আজকাল ওয়েবডেস্ক: শিশুদের মতো দাগ-ছোপ মুক্ত, নরম ত্বকের আকাঙ্ক্ষা কার না থাকে! কিন্তু বাজারচলতি হাজারটা প্রোডাক্টও যখন আশা পূরণ করতে পারছে না, তখন চোখ বুঝে রান্নাঘরের কিছু জিনিসের উপর ভরসা রাখতে বলছেন বিশেষজ্ঞরা। 

কী কী! 

১. উষ্ণ জলে মধু আর লেবু মিশিয়ে সকালে খালি পেটে খাওয়ার পরামর্শ দিচ্ছেন ডাক্তাররা। এতে শরীরের সমস্ত টক্সিন বের হয়ে যায়। আবার অল্প মধুর মধ্যে কয়েকফোঁটা পাতিলেবুর রস মিশিয়ে মুখেও ফেস প্যাকের মতো লাগাতে পারেন। 

২. অ্যালোভেরা জুস বা জেলের মধ্যে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন এ, বি, সি এবং ই থাকে। ফলে দিনে যেমন একগ্লাস অ্যালোভেরা জুস খেলে উপকার পাবেন, তেমনই মুখেও ময়শ্চারাইজারের মতো লাগাতে পারেন। 

৩. আজকাল বাজারে একটু খোঁজ করলেই লাইকোরাইস টি পাবেন। দিনে একবার খেলে যেমন উপকার পাবেন, তেমনই লাইকোরাইস সমৃদ্ধ ফেস প্যাকও সপ্তাহে দু'বার ব্যবহার করলে চটজলদি সমাধানও পাবেন। 

৪. শরীর সুস্থ রাখতে প্রতিদিন যেকোনও একরকমের ফল খেতে বলেন ডাক্তাররা। আবার ত্বকের দাগছোপ যদি অতিরিক্ত চিন্তার কারণ হয়ে থাকে, তাহলে ভরসা রাখতে পারেন পেঁপের উপর। 

৫. আলুর রসের উপকারিতা তো মোটামুটি সকলেরই জানা। চোখের ডার্ক সার্কেলের সমস্যা যেমন মেটায়, তেমনই কয়েকদিনের মধ্যেই ত্বকের অনেক পুরনো দাগ তুলে ফেলতেও সাহায্য করবে এটি। 

৬. প্রতিদিন দু থেকে তিন কাপ গ্রিন টি খাওয়ার পরামর্শ দিচ্ছেন ডাক্তাররা। যেমন শরীরের টক্সিন বের করে দেবে, সেইসঙ্গে ত্বক আরও ঝকঝকে, উজ্জ্বল করে তুলবে। 

৭. সপ্তাহে একদিন সারামুখে ফেস প্যাকের মতো বাটারমিল্ক লাগানোর পরামর্শ দিচ্ছেন বিশেষজ্ঞরা। কারণ এটি ত্বকের উপর জমে থাকা দীর্ঘদিনের মরা চামড়া তুলে ফেলতে সাহায্য করে। 

৮. ব্রণ, ব্রেক আউটসের ফলে ত্বকের উপর যে দাগ পড়ে, সেসব তুলতে টমেটোর রস ভীষণ উপকারী। মুখে লাগিয়ে ১৫ মিনিট রাখার পর ধুয়ে ফেলতে হবে। তাছাড়াও রোজ খাবারের সঙ্গে স্যালাডে টমেটোও রাখতে বলছেন বিশেষজ্ঞরা। 

জনপ্রিয়

Back To Top