালে প্রজাতন্ত্র দিবসে নেতাজি সুভাষ চন্দ্রকে নিয়ে বাংলার ট্যাবলো বাতিল করেছে তাঁর সরকার। " বিগত ৩ বছর ধরে কেন বাংলাকে মনরেগার টাকা দেওয়া হয়নি সেই প্রশ্নও তুলেছেন জয়রাম রমেশ।




বিশেষ খবর

নানান খবর

Advertise with us

নানান খবর

Supreme Court: ওবিসি শংসাপত্র বাতিলের রায়কে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে সুপ্রিম কোর্টে রাজ্য সরকার...

NTA: এনটিএ-র কার্যকারিতা পর্যালোচনার জন্য উচ্চ-স্তরের কমিটি গঠন, জানালেন কেন্দ্রীয় শিক্ষামন্ত্রী...

Arvind Kejriwal: স্বস্তিতে কেজরিওয়াল, জামিন পেলেন দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী...

পরীক্ষা অনিয়মে সমালোচনায় বিদ্ধ এনডিএ সরকার

Vande Bharat: বন্দে ভারতে খাবারে আরশোলা

Modi : দুদিনের জম্মু-কাশ্মীর সফরে প্রধানমন্ত্রী ...

Canada : কূটনৈতিক সংঘাতে ভারতের হাতিয়ার কনিষ্ক

Meeting : অস্ট্রেলিয়ার কূটনীতিকদের সঙ্গে বাংলার তিন মন্ত্রীর বৈঠক আটকাল কেন্দ্র ...

Sebi : সেবি নিয়ে সুপ্রিম কোর্টে যাবে তৃণমূল

Water : দিল্লির জল সমস্যার সমাধান না হলে অনশনের হুমকি দিলেন অতিশী ...

Narendra Modi: তৃতীয়বার জয়ের পর বারাণসীতে মোদি, কী বললেন? ...

Bihar: বিহারে উদ্বোধনের আগেই হুড়মুড়িয়ে ভেঙে পড়ল ১২ কোটির সেতু ...

FLOOD: অসমে ভয়াবহ বন্যা পরিস্থিতি, ক্ষতিগ্রস্ত ১ লক্ষের বেশি মানুষ...

TMC : নজরে শেয়ার কেলেঙ্কারি, শরদ পাওয়ারের সঙ্গে বৈঠকে তৃণমূলের প্রতিনিধি দল...

Delhi: ভিন জাতের প্রেমিকের সঙ্গে বিয়েতে আপত্তি, মেয়েকে খুন বাবার ...

সোশ্যাল মিডিয়া



SNU