বৃহস্পতিবার ১৩ জুন ২০২৪

সম্পূর্ণ খবর

Food Vlogging: মোবাইল ঘাঁটলেই ফুড ভ্লগ! কিন্তু কীভাবে হবেন ফুড ভ্লগার? রইল ফুড ভ্লগিংয়ের সাত কাহন

Reporter: নিজস্ব সংবাদদাতা | লেখক: পরমা দাশগুপ্ত ২৪ মে ২০২৪ ১৭ : ০১


পরমা দাশগুপ্ত : সোশ্যাল মিডিয়া খুলতেই জিভে জল। নতুন রেস্তোরাঁর খানা-খাজানা দেখে অ্যাম্বিয়েন্স, সবটাই চোখের সামনে। এবার গেলেই হল চেখে দেখতে!
সৌজন্যে ফুড ভ্লগিং। ইউটিউব, ইনস্টাগ্রাম, ফেসবুক সবেতেই এখন এই ফুড ভ্লগ ভিডিওর রমরমা। যেখানে ভ্লগার ক্যামেরা সমেত নিজে পৌঁছে যাচ্ছেন ক্যাফে, রেস্তোরাঁ, ক্লাউড কিচেন কিংবা হোম শেফের কাছে। রান্নাঘর থেকে খাবার টেবিল, বাহারি পদের সাতকাহন থেকে ব্র্যান্ডের খুঁটিনাটি, গল্পে-আড্ডায় তুলে ধরছেন সবটাই। সঙ্গে দুর্দান্ত ক্যামেরাওয়ার্ক আর ঝকঝকে এডিটিং। নেটপাড়া দেখছে, বলা ভাল মজছে। এবং তার পর ভ্লগারের মতোই মনমাতানো অভি়জ্ঞতার টানে নিজেরাও পৌঁছে যাচ্ছে সেখানে। ব্যস! ব্যবসা বাড়ছে ব্র্যান্ডের আর জনপ্রিয়তা বাড়ছে ভ্লগারের। আর প্রোমোশন ভ্লগের বিনিময়ে ব্র্যান্ডের থেকে টাকা পাচ্ছেন ভ্লগার।  
পেশা হিসেবে ফুড ভ্লগিংয়ের চাহিদা এখন তুঙ্গে। গোটা দেশের মতো কলকাতাতেও হুড়মুড়িয়ে বাড়ছে ক্যাফে, রেস্তোরাঁ, ক্লাউড কিচেন। আর পাল্লা দিয়ে বাড়ছে ব্যবসা টিকিয়ে রাখার লড়াই। আর সেখানেই ব্র্যান্ডগুলো ভরসা রাখছে ভ্লগারের উপরে। কারণ সরাসরি বিজ্ঞাপনে মানুষকে ক্যাফে-রেস্তোরাঁয় টেনে আনা কঠিন। বরং ভ্লগারদের অভিজ্ঞতা সোশ্যাল মিডিয়ার পাতায় সরাসরি দেখে সেখানে যাওয়ার ইচ্ছে তৈরি হচ্ছে অনেকেরই। বড় ব্র্যান্ডরা আস্থা রাখছে বড়সড় ভ্লগারদের অজস্র ফলোয়ারে। ছোট ব্র্যান্ডগুলোর ভরসা হয়ে উঠছে মাইক্রো ভ্লগারেরা। 
ফুড ভ্লগার হতে গেলে প্রাথমিক ভাবে কয়েকটা জিনিস মাথায় রাখা জরুরি। 
 সবার আগে চাই খাবার নিয়ে পড়াশোনা। দেশ-বিদেশের ক্যুইজিনের নানা রকমের পদ, তাদের ইতিহাস, রান্নার উপকরণ, রেসিপি, তাদের সঙ্গে জড়িয়ে থাকা নানা রকমের তথ্য সবটাই থাকতে হবে নখদর্পণে। ভ্লগিং মানে কিন্তু শুধু রেস্তোরাঁর চেহারা আর মেনু নিয়ে বলাই নয়। এই বাড়তি তথ্যগুলো আপনার ভিডিওকে আরও আকর্ষণীয় করে তুলবে দর্শকের কাছে। তারই গুণে বাড়বে ভিউ এবং ফলোয়ার। 
 খাবারদাবার অনেক ধরনের হয়। নানা ক্যুইজিন যেমন আছে, তেমনই আছে রেস্তোরাঁ, ক্যাফে, ক্লাউড কিচেন, হোম শেফ, যাদের প্রত্যেকের খাবারের ধরন, অ্যাম্বিয়েন্স, পরিষেবার ধরন, ইউএসপি আলাদা। আবার খাবারের ভিডিও-ও নানা ধরনের হতে পারে। যেমন ক্যাফে-রেস্তোরাঁ ট্যুর, রেসিপি বা লাইভ কুকিং কিংবা ফুড রিভিউ। তাছাড়া, ভ্লগিংয়েরও ধরন থাকে। কেউ গল্প বলেন, কেউ ইন্টারভিউ করেন, কেউ খাবার রান্না থেকে পরিবেশন পুরোটা দেখান নিজের মতো করে, কেউ বা টেবিলে সাজানো খাবার খেতে খেতে সব তথ্য জানান দর্শকদের। কোনটায় বেশি সাবলীল হতে পারবেন, আগে ঠিক করে নিন। 
ভ্লগে ফলোয়ার বাড়ানোই আপনার লক্ষ্য। আর তা করতে গেলে নিয়মিত ভিডিও পোস্ট করে যেতেই হবে রুটিন মেনে। ভ্লগ আপলোড করার সময় নির্দিষ্ট করে নিন। ধরা যাক প্রতি রবিবার বিকেলে আপনি ভিডিও আপলোড করবেন। তাহলে প্রতি রবিবার নির্দিষ্ট সময়ে অবশ্যই যেন ভিডিও পোস্ট হয় আপনার ইউটিউব চ্যানেল বা ফেসবুক-ইনস্টাগ্রামের পাতায়। 
ভিডিওটা দেখতে ভাল হওয়া জরুরি। আর তার জন্য চাই ভাল ক্যামেরাওয়ার্ক আর টানটান এডিটিং। সঙ্গী হিসেবে ভাল ফোটোগ্রাফার, ভাল ক্যামেরা, ভাল এডিটর থাকলে তো কথাই নেই। তা না হলে ভাল ক্যামেরা কোয়ালিটির একটা স্মার্টফোন নিয়ে নিজেই শুরু করতে পারেন। আর চাই একটা ট্রাইপড আর ঠিকঠাক আলোর সেটিং। 
 আজকাল ফুড ভ্লগিংয়ে প্রতিযোগিতা বেশ বেশি। তাই লড়াইয়ের ময়দানে অন্যরা কে কী করছে, সর্বক্ষণ খেয়াল রাখুন। তাদের সঙ্গে বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক বজায় রেখে, তাঁদের পোস্টে লাইক-কমেন্ট করতে থাকুন নিয়মিত। এতে তাঁদের ফলোয়াররাও আপনার সঙ্গে পরিচিত হবেন, ফলো করা শুরু করবেন আপনাকেও। 
 মাথায় রাখুন ফুড ভ্লগের জনপ্রিয়তাই আপনার চাহিদা তৈরি করবে ব্র্যান্ডগুলোর কাছে। তাই যত দিন না তা হচ্ছে, ধৈর্য ধরে ভ্লগ করে যেতে হবে। নিজের ভ্লগের ইউএসপি তৈরি করে আকর্ষণীয় ভিডিও তৈরি করুন। মাথায় রাখবেন, আপনার ভিডিওর আকর্ষণের কেন্দ্রবিন্দুই হল আপনার কনটেন্ট। আর তার বেশিটাই নির্ভর করবে আপনার কথা বলার কায়দা আর তথ্যের উপর। 
ফলোয়ার এবং ভিউয়ার বেস তৈরির দিনগুলোয় নানা রকম ব্র্যান্ডের খাবার বা অন্যান্য পণ্য আপনার ভিডিওয় দেখিয়ে সে সব নিয়ে কথা বলুন। সেই সব ব্র্যান্ডকে ট্যাগ করুন নিয়মিত। আর নিজের ফলোয়ার বেড়ে গেলে আপনি সরাসরিই যে কোনও ব্র্যান্ডকে যোগাযোগ করে নিতে পারবেন। ফলোয়ারের সংখ্যা এবং ভিউয়ের উপর নির্ভর করবে আপনার উপার্জন। 
তা হলে, শুরু করছেন কবে?




