দীপঙ্কর নন্দী: বৃষ্টি উপেক্ষা করে বহু মানুষ কালীঘাটে মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জির বাড়িতে বিজয়া সেরে গেলেন। মুখ্যসচিব রাজীব সিনহা, নগরপাল অনুজ শর্মা, ডিজি বীরেন্দ্র, স্বরাষ্ট্র সচিব‌ আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে জরুরি বৈঠকও সেরে নেন মমতা। শুক্রবারই রেড রোডে কার্নিভাল। আবহাওয়ার পূর্বাভাস, দুর্যোগ কেটে যেতে পারে। দূরদূরান্ত জেলা থেকে দলের নেতা ও কর্মীরা বিজয়া সারেন। তাঁরা মিষ্টি নিয়ে আসেন। মমতা নিজের হাতে সকলকে মিষ্টি বিতরণ করেন। বৃষ্টি থামতে ভিড় বাড়তে থাকে। মমতা কখনও অফিসে বসে কথা বলেন। কখনও অফিস ছেড়ে বেরিয়ে এসে নমস্কার বিনিময় করেন। বৃহস্পতিবারও তিনি বিজয়া সারবেন। এদিন এসেছিলেন শশী পাঁজা, ইন্দ্রনীল সেন, অরূপ রায়, মণীশ গুপ্ত, অপরূপা পোদ্দার, রত্না দে নাগ, সুব্রত বক্সি, নির্মল মাজি, শান্তনু সেন, শিবাজি চট্টোপাধ্যায়, অরুন্ধতী হোমচৌধুরি প্রমুখ। উত্তমকুমারের পরিবারের সদস্যরা এসে মমতাকে প্রণাম করে যান। একাদশীর দিন মুখ্যমন্ত্রী ফেসবুকে লিখেছেন, ‘‌এ বছর দুর্গাপুজো শেষ হল।’‌ পুজো দর্শনার্থী, উৎসবে অংশগ্রহণকারী ও পুজো কর্মকর্তাদের কাছ থেকে বিপুল সমর্থন ও সহযোগিতার জন্য মমতা সকলকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন। ফেসবুকে লিখেছেন, ‘‌নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে পুলিশ এবং প্রশাসন অক্লান্ত পরিশ্রম করেছে।’‌ ১১ অক্টোবর রেড রোডে কার্নিভালে সকলকে আমন্ত্রণ জানিয়েছেন। মুখ্যমন্ত্রীর বক্তব্য, ৪ বছর ধরে এই কার্নিভালে দারুণ সাফল্য পাওয়া গেছে। তাঁর ফেসবুক লাইভে এই কার্নিভাল সরাসরি দেখা যাবে বলে তিনি নিজে জানিয়েছেন।  বাড়িতে যাঁরাই এদিন এসেছেন, তাঁদের প্রত্যেককে মমতার কার্নিভালে আমন্ত্রণ জানিয়েছেন। ‌দিদির হাত থেকে মিষ্টি পেয়ে সকলে খুশি হয়ে বাড়ি ফিরেছেন। ফেসবুকে লিখেছেন, শুভ বিজয়া। হ্যাপি দশেরা।

জনপ্রিয়

Back To Top