মঙ্গলবার ০৫ মার্চ ২০২৪

সম্পূর্ণ খবর

এই দীপাবলিতে জল ঢাললেই জ্বলবে প্রদীপ

Riya Patra | ০৩ নভেম্বর ২০২৩ ১৩ : ১৩


রিয়া পাত্র

বাঙালি জানে, হেমন্ত আর আলো যেন একসঙ্গে মিলেমিশে একাত্ম হয়ে থাকে। গ্রামে বা শহরে উৎসব আসার ধরণ একটু ভিন্ন হলেও, এই সময়ে দুই জায়গাতেই একটা ছবি একই। তোড়জোড় চলছে ঘরে ঘরে আলোর মালা সাজানোর। চাঁদনি, বড়বাজারের বাজারে দরদাম চলছে আলোর মালার, ব্যাটারি মোমবাতির। এবার বাজারে হিট জলের প্রদীপ। দেখতে প্রদীপের মতোই, ভেতরে নাকি রয়েছে সেন্সর! ক্রেতাদের সামনেই দেখাচ্ছেন, প্রদীপে একটু জল ঢাললেই জ্বলে উঠছে। দাম ২০ থেকে ৩০টাকা। পদ্ম ফুলের মতো দেখতে, জলে নামিয়ে দিলেই জ্বলে ঊঠবে, সেসব প্রদীপ দেদার বিকোচ্ছে ৫০-৬০ টাকায়। আবার রয়েছে কিউব আলো, জলে ফেলে দিলেই ঝকঝক করছে হিরের টুকরোর মতো।


 আগে মাটির প্রদীপ দিয়ে সাজানো হত ঘরের দরজা, উঠোন, ছাদের কার্নিশ, ঠাকুর দালান। মাটির প্রদীপ এখনও নিজের জায়গায় রয়েছে। কিন্তু মাটির প্রদীপের মাঝেই বারান্দা, জানালা, ঘরের ভেতর জায়গা করে নিয়েছে ইলেকট্রিক, ব্যাটারির মোমবাতি, রকমারি আলোর মালা, বাহারি ঝাড়বাতি। শুধু যে দৃষ্টিনন্দন তাই নয়, আগুন আতঙ্কও নেই। চাঁদনিতে প্রায় ৪০ বছর ধরে দোকান ইমজাদ খানের, তিনি বলছেন, ‘ গত ১০-১২ বছর ধরে চাঁদনির এই গলি আলো গলি বলে লোকে ডাকে। আগে ছিল কাগজের মালা, মাঝে মাঝে আলো। পরে এল লিচু লাইট। এখন মানুষ চকচকে, উজ্জ্বল, বেশি চমকদার জিনিস চাইছেন, আগের সেসব আলো এখন শুধু আমাদের মনেই রয়ে গিয়েছে।‘ চাঁদনিতে ১০-১২ বছর ধরেই আলো বিক্রি করছেন মহম্মদ সনু, তাঁর সাফ যুক্তি, ‘মানুষের চাহিদা মেনে বদলাচ্ছে সব। তেমনই বদলাচ্ছে আলো। এখন এসএমডি, এলইডি বাজারে চলছে। এগুলো টুনি বাল্বের হাই কোয়ালিটি। সঙ্গে চলছে ডিস্কো লাইট। দরজা বারান্দায় মানুষ স্ট্রিপ লাইট লাগাচ্ছেন। ‘ আলোর বাজারে যেমন চোখ ধাঁধিয়ে যাবে রোশনাই দেখে, তেমনি হকচকিয়ে যেতে পারেন দাম শুনেও। কোথাও টুনি আলোর মালার দাম ১৫০ টাকা, দেখতে অবিকল একই আলো আবার বিক্রি হচ্ছে ৬০ টাকায়। দু’ জনেই আলো জ্বালিয়ে দেখিয়ে দিচ্ছেন। দুই দোকানেই ভিড় ক্রেতার।" কতদিন চলবে এই আলো? উত্তরে ক্রেতার সাফ যুক্তি, ’৬০ টাকার আলো ১০ দিন চললেও হবে। ‘ বারাসাত থেকে এসেছেন, ৬০ টাকার আলোর মালা কিনলেন ৫০টি। আলোর মালার আবার নানা ধরণ, কোনওটার নাম গ্রেপস আলো, কোনওটা গোলাপ আলো। আবার রয়েছে ‘করোনা লাইট’ , ভাইরাসের মত দেখতে। ১৬টি আলোর এক একটি আলোর মালা দরদাম করলে ১০০,১৫০ টাকায় মিলে যাচ্ছে। রয়েছে ঝাড়বাতি আলো, সেগুলির দাম ২৫০ থেকে ৮৫০ পর্যন্ত। ব্যাটারির মোমবাতি, প্রদীপ, পদ্ম আলোর দোকান মদম্মদ নাসিমের। মোমবাতির মতোই দেখতে প্রদীপ, তার আবার হরেক রকম। কোনওটার দাম ২৫, একটু বড় সাইজ ৩০। আবার একেবারে মোমবাতির ফিনিশিং-এর দেখতে ১৫০ টাকা।  চাঁদনির আলোর বাজারে ৩০-৩৫ টি আলোর দোকান। ২০ টাকা থেকে ৮৫০ টাকার রকমারি আলো মিলছে। কেউ বলছেন ভালোই যাচ্ছে বাজার, কারও আবার বিক্রি কম কিছুটা। অনেকেই বলছেন অনলাইন মার্কেটিং বাজার খাচ্ছে তাঁদের। তবু এখনও হাতে সময় আছে কয়েকদিন। তাঁরা অপেক্ষা করছেন আলো জ্বালিয়ে, আলো বিক্রির। আলোর বাজার ঘুরলে আরও একটা জিনিস লক্ষণীয়, ব্যাটারি, ইলেকট্রিকের আলো কিন্তু আদতে সেই মোমবাতি, প্রদীপ, হ্যারাকিন আর পদ্মফুলের আদলেই। আগুনের বদলে এসেছে শুধু ব্যাটারি বা ইলেকট্রিক।