বিশেষ খবর

নানান খবর

World day against Child Labour #childlabour #aajkaalonline #againstchildlabour

নানান খবর

Recipe: জামাইয়ের পাতে সাজিয়ে দিন আলফানসো চিজ কেক! রইল রেসিপি ...

Fashion: ইন্দোরের ফিউশন ফ্যাশন রানওয়েতে কলকাতার ফ্যাশন ডিজাইনার শ্যামসুন্দর বসু ...

Skin care: নায়িকাদের মত ঝকঝকে ত্বক চাই? মেনে চলুন এই একটি টিপস! ...

Skin care: পার্লারে বা স্যালোঁয় নয়, গ্লোয়িং স্কিনের রহস্য লুকিয়ে আপনার বাড়িতেই!...

Lifestyle: কেন এনার্জি হারিয়ে ফেলেন কর্মরতা মায়েরা? ...

Skin care: কোন বয়স থেকে ব্যবহার করা উচিত অ্যান্টিএজিং প্রসাধনী?...

Skin care: কোন বয়স থেকে ব্যবহার করা উচিত অ্যান্টিএজিং প্রসাধনী?...

Lifestyle: কোন মন্ত্রে স্ট্রেস, টেনশন গায়েব হবে নিমেষে? ...

Relationship: টক্সিক সম্পর্ক? জীবনের মোড় ঘোরানো সিদ্ধান্ত নেওয়ার আগে ভাবুন! ...

Mother's Journey: যুদ্ধের ২৩৮তম দিন! গাজায় সন্তানের জন্য কেক তৈরি করলেন একজন মা!...

Skin care: জেল্লাদার ত্বক পেতে আজই ডায়েট থেকে বাদ দিন এই চারটি খাবার!...

Jamai Sasthi Special: জামাইষষ্ঠীতে শাশুড়ি-জামাইয়ের উপহারে থাকুক আধুনিকতার ছোঁয়া...

Jamai Sasthi Special: জামাইকে রেঁধে খাওয়ান নতুন কিছু! রইল রেসিপি...

Relationship: একাধিক সম্পর্কে জড়িয়ে হিমশিম খাচ্ছেন? ...

Health: এই অভ্যাস ছাড়ুন, দ্রুত কমবে ওজন!

Lifestyle: ভাল থাকুন এই এক মশলার গুণে!

Skin care: বেড়াতে গিয়ে ত্বকের যত্ন নেওয়া চ্যালেঞ্জিং? কী পরামর্শ দিচ্ছেন বিশেষজ্ঞ? ...

Health: কাজে বিরক্তি, হতাশা? কোন ভিটামিনের ঘাটতি থেকে হচ্ছে? ...

সোশ্যাল মিডিয়া