বুধবার ২২ মে ২০২৪

সম্পূর্ণ খবর

HUMAYUN: ইউসুফকে হারাতে দলের মধ্যে থেকে অন্তর্ঘাত হয়েছে, বিস্ফোরক হুমায়ুন কবীর

Sumit | ১৫ মে ২০২৪ ১৬ : ২৯


আজকাল ওয়েবডেস্ক : বহরমপুরে লোকসভা ভোট শেষ হতেই মুর্শিদাবাদ জেলা তৃণমূল নেতৃত্বের বিরুদ্ধে বিস্ফোরক অভিযোগ করলেন ভরতপুরের তৃণমূল বিধায়ক হুমায়ুন কবীর। তাঁর অভিযোগ, ভোট প্রচারের সময় মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি মুর্শিদাবাদ জেলাতে এসে তাঁকে আলাদা করে ইউসুফ পাঠানকে জেতানোর জন্য 'বিশেষ দায়িত্ব' দেওয়াতে 'গোঁসা' করে দলের একশ্রেণির নেতা ইউসুফ যাতে 'কম ভোট' পান তা নিশ্চিত করতে দলের মধ্য থেকে অন্তর্ঘাত করেছেন।
হুমায়ুনের অভিযোগ, দলের শীর্ষ নেতৃত্বের একাংশ অন্তর্ঘাত করায় লোকসভা নির্বাচনে ইউসুফ পাঠানের প্রত্যাশিত জয়ের মার্জিন অনেকটাই কমে যাবে। 
ইউসুফ পাঠানের নাম বহরমপুর কেন্দ্র থেকে তৃণমূল প্রার্থী হিসেবে ঘোষণার পর তিনি প্রথমে বিরোধিতা করেছিলেন তা স্বীকার করে নিয়ে হুমায়ুন বলেন," আমাদের দলের সেনাপতি অভিষেক ব্যানার্জি এবং সুপ্রিমো মমতা ব্যানার্জি নির্দেশ দেওয়ার পর আমি ইউসুফের হয়ে দিনরাত এক করে বহরমপুর লোকসভা কেন্দ্রে খেটেছি। ইউসুফ খুব ভাল ছেলে। সে রাজনীতির প্যাঁচ জানে না। বহরমপুর লোকসভা কেন্দ্রে নির্বাচনী প্রচারে এসে মুখ্যমন্ত্রী হরিহরপাড়া, বড়ঞা এবং বহরমপুরে একাধিকবার দলের শীর্ষ নেতাদের সামনে আমার প্রশংসা করেছে এবং ইউসুফকে জেতানোর জন্য আমাকে আলাদা করে 'বিশেষ দায়িত্ব; দিয়েছিলেন।"
দলের সাংগঠনিক সভাপতি অপূর্ব সরকারের বিরুদ্ধে বিস্ফোরক অভিযোগ করে হুমায়ূন বলেন," ইউসুফের জয় নিশ্চিত করার জন্য আমি বারবার অপূর্ব সরকারকে ভরতপুর -১ এবং ভরতপুর-২ ব্লকের জন্য একটি নির্বাচনী কমিটি তৈরি করে দেওয়ার কথা বলেছিলাম। কিন্তু সেই কমিটিতে আমার অনুগামীদেরকে রাখতে হবে বলে অপূর্ব সরকার ইচ্ছাকৃতভাবে কোনও কমিটি তৈরি করেননি।"
তৃণমূল বিধায়ক হুমায়ুন বলেন ," জেলার সংখ্যালঘু মানুষেরা যাতে তৃণমূলের হাত না ছাড়েন সেই কারণে যোগী আদিত্যনাথ শক্তিপুরে এসে সংখ্যালঘু সম্প্রদায়কে আক্রমণ করার পর আমি বিজেপিকে আক্রমণ করতে ছাড়িনি। কিন্তু জেলা সভাপতি অপূর্ব সরকার নিজেই হিন্দু ভোট ধরে রাখতে পারেননি। তাহলে কি কারণে তিনি নিজের পদ আঁকড়ে পড়ে রয়েছেন? "
হুমায়ুনের আরও অভিযোগ- আমাকে ছোট করার জন্যই ভরতপুরের মিটিং মিছিলে আমার ছবি না দিয়ে অপূর্ব সরকার সেখানে নিজের ছবি ব্যবহার করেছেন।
এত কিছু সত্বেও হুমায়ুন আজ ফের একবার দাবী করেছেন," আমাদের দলের প্রার্থী ইউসুফ পাঠানই বহরমপুর লোকসভা কেন্দ্র থেকে জিতবে। আমি যা আশা করেছিলাম তার থেকে ইউসুফের জয়ের মার্জিন বেশ কিছুটা কমবে।"
তবে হুমায়ুনের এত অভিযোগ সত্ত্বেও তাঁর বিরুদ্ধে একটি শব্দ বলতেও রাজি হননি সাংগঠনিক জেলা সভাপতি অপূর্ব সরকার। তিনি বলেন,"আমি এই বিষয়ে কোনও মন্তব্যই করব না।"




বিশেষ খবর

নানান খবর

রজ্যের ভোট

নানান খবর

AMIT SHAH: শুভেন্দুর ঘর থেকে চার আনাও পায়নি পুলিশ: অমিত শাহ...

AAP: জেলের জবাব ব্যালটে প্রচার তুঙ্গে করল আপ

Mamata Banerjee: কবে যাবেন সন্দেশখালি? জানালেন মমতা, মাছের ভেড়ি নিয়ে রাজ্য সরকারের নয়া আইন...

সন্দেশখালিকাণ্ডে দুঃখপ্রকাশ মুখ্যমন্ত্রীর

আমরা কাউকে ছেড়ে কথা বলিনা: মমতা

ভোট মিটতেই অশান্ত বাগদা

মগরার উত্তম চন্দ্র হাইস্কুলে উত্তেজনা

বুথ থেকে বুথে রচনা

MODI: সাধু-সন্ত ও দুর্নীতি, মমতা-সহ তৃণমূল ও কংগ্রেসকে আক্রমণ মোদির...

লিলুয়ায় প্রিসাইডিং অফিসারকে 'মারধর'

Parliament Election: রাত পোহালেই ভোটের পঞ্চম দফা

EC: অপসারিত হলেন ৪ অফিসার

Abhishek Banerjee: বিজেপির কেউ আবাসের টাকা দিয়েছে বললে, বেঁধে রাখবেন: অভিষেক ...

JOINING: বিদায়ী বিজেপি সাংসদ কুনার হেমব্রম যোগ দিলেন তৃণমূলে...

CONGRESS: কলকাতায় প্রদেশ কংগ্রেস অফিসে খাড়গের ছবিতে কালি ! ...

সোশ্যাল মিডিয়া