রবিবার ০৩ মার্চ ২০২৪

সম্পূর্ণ খবর

মুখ্যমন্ত্রীকে চিঠিতে তীব্র আক্রমণ বিশ্বভারতীর উপাচার্যের

Riya Patra | ২৯ অক্টোবর ২০২৩ ১৪ : ০৮


চন্দ্রনাথ ব্যানার্জী, বোলপুর: বিশ্বভারতীর উপাচার্যর পদের মেয়াদ বৃদ্ধির জন্য কেন্দ্রীয় সরকারের মন পেতে ফের মুখ্যমন্ত্রীকে বেলাগাম আক্রমণ বিদ্যুৎ চক্রবর্তীর৷ এর প্রতিবাদ জানাতে গিয়ে মন্ত্রী ও বিশ্বভারতীর প্রক্তনী চন্দ্রনাথ সিংহ উপাচার্যকে বললেন দু' কান কাটা। তাঁর বক্তব্য, 'উপাচার্যের পাঁচ বছরের মেয়াদ শেষ হচ্ছে এই নভেম্বরেই অর্থাৎ আর কিছুদিনের মধ্যে ।কোনওভাবেই তিনি এক্সটেনশনের সবুজ সংকেত এখনও পর্যন্ত পাননি। ফলকের নাম লিখে বা নানান চেষ্টা করেও । এখন সরাসরি মুখ্যমন্ত্রীকে বেলাগাম আক্রমণ করে মন পেতে চাইছেন কেন্দ্রীয় সরকারের। কিন্তু তিনি ভুলে গেছেন পদ পাওয়াটাই বড় কথা নয়। যেভাবে মানুষকে তিনি ক্ষেপিয়ে তুলছেন এর পরিণতি কি হবে সেটা আমরা ভেবে আতঙ্কিত হচ্ছি। উনি চাইছেন পায়ে পা লাগিয়ে ঝগড়া করতে। উনি যেটা চাইছেন সেটা হল জনপ্রিয় মুখ্যমন্ত্রীর সম্পর্কে এইসব লিখে কিছু উত্তেজিত যুবকের দ্বারা লাঞ্ছিত হতে। কিন্তু আমরা সে ব্যাপারে সতর্ক। কেউই আমরা উপাচার্যকে কোনও ভাবে আক্রমণ করে তাঁকে সুযোগ দেব না। বিদ্যুৎ চক্রবর্তীর কী হবে সেটা আদালত ঠিক করবে। কারণ আদালতে তাঁর বিরুদ্ধে একাধিক মামলা জমা হয়ে আছে।
উপাচার্য মুখ্যমন্ত্রীকে লিখেছেন আপনি 'কান দিয়ে দেখেন'। আপনার মন্ত্রী-স্তাবকরা জেল খাটছেন বলে কটাক্ষ করেছেন এই চিঠিতে। পাশাপাশি, ফলক সরিয়ে নেওয়া হবে তাও জানানো হয় মুখ্যমন্ত্রীকে। আন্দোলন চলাকালীন মুখ্যমন্ত্রীকে একটি চিঠি দিয়ে বেলাগাম আক্রমণ করেন বিশ্বভারতীর উপাচার্য বিদ্যুৎ চক্রবর্তী। চিঠিতে ফের উপাসনা গৃহে সামনের রাস্তা চাওয়া হয়। পাশাপাশি লেখা হয়, 'আপনি এখনও কান দিয়ে দেখেন'। শুধু এটুকুই নয়, নজিরবিহীন আক্রমণ করে উপাচার্য লেখেন, 'আপনার দুই সিনিয়র মন্ত্রী জেলে আছেন। আপনার বিশ্বস্ত সহযোগীরা তিহাড়ে বন্দী। আপনার সরকারের উপাচার্য জেলে।' এছাড়াও বিস্ফোরক এই চিঠিতে আরও উল্লেখ করা হয়েছে, তৃণমূল সরকার কয়লা, গরু, রেশন, চোরাচালান কেলেঙ্কারিতে জর্জরিত। অর্থাৎ, ফলক বিতর্কের আন্দোলন চলাকালীন মুখ্যমন্ত্রীকে চিঠি দিয়ে এভাবেই বেলাগাম আক্রমণ করলেন উপাচার্য বিদ্যুৎ চক্রবর্তী। যা নিয়ে বিতর্ক তুঙ্গে৷
প্রসঙ্গত, এর আগেও নোবেলজয়ী অর্থনীতিবিদ অমর্ত্য সেনের জমি ইস্যুতে পাশে দাঁড়ানোয় মুখ্যমন্ত্রীকে বেলাগাম আক্রমণ করেছিল বিশ্বভারতী কর্তৃপক্ষ। এবার সরাসরি মুখ্যমন্ত্রীকে তোপ বিশ্বভারতীর উপাচার্যের।

