আজকাল ওয়েবডেস্ক: বঙ্গবন্ধ্য শেখ মুজিবর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে ২০২১ সালকে ‘মুজিব বছর’ নাম দিয়ে উদযাপন করছে বাংলাদেশ। এই উপলক্ষেই ভারত ও বাংলাদেশের মধ্যে সৌহার্দ্য বাড়াতে আয়োজন করা হয়েছে এক মৈত্রী সাইকেল র‍্যালির। বঙ্গবন্ধুকে সম্মান জানিয়ে ১০ জানুয়ারি পানিতার সীমান্তচৌকির ১৫৩ ব্যাটেলিয়ন থেকে সাইকেল র‍্যালি শুরু হয়েছে। সেদিন ভারতীয় সেনাবাহিনীর প্রাক্তন প্রধান শ্রী শঙ্কর রায়চৌধুরী  ১৫৩ ব্যাটালিয়নের বর্ডার আউট পোস্ট পানিতার থেকে পতাকা প্রদর্শন করে রওনা করেন। ১৩ জন সাইকেল চালক বিশিষ্ট এই র‍্যালিছ’টি রাজ্য (পশ্চিমবঙ্গ, অসম, মণিপুর, মেঘালয় এবং মিজোরাম) ঘুরে মিজোরামের সিল্কোরের ৬০, ব্যাটেলিয়ন সেনা চৌকিতে গিয়ে শেষ হবে। সোমবার (১১ জানুয়ারি) কৃষ্ণনগর সেক্টর পোস্টের বেহড়াতে পৌঁছয়। সেদিন তাঁদের অভিনন্দন জানাতে হাজির ছিলেন কৃষ্ণনগরের ডিআইজি প্রমোদকুমার আনন্দ, অন্যান্য আধিকারিক সহ বহু গ্রামবাসী। 
১১ থেকে ১৩ জানুয়ারি কৃষ্ণনগরের মধ্যে সমস্ত ব্যাটালিয়ন হয়ে মোট ২২২.২৭ কিমি পথ চলেছে মৈত্রী র‍্যালি। এই যাত্রাপথে বিএসএফ কর্মী, সীমান্তরক্ষী বাংলাদেশের কর্মী এবং সীমান্ত অঞ্চলের বহু মানুষ ফুল বর্ষণ করে অভিবাদন জানান। 
গণ্যমান্য ব্যক্তিদের মধ্যে ছিলেন শ্রী সমীরকুমার পোদ্দার (বিধায়ক, রানাঘাট উত্তর পূর্বাঞ্চল), শ্রী আশিস বিশ্বাস (বিধায়ক, কৃষ্ণগঞ্জ), শ্রী অমিতাভ ভট্টাচার্য (বিডিও, হংসখালি), এস সুভাষ কুমার (ডিএসপি, কৃষ্ণনগর), শ্রীমতী স্বাতী কুন্ডু (বিডিও, কৃষ্ণগঞ্জ), মো কালিমুদ্দিন (ডিবিও) প্রমুখ। এই সাইকেল র‍্যালির উদ্দেশ্য, দুই দেশের সীমান্তবর্তী সুরক্ষা প্রদান, বিএসএফ এবং বিজিবি-র মধ্যে বন্ধুত্ব বাড়ানো এবং সীমান্তে অপরাধ বন্ধ করা। এছাড়া মাদকাসক্তি, পশুপাচারের মতো ঘটনা রোধ করা। 

জনপ্রিয়

Back To Top