আজকাল ওয়েবডেস্ক: তাহলে কি ভিনগ্রহের বাসিন্দারাই বারবার পাঠাচ্ছে সংকেত?‌ তারাই আমাদের সঙ্গে যোগাযোগ করতে চাইছে?‌ সম্প্রতি দূরবীক্ষণ যন্ত্রে একটি সংকেত ধরা পড়ায় এই প্রশ্নগুলিই মাথাচাড়া দিচ্ছে বিজ্ঞানী ও মহাকাশ গবেষকদের মধ্যে। 
এই মহাবিশ্বে আর কোথায় প্রাণের অস্তিত্ব রয়েছে?‌ এই নিয়ে বিজ্ঞানীদের মধ্যে কৌতূহলের কোনও সীমা নেই। বিষয়টি নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে গবেষণা চালিয়ে যাচ্ছেন বিজ্ঞানী ও গবেষকরা। নাসা সহ বিশ্বের একাধিক মহাকাশ গবেষণা কেন্দ্রের বিজ্ঞানীরা বারবার জানিয়েছেন, যে কয়েক আলোকবর্ষ দূর থেকে বেশকিছু সংকেত ধরা পড়ছে। মহাকাশে প্রতিনিয়ত কী ঘটে চলেছে, তা পর্যবেক্ষণ করার জন্য মহাকাশ গবেষণা কেন্দ্রগুলিতে শক্তিশালী দূরবীক্ষণ যন্ত্র বসানো থাকে।

সম্প্রতি ওই দূরবীক্ষণ যন্ত্রেই ধরা পড়ছে কয়েক আলোকবর্ষ দূরে থাকা কোনও এক ছায়াপথে ঘূ্র্ণায়মান গ্রহ থেকে পাঠানো একটি সংকেত। এরকম বহু সংকেত বিজ্ঞানীদের কাছে এসে পৌঁছেছে। আর তাতেই দিনে দিনে কৌতুহল বেড়েছে বিজ্ঞানীদের। 
তবে বিজ্ঞানীরা আজও দ্বন্দ্বে রয়েছেন, এই সংকেত কি আদৌও ভিনগ্রহের বাসিন্দাদের পাঠানো নাকি মহাকাশে ঘটে যাওয়া কোনও বিস্ফোরণ ধরা পড়ছে দূরবীক্ষণ যন্ত্রে। ২০০৭ সালে প্রথম এই ধরণের সংকেত ধরা পড়ে। ঠিক তার পাঁচবছর পর একইরকম আরও একটি সংকেত ধরা পড়ে। এখনও পর্যন্ত মোট ১২টি সংকেত মহাকাশ থেকে পেয়েছেন বিজ্ঞানীরা।   ‌‌

জনপ্রিয়

Back To Top