আজকাল ওয়েবডেস্ক: দেশের এক চরমপন্থী ইসলামিক সংগঠনকে নিষিদ্ধ ঘোষণা করল পাকিস্তান। আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী সংস্থার সঙ্গে টানা তিন দিন সংঘর্ষ হয়েছে সংগঠনটির, যার ফলে মৃত্যু হয়েছিল সাত জনের এবং প্রায় ৩০০ পুলিশকর্মী আহত হয়েছিলেন। এই ঘটনার জেরেই নিষিদ্ধ হল তেহেরিক-ই-লাবায়েক পাকিস্তান (টিএলপি)।
পাকিস্তানের অভ্যন্তরীণ মন্ত্রী শেখ রশিদ আহমেদ সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছেন, ১৯৯৭-এর সন্ত্রাস বিরোধী আইনের ১১-বি ধারার অধীনে টিএলপিকে নিষিদ্ধ ঘোষণা করা হল। পঞ্জাব প্রদেশের সরকারের এই সংক্রান্ত আবেদনে সিলমোহর দিয়ে দিয়েছেন তিনি। যারা ইসলামিক গোষ্ঠীটিকে অর্থসাহায্য করে তাদেরও সাবধান করা হয়েছে। 
অভ্যন্তরীণ মন্ত্রী বলছেন, গত দু'দিনেই ২ পুলিশকর্মীর মৃত্যু হয়েছে এবং আহত হয়েছেন প্রায় ৩৪০ জন। সংগঠনটির দুই সমর্থকের মৃত্যু হয়েছে বলেও সংবাদমাধ্যম সূত্রে জানানো হয়েছে।
টিএলপি-র প্রধান সাদ হুসেন রিজভির গ্রেপ্তারির পরেই ফেটে পড়ে দলটি। ২০ এপ্রিলের মধ্যে তাঁকে মুক্তি দেওয়ার সময়সীমা দিয়ে সোমবার থেকে শুরু হয় বিক্ষোভ। বিক্ষোভের লক্ষ্য অবশ্যই ইমরান খানের সরকার। দেশজুড়ে পথ অবরোধ করে তারা। ২০১৮ সালের নির্বাচনে এই টিএলপি দল প্রায় ২৫ লক্ষ ভোট আদায় করে।

Back To Top