মঙ্গলবার ১৬ এপ্রিল ২০২৪

সম্পূর্ণ খবর

Arrest: পাত্র শ্রীঘরে, মাথায় হাত পাত্রী পক্ষের#দক্ষিণবঙ্গ

Rajat Bose | ০৪ মার্চ ২০২৪ ২০ : ১২


মিল্টন সেন, হুগলি: ধর্ষ‌‌ণের অভিযোগে হবু বর শ্রীঘরে। গায়ে হলুদ আসতে দেরি কেন? খবর নিতে গিয়ে মাথায় হাত পাত্রী পক্ষের! অবাক করা ঘটনাটি ঘটেছে সোমবার সকালে বৈদ্যবাটি ১৬ নম্বর ওয়ার্ডের এসসিএম রোড এলাকায়। জানা গেছে বিয়ের দিন সকাল থেকে পিঁড়ি সাজানো থেকে শুরু করে রান্নাবান্না সব আয়োজনই প্রায় সম্পন্ন করে ফেলেছিল মেয়ের বাড়ি। অপেক্ষা ছিল গায়ে হলুদের। দেরি হওয়ায় করতে হয় ফোন। জানা যায় হবু বরকে নাকি গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। অবশেষে ভাঙল বিয়ে। মাথায় হাত মেয়ের পরিবারের।
 বৈদ্যবাটি ১৬ নম্বর ওয়ার্ডের এসসিএম রোডের বাসিন্দা এক যুবতীর সঙ্গে বিয়ে ঠিক হয়েছিল ত্রিবেণীর সৈকত অধিকারীর। সোমবার ছিল বিয়ে। পরিবার সূত্রে জানা যায় গত বছর নভেম্বর মাসে মেয়ের দেখাশোনা হয়। তারপরে হয় বিয়ের পাকা কথা। বিয়ে ঠিক হয় মগড়ার ত্রিবেণী বাসুদেবপুর অধিকারী পাড়ার বছর ৩০ এর সৈকত অধিকারীর সঙ্গে। এদিন সকালে কনের বাড়িতে শুরু হয় গায়ে হলুদের তোড়জোড়। অতিথিদের জন্য সমস্ত রকম আয়োজন প্রায় সারা। দুপুর দুটোর পরে ছেলের বাড়ি থেকে ফোন করে জানানো হয় মগরা থানার পুলিশ সৈকতকে গ্রেপ্তার করেছে। যদিও ঠিক কি কারণে এমন ঘটনা তা জানাননি ছেলের বাবা। কান্নায় ভেঙে পড়ে মেয়ের পরিবার। মেয়েকে সঙ্গে নিয়ে হাজির হয় ছেলের বাড়িতে। কিন্তু সেখানে গিয়ে যা শোনেন তারা, এরপর আর ওই পাত্রের সঙ্গে বিয়ে দেওয়ার কথা ভাবতেও পারেননি। পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, নয় বছর ধরে এলাকারই এক যুবতীর সঙ্গে সম্পর্ক ছিল অভিযুক্ত যুবকের। বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে সহবাস করে সে। তারপর বৈদ্যবাটিতে নিজের বিয়ে ঠিক করে। রবিবার রাতে প্রতারিত যুবতী মগড়া থানায় ধর্ষণের অভিযোগ দায়ের করেন। এদিন সকালে সৈকতকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। পাত্রীর মা বলেছেন, একাধিক যৌতুক চেয়েছিল ছেলে। সব দাবি অনুযায়ী কেনা হয়েছিল। তিনি অভিযুক্ত যুবকের শাস্তি দাবি করেছেন।





বিশেষ খবর

নানান খবর

রজ্যের ভোট

নানান খবর

সোশ্যাল মিডিয়া