অন্যদিকে, বিশ্ব ঐতিহ্যের ফলকে ব্রাত্য স্বয়ং রবীন্দ্রনাথ, সেই নিয়ে তৃণমূলের আন্দোলন ৩ দিনে পা দিল। ধর্না মঞ্চ থেকেও উপাচার্যকে আক্রমণ করা হয়৷ 'বাঙালির হৃদয়ে রবী ন্দ্রনাথ যতদিন থাকবে ।ততদিন বাংলা বাঙালির কাছে বিজেপি গ্রহণযোগ্য হয়ে উঠবে না ।এই ধ্রুব সত্যটা বিজেপির নেতারা জেনে গেছেন ।আর সেই জন্যই রবীন্দ্রনাথকে ভুলিয়ে দিতে রবীন্দ্রনাথ কে মুছে ফেলতে এই ধরনের উদ্যোগ নেওয়া হচ্ছে একটি ঘৃণ্য কীটের দ্বারা।' বিশ্বভারতীর উপাচার্য অধ্যাপক বিদ্যুৎ চক্রবর্তীকে এই ঘৃণ্যকীটের সঙ্গে তুলনা করে আজ কার্যত ধর্না মঞ্চে তুলধনা করলেন রাজ্যের পরিবহন মন্ত্রী স্নেহাশীষ চক্রবর্তী। তিনি শান্তিনিকেতনে হেরিটেজের ফলকে রবীন্দ্রনাথের নাম বাদ দেওয়ার প্রতিবাদে আজ কবিগুরু মার্কেটের ধর্না মঞ্চে প্রধান বক্তা হিসেবে হাজির ছিলেন তিনি। পরিবহন মন্ত্রী এদিন সাফ জানন শান্তিনিকেতনকে কলুষিত করার জন্যই এই রকম আচরণ করা হয়েছে। শুধু তাই নয় এর বিরুদ্ধে মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জির নির্দেশে অনির্দিষ্টকালের জন্য ধর্না চলবে বলেও তিনি জানান। যদিও আজ উপাচার্য মুখ্যমন্ত্রীকে চিঠি লিখে জানিয়ে দিয়েছেন তারা ফলক খুলে নেবেন। কিন্তু এই ধর্না মঞ্চের দায়িত্বে থাকা রাজ্যের মন্ত্রী বোলপুরের বিধায়ক চন্দ্রনাথ সিংহ জানিয়েছেন ধর্না চলবে যতক্ষণ না খোলা হচ্ছে । স্বাভাবিকভাবেই দিনে দিনে রবীন্দ্রনাথের অপমানের প্রতিবাদের ধর্না মঞ্চে বাড়ছে লোক। আজ সকালে পরিবহন মন্ত্রী,বিকেলে এসেছিলেন বনদপ্তরের রাষ্ট্রমন্ত্রী বীরবাহা হাঁসদা। 
ধর্না মঞ্চে হাজির ছিলেন বিধায়ক বিকাশ রায় চৌধুরী অভিজিৎ সিংহ সাংসদ অসিত মাল প্রমুখ
উল্লেখ্য ১৭ সেপ্টেম্বর বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের শান্তিনিকেতনকে ওয়ার্ল্ড হেরিটেজ তকমা দিয়েছে ইউনেসকো। সেই সংক্রান্ত একটি শ্বেত পাথরের ফলক বসিয়েছে বিশ্বভারতী কর্তৃপক্ষ। আচার্য হিসাবে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ও উপাচার্য বিদ্যুৎ চক্রবর্তীর নাম থাকলেও ব্রাত্য স্বয়ং গুরুদেব। যা নিয়ে সরব হয়ে আন্দোলনের ডাক দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি।
৪ দিন ধরে শান্তিনিকেতন রাস্তার ধারে কবিগুরু হস্তশিল্প মার্কেটে মঞ্চ তৈরি চলছে ধর্না। এদিন, রাজ্যের ক্ষুদ্র-মাঝারি ও কুটির শিল্পমন্ত্রী চন্দ্রনাথ সিংহ, পরিবহন মন্ত্রী স্নেহাশিস চক্রবর্তী সহ সাংসদ অসিত মাল, বিধায়ক বিকাশ রায়চৌধুরী প্রমুখ ধর্নায় উপস্থিত ছিলেন৷ মঞ্চ থেকে বিশ্বভারতীর উপাচার্যকে আক্রমণ করেন সকলেই। রবীন্দ্রনাথের নাম যুক্ত করতে হবে, অথবা ফলক বদল করতে হবে এই দাবিতে চলছে তৃণমূলের ধর্না-বিক্ষোভ।



