বৃহস্পতিবার ১৮ জুলাই ২০২৪

সম্পূর্ণ খবর

Abhishek Banerjee: উদ্ধবের সঙ্গে বৈঠক, মুম্বই গেলেন অভিষেক

Riya Patra | ০৬ জুন ২০২৪ ২০ : ২৮


আজকাল ওয়েবডেস্ক: তৃণমূল কংগ্রেসের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক ব্যানার্জি সকাল থেকে বৈঠক করছেন দফায় দফায়। সমাজবাদী পার্টির অখিলেশ যাদব, আপ-এর রাঘব-সঞ্জয়ের সঙ্গে সাক্ষাতের পর, উদ্ধব ঠাকেরের সঙ্গে বৈঠকের জন্য দিল্লি থেকে অভিষেক সোজা মুম্বই উড়ে গিয়েছেন বলেই খবর সূত্রের। ফলাফল ঘোষণার দিনেই তৃণমূল কংগ্রেস সুপ্রিমো মমতা ব্যানার্জি জানিয়েছিলেন, বুধবার দিল্লিতে ইন্ডিয়া জোটের বৈঠকে যোগ দেবেন অভিষেক। বুধবার বৈঠকে হাজির ছিলেন তিনি। বৈঠকের পর থেকে একে একে জোট শরিকদের সঙ্গে বৈঠকে বসছেন তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক। অখিলেশ যাদবের বাড়িতে যান। তারপরেই অভিষেকের দিল্লির বাড়িতে যান আপ নেতা রাঘব চাড্ডা এবং সঞ্জয় সিং। সন্ধেতেই জানা গেল, দিল্লির পর এবার অভিষেক বৈঠকে বসবেন মুম্বইয়ে। বৃহস্পতিবারই মাতোশ্রীতে বৈঠকে বসবেন শিবসেনা উদ্ধব ঠাকরে শিবিরের উদ্ধব এবং তৃণমূলের অভিষেক।

সপা, আপ এবং শিবসেনা নেতা অখিলেশ যাদব, অরবিন্দ কেজরিওয়াল এবং উদ্ধব ঠাকরের সঙ্গে মমতা ব্যানার্জি এবং অভিষেক ব্যানার্জির সম্পর্ক খুবই ভাল। সংখ্যার বিচারে এনডিএ সরকার গড়লেও বিরোধীদের ভূমিকা কী হবে, সম্মিলিতভাবে কীভাবে কেন্দ্রীয় সরকারের বিরুদ্ধে আন্দোলন সংগঠিত করা যায়, তা নিয়ে আলোচনা হয়েছে বলে সূত্রের খবর। একইসঙ্গে সরকার গড়তে যখন বিরোধীদের সঙ্গে দরকষাকষি করছে বিজেপি, সে সময় হাল ছাড়তে নারাজ ইন্ডিয়া জোট। এক নেতা বলেন, "বিজেপির সংখ্যা নেই। ফলে আগামী ৬ মাসের মধ্যে যে কোনও ঘটনা ঘটতে পারে।" সমস্ত পথই খোলা রাখা হচ্ছে বলে সূত্রের খবর।

সূত্র মারফৎ জানা গিয়েছে, ফলাফল প্রকাশের পরেই তৃণমূলের শীর্ষ নেতৃত্বের সঙ্গে যোগাযোগ রাখছেন বিজেপির তিন সাংসদ। গতকালের বৈঠকে অভিষেক ব্যানার্জি ইন্ডিয়া নেতাদের এই কথা জানিয়েছেন বলে সূত্রের দাবি। ফলে, তৃণমূলের পাশাপাশি ইন্ডিয়া জোটের সংখ্যাও বাড়বে। টেলিফোনেও একে অপরের সঙ্গে সৌজন্য বিনিময় চলছে। বিহারের আড়া কেন্দ্রে জয়ী সিপিআইএমএল প্রার্থী সুদামা প্রসাদের জয়ে শুভেচ্ছা জানিয়েছে তৃণমূল। সূত্র মারফৎ আরও জানা গিয়েছে, টিডিপির তরফেও তৃণমূলের নেতাদের সঙ্গে একপ্রস্ত কথা হয়েছে। চন্দ্রবাবু নাইডুর দল জানিয়েছে, "আমরা ভুলে যাইনি, আমাদের নেতাকে জেলবন্দি করেছিলেন নরেন্দ্র মোদি।" একনাথ শিণ্ডে এবং উদ্ধব ঠাকর শিবিরের মধ্যে যোগাযোগ জারি রয়েছে বলে সূত্রের দাবি। তৃণমূলের এক নেতা বলেন,."আমরা বা অখিলেশ যাদবের এখন বসার সময় নেই। এই দুই রাজ্যে বিধানসভা ভোট রয়েছে।" তৃণমূলের এক নেতা বলেন, "গতকালের বৈঠকে সোনিয়া গান্ধীর ঠিক পাশেই বসেছিলেন সীতারাম ইয়েচুরি। এটা শুধু ছবি তোলার সুযোগ ছাড়া কিছুই নয়।" দলের রাজ্যসভার দলনেতা ডেরেক ও ব্রায়েন বলেন, "বিগত ১০ বছর কেন্দ্রে সরকার চালিয়েছে মোদির বিজেপি। তাঁকে এবং তাঁর সরকারকে প্রত্যাখান করেছেন দেশের মানুষ। এখান থেকেই শুরু। এখান থেকে আমরা এগিয়ে যাব।"




বিশেষ খবর

নানান খবর

Advertise with us

সোশ্যাল মিডিয়া