বুধবার ২৪ এপ্রিল ২০২৪

সম্পূর্ণ খবর

EXCLUSIVE: ‘শাস্ত্রী’র লুক আজকাল ডট ইনে প্রথম! মিঠুনদার পরিশ্রম লজ্জা দিয়েছে: সৌরসেনী

নিজস্ব সংবাদদাতা | ০৫ মার্চ ২০২৪ ১৭ : ২০


২০২৪-এর কাছে কৃতজ্ঞ সৌরসেনী মৈত্র। এই বছর তাঁকে রাখি গুলজারের সঙ্গে কাজের সুযোগ করে দিয়েছে। উইন্ডোজ প্রযোজনা সংস্থার আগামী ছবি "আমার বস"-এ । সদ্য কাজ করে উঠলেন মিঠুন চক্রবর্তীর সঙ্গে। পথিকৃৎ বসুর পুজোর ছবি "শাস্ত্রী"তে। ছবিতে তিনি ছোট্ট কিন্তু গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে। নাম অনুরাধা, পেশায় সাংবাদিক! এটুকু জানিয়েই হাসতে হাসতে অভিনেত্রীর দাবি, চরিত্র নিয়ে এর বেশি আর কিচ্ছু বলতে পারবেন না। বদলে সৌরসেনীর সৌজন্যে ছবির তিন তারকার লুক ফাঁস! মিঠুন চক্রবর্তীর লুক এর আগে আজকাল ডট ইনে প্রথম প্রকাশ্যে। এবার সামনে এলেন দেবশ্রী রায়, সৌরসেনী। কেমন সাজ তাঁদের? শেষ দিনের শেষ দৃশ্য দুর্গাপুজো। জমকালো সাজে সেজে, হুল্লোড় করতে করতে কাজ শেষ করেছেন। সেই ছবি প্রকাশ্যে। ওই দিন মহাগুরু সেজেছিলেন সিল্কের নীল পাঞ্জাবি, হলুদ ধুতি, উত্তরীয়তে। গলায়, হাতে রুদ্রাক্ষের মালা। দেবশ্রী ঝলমলে লাল শাড়িতে। একই ভাবে লাল সালোয়ার-কামিজে সহজসুন্দরী সৌরসেনী। দাবি, লাল তো উৎসবের রং!

এর পরেই স্বাভাবিক ভাবে কথা ওঠে "মহাগুরু"কে নিয়ে। সৌরসেনী যেন প্রসঙ্গ তোলার অপেক্ষায় ছিলেন! আহ্লাদি গলায় বললেন, "আমার স্বপ্নপূরণ তো বটেই, আমার বাবারও স্বপ্নপূরণ করেছে এই ছবি"। কীভাবে? নায়িকা জানিয়েছেন, তাঁর বাবা ছেলেবেলা থেকে মিঠুন চক্রবর্তীর অন্ধ ভক্ত। ওঁকে ছাড়া আর কারও ছবি দেখেন না। মেয়ে তাঁর সঙ্গে অভিনয় করছে শুনে বায়না, তাঁকে একদিন সেটে নিয়ে যেতেই হবে। মহাগুরুকে বলতেই তিনি এককথায় রাজি। সেটে সেদিন নাকি শুট কম আড্ডা বেশি! পরে আনন্দে কেঁদে ফেলেছিলেন সৌরসেনীর বাবা। মেয়েকে জানিয়েছিলেন, তাঁর সারা জীবন এই অপেক্ষাতেই কেটেছে। মনে হচ্ছে জন্ম সার্থক। অসুস্থতার আগেপরে মহাগুরুকে সামনে থেকে দেখছেন তিনি। কোনও বদল? প্রশ্ন রাখতেই বিস্মিত নায়িকার মত, ‘‘বদল! ওঁর পরিশ্রম আমাদের লজ্জায় ফেলে দিয়েছে! অসুস্থ হওয়ার আগে যেমন এনার্জি, অসুস্থতার পরেও। একটা দিন নষ্ট করেননি প্রযোজক-পরিচালকের।’’ আর মিঠুন-দেবশ্রীর ম্যাজিক? সৌরসেনীর দাবি, এখনও অটুট। সেই ‘ত্রয়ী’র মতোই টাটকা, সবুজ।

তিন মাথা এক হলেই নাকি আড্ডায় মেতে উঠতেন। পরে হুঁশ ফিরলে শুট শুরু করতেন। মিঠুন-দেবশ্রীর সঙ্গে কাজ করার সুযোগ করে দেওয়ার জন্য তিনি কৃতজ্ঞ প্রযোজক-অভিনেতা সোহম চক্রবর্তীর কাছে। কৃতজ্ঞ পরিচালকের কাছেও। পুরো টিমটাই তাঁর কাছে নতুন। কিন্তু কাজ করতে করতে একবারও মনে হয়নি। কাজ শেষের পরে সবার মনে পড়েছে, শুট শেষ! সৌরসেনী মুখিয়ে, আবার কবে মিঠুন চক্রবর্তীর সঙ্গে কাজ করবেন। নায়িকা যথারীতি ব্যস্ত পরের কাজ নিয়ে। শেষ প্রশ্ন, অভিনেত্রী জ্যোতিষে বিশ্বাস করেন? একটু থেমে সৌরসেনী জবাব দিলেন, ‘‘একেবারে অস্বীকার করতে পারি না। কারণ, এটা বিজ্ঞান। একই ভাবে এটাও বিশ্বাস করি না, একটা পাথর ভাগ্য বদলে দিতে পারে।’’ তারপরেই মুচকি হেসে যোগ, বাকিটা পর্দার জন্য তোলা থাক?



বিশেষ খবর

নানান খবর

WORLD BOOK and COPYRIGHT DAY #aajkaalonline #WorldBookandCopyrightDay

নানান খবর

সোশ্যাল মিডিয়া