আজকালের প্রতিবেদন- স্কুল খুললে কীভাবে আসবে পড়ুয়ারা, পারস্পরিক দূরত্ববিধি মেনে কীভাবে হবে ক্লাস, তা নিয়ে মহড়া হল সল্টলেকের কল্যাণী পাবলিক স্কুলে। স্কুলটি সিবিএসই বোর্ডের অধীনস্থ। সোমবার কয়েকজন পড়ুয়াকে নিয়ে এই মহড়া হয়। স্কুল কর্তৃপক্ষের বক্তব্য, এটার মাধ্যমে তারা অভিভাবকদের আশ্বস্ত করতে চান। স্কুল খোলার পর পড়ুয়ারা যে স্কুলে সম্পূর্ণ সুরক্ষিত, স্বাস্থ্যবিধি মেনেই যে ক্লাস হবে সেটা অভিভাবকদের জানাতেই এই মহড়া। করোনা পরিস্থিতিতে অনলাইন ক্লাস চলছে। স্কুল খুললেও একদিনে সব ক্লাসের সব পড়ুয়া স্কুলে আসবে না। ঘুরিয়ে–‌ফিরিয়ে এক একদিন একেকটি ক্লাসের পড়ুয়াদের আনা হবে। যে কারণে স্কুল খোলার পরও অনলাইন ক্লাস চলবে। মহড়ায় দেখা গেল, মূল স্কুল ভবনে ঢোকার আগে বসানো হয়েছে জীবাণুনাশক যন্ত্র। যার মধ্যে দিয়ে পড়ুয়া, শিক্ষক, শিক্ষাকর্মী সবাই স্কুলে ঢুকবেন। ঢোকার আগে হবে থার্মাল স্ক্রিনিং। দেখা গেল সেখানে প্রত্যেকের হাতে স্যানিটাইজার দেওয়া হচ্ছে। স্কুলের পক্ষ থেকে গ্লাভসও দেওয়া হচ্ছে। প্রত্যেক পড়ুয়ার মুখে মাস্ক। ক্লাসে পারস্পরিক দূরত্ববিধি মেনে পড়ুয়াদের বসানো হচ্ছে। প্রসঙ্গত, রাজ্যের সরকারি, সরকারি সাহয্যপ্রাপ্ত এবং পোষিত সব স্কুলই ৩০ জুন পর্যন্ত বন্ধ। কবে থেকে স্কুল খোলা হবে তা নিয়ে কেন্দ্র সরকারের তরফেও এখনও কোনও সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়নি। রাজ্যগুলির সঙ্গে কথা বলেই এ ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। 

জনপ্রিয়

Back To Top