মঙ্গলবার ১৬ এপ্রিল ২০২৪

সম্পূর্ণ খবর

ECI: মূল দায়িত্ব রাজ্য পুলিশেরই: নির্বাচন কমিশন

Riya Patra | ০৫ মার্চ ২০২৪ ১৫ : ১৪


আজকাল ওয়েবডেস্ক: কেন্দ্রীয় বাহিনী থাকলেও মূল দায়িত্ব কিন্তু রাজ্য পুলিশেরই। মঙ্গলবার দেশের মুখ্য নির্বাচন কমিশনার রাজীব কুমার জানিয়ে দিলেন একথা‌। এদিন তিনি বলেন, ভয়মুক্ত নির্বাচন করতে নির্বাচন কমিশন দৃঢ়প্রতিজ্ঞ‌। যে কোনওরকম হিংসা বা অশান্তির ক্ষেত্রে "জিরো টরালেন্স" নেওয়া হবে। কেন্দ্রীয় বাহিনী থাকলেও মূল দায়িত্বটা কিন্তু রাজ্য পুলিশেরই। 
স্বাভাবিকভাবেই প্রশ্ন উঠেছে নির্বাচন ঘিরে রাজ্যের আমলা বা পুলিশবাহিনীর বিরুদ্ধে শাসকদলের প্রতি যে পক্ষপাতের অভিযোগ বিরোধী দলগুলি করে সেক্ষেত্রে কমিশন কী ব্যবস্থা নেবে। উত্তরে নির্বাচন কমিশনার জানিয়েছেন, "জেলাশাসক ও পুলিশ সুপারদের বলা হয়েছে তাঁদের নিচে যারা আছেন তাঁদেরকে নিয়ে নিরপেক্ষ ও সঠিক কাজ করতে হবে। যদি তাঁরা না করেন তবে আমরা করাব।" 
রাজ্যে ইতিমধ্যেই এলাকায় এলাকায় রুট মার্চ শুরু করেছে কেন্দ্রীয় বাহিনী। নির্বাচন যত এগিয়ে আসবে ততই এই বাহিনীর সংখ্যা বাড়বে। কমিশন এদিন জানিয়েছে, বাহিনী মোতায়েনের ক্ষেত্রে সিদ্ধান্ত নেবেন রাজ্যের মুখ্য নির্বাচনী আধিকারিক, রাজ্য পুলিশের নোডাল এবং কেন্দ্রীয় পর্যবেক্ষক। 
সোমবার তৃণমূল কংগ্রেসের তরফে নির্বাচন কমিশনারের কাছে দাবি জানানো হয়েছিল রাজ্যে এক দফায় নির্বাচন করানোর জন্য। এদিন মুখ্য নির্বাচন কমিশনার জানিয়েছেন, এক দফা বা কত দফায় এই রাজ্যে নির্বাচন হবে সে বিষয়ে কোনও সিদ্ধান্ত এখনও পর্যন্ত নেওয়া হয়নি।
অন্যদিকে রাজ্যে ইতিমধ্যেই অনেকের আধার নম্বর "ডিঅ্যাক্টিভেটেড" হওয়ার খবর এসেছে। এদিন মুখ্য নির্বাচন কমিশনার জানিয়েছেন, আধার কার্ড না থাকলেও বিকল্প পরিচয়পত্র দেখিয়ে ভোট দেওয়া যাবে।



বিশেষ খবর

নানান খবর

রজ্যের ভোট

নানান খবর

সোশ্যাল মিডিয়া