বিশেষ খবর

নানান খবর

Advertise with us

নানান খবর

Weather Update: আজ জেলায় জেলায় বজ্রবিদ্যুৎ সহ বৃষ্টির সম্ভাবনা, চলবে মঙ্গলবার পর্যন্ত ...

Uttarpara: বর্জ্য প্লাস্টিক পুনর্ব্যবহার করে তৈরি হচ্ছে আসবাব, অভিনব উদ্যোগ উত্তরপাড়া পুরসভার ...

Narendra Modi: মোদির সভাকে 'ফ্লপ' বলল তৃণমূল‌, বিজেপির আসন কমবে বলে দাবি বামেদের ...

Murshidabad: বাম শিবিরে যোগ দিলেন জঙ্গিপুর পুরসভার প্রাক্তন চেয়ারম্যান ...

DYFI: ডিওয়াইএফআইয়ের বসিরহাট পুলিশ সুপার অফিস ঘেরাওকে কেন্দ্র করে ধুন্ধুমার...

MEETING: শুভেন্দু-সুকান্তর সঙ্গে পৃথক বৈঠক করলেন প্রধানমন্ত্রী...

Fire: চায়ের দোকানে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ড, তৃণমূল কাউন্সিলর সহ জখম ৪...

INDRANIL: পূরণ হল দীর্ঘদিনের চাহিদা, একাধিক প্রকল্প উদ্বোধন করলেন মন্ত্রী ইন্দ্রনীল সেন...

Narendra Modi: ভোট সন্দেশখালির মহিলাদের থেকেও গুরুত্বপূর্ণ! প্রশ্ন তুললেন মোদি...

LIVE: সন্দেশখালির মা বোনেদের সঙ্গে যা করেছে তৃণমূল তার জন্য গোটা দেশ দুঃখিত: মোদি...

Old Woman: সাত বছরের নাতনির সূত্র খুঁজে বাড়ি ফেরানো হল স্টেশনে ফেলে যাওয়া বৃদ্ধাকে...

HANG: প্রেমিকের সঙ্গে যোগসাজশে সন্তান খুন, ফাঁসির সাজা মায়ের ...

Mysterious Death: ‌ভাল হয়নি অঙ্ক পরীক্ষা, মানসিক অবসাদে চরম সিদ্ধান্ত উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষার্থীর ...

Arrest: ‌শাহজাহান সঙ্গী আমির গাজিকেও ধরল পুলিশ, হল পাঁচ দিনের পুলিশ হেফাজত ...

Sheikh Shahjahan: শেখ শাহজাহানের প্রতি কোনও সমবেদনা নেই: প্রধান বিচারপতি শিবজ্ঞানম ...

Murshidabad: বহরমপুরে পথ দুর্ঘটনায় মৃত্যু স্কুল শিক্ষিকার, আহত ৬...



রবিবার অনলাইন

সোশ্যাল মিডিয়া