বিশেষ খবর

নানান খবর

Advertise with us

নানান খবর

Kolkata Airport: ‌আধ ঘণ্টার জন্য বন্ধ থাকবে কলকাতা বিমানবন্দর...

Kunal Ghosh: কুণাল ঘোষকে ফোন সুদীপের, সন্ধ্যায় চায়ের আমন্ত্রণ ...

কলকাতার স্কুল-কলেজই এখন বাড়ি কেন্দ্রীয় বাহিনীর, সিলেবাস শেষ করতে ভরসা অনলাইন ক্লাস...

জেভিয়ার্সে আলোচনাসভা

ECI: রাজনৈতিক দলগুলির সঙ্গে বৈঠক জাতীয় নির্বাচন কমিশনের ফুল বেঞ্চর, একদিনে ভোট চাইল তৃণমূল ...

Mamata Banerjee: দলের মতোই ঘরেও, পরবর্তী প্রজন্মে পরিবার আগলে রাখেন অভিষেক...

মঙ্গল রাতেই কলকাতায় মোদি, বুধে সভা করবেন বারাসাতে...

Kunal Ghosh: বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়কে শুভেচ্ছা কুণালের, তবে রাখলেন প্রশ্নও...

ক্যান্সার সচেতনতার বার্তায় হিউম্যানিটি লেডিস অন হুইলার ৱ্যালি...

MURDER UD: মদ্যপ সংহতি মারধর করতেন মাকে, সার্থক খুনের তদন্তে চাঞ্চল্যকর তথ্য...

Kunal Ghosh: সাধারণ সম্পাদক পদ থেকেও ইস্তফা গৃহীত হোক, অনুরোধ কুণালের ...

Kolkata: লেকটাউনে স্কুলের পাশ থেকে উদ্ধার শিশুকন্যা, হাসপাতালে মৃত ঘোষণা...

EC: রবিবার রাজ্যে আসছে নির্বাচন কমিশনের ফুল বেঞ্চ...

ABHISHEK: ব্রিগেডের জনসভার পর আরও ৫ টি জনসভা করবেন অভিষেক ব্যানার্জি...

TMC: মনরেগা নিয়ে তৃণমূলের প্রতিবাদ

সোশ্যাল মিডিয়া