শুক্রবার ১২ এপ্রিল ২০২৪

সম্পূর্ণ খবর

India-England: ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে ব্যাটিং বিপর্যয়, ২৩০ রানের টার্গেট সেট করল ভারত

Sampurna Chakraborty | ২৯ অক্টোবর ২০২৩ ১২ : ৩৩


আজকাল ওয়েবডেস্ক: প্রথম পাঁচ ম্যাচে দাপুটে জয়ের পর ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে ব্যাটিং বিপর্যয় ভারতের। দশ দলের বিশ্বকাপে টেবিলের লাস্টবয়দের কাছে ল্যাজেগোবরে হল টিম ইন্ডিয়া। একমাত্র রোহিত শর্মা (৮৭) এবং সূর্যকুমার যাদব ছাড়া টপ এবং মিডল অর্ডার ডাহা ফ্লপ। দু'অক্ষরের রানে পৌঁছতে পারেননি শুভমন গিল (৯), বিরাট কোহলি (০), শ্রেয়স আইয়ার (৪)। ৪০ রানে ৩ উইকেট হারায় ভারত। একদিনের ক্রিকেটে ৪৯তম শতরান করে শচীন তেন্ডুলকারকে ছোঁয়ার হাতছানি ছিল কোহলির সামনে। কিন্তু শূন্য রানে ফেরেন। লখনউয়ের মন্থর উইকেটে বাজে শট খেলে আউট হন বিরাট এবং শ্রেয়স।‌

দ্রুত ৩ উইকেট হারানোর পর রোহিত এবং রাহুলের জুটিতে ম্যাচে ফেরে ভারত। চতুর্থ উইকেটে ৯১ রান যোগ করেন তাঁরা। কিন্তু ৩৯ রান করে অহেতুক বড় শট মারতে গিয়ে আউট হন রাহুল। একই ভুল রোহিতেরও। তবে কৃতিত্ব দিতেই হবে আদিল রশিদকে। তাঁর দারুণ বোলিংয়ে ম্যাচে ফেরে ইংল্যান্ড। দুই সেট ব্যাটার আউট হতেই সমস্যায় পড়ে ভারত। মিডল এবং লোয়ার ওভারে একমাত্র সূর্যকুমার ছাড়া বাকিরা রান পায়নি। মাত্র এক রানের জন্য অর্ধশতরান হাতছাড়া করেন। তবে এদিনের ইনিংসে বুঝিয়ে দিলেন বিশ্বকাপের বাকি ম্যাচে কেন প্রথম একাদশের বাইরে রাখা যাবে না তাঁকে।৪৭তম ওভারে দুশো রানের গণ্ডি পার করে ভারত। ৫০ ওভারের শেষে ৯ উইকেট হারিয়ে ভারতের রান ২২৯। তবে এই উইকেটে রান তাড়া করে জেতা সহজ হবে না ইংল্যান্ডের জন্য। 

একশোয় একশো! অধিনায়ক হিসেবে সেঞ্চুরির ম্যাচে শতরানের সুযোগ হাতছাড়া করেন রোহিত শর্মা। ১০১ বলে ৮৭ রানে আউট হন। ইনিংসে ছিল ৩টি ছয়, ১০টি চার। লখনউয়ের মন্থর পিচে দারুণ ব্যাট করেন ভারতের নেতা। অধিনায়কোচিত ইনিংস হিটম্যানের। সাধারণত বড় শট খেলতে পছন্দ করেন। কিন্তু দ্রুত তিন উইকেট হারানোয় এদিন নিজের খেলার ধরন পাল্টে দেন রোহিত। ইনিংস অ্যাঙ্কার করেন। এদিন আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ১৮ হাজার রান সম্পূর্ণ করেন ভারতের নেতা। শচীন তেন্ডুলকার, বিরাট কোহলি, রাহুল দ্রাবিড়, সৌরভ গাঙ্গুলির পর পঞ্চম ভারতীয় ব্যাটার হিসেবে নজির গড়েন। চলতি বিশ্বকাপে দুর্ধর্ষ ফর্মে রোহিত। তবে যেভাবে খেলছিলেন শতরান করা উচিত ছিল। কিন্তু ৩৭তম ওভারে নিজের উইকেট ছুড়ে দেন রোহিত। আদিল রশিদের বলে বাউন্ডারিতে লিয়াম লিভিংস্টোনের হাতে ধরা পড়েন। এটাই ম্যাচের টার্নিং পয়েন্ট।‌ যেভাবে এগোচ্ছিলেন ম্যাচের এই পর্যায় বড় শট খেলার প্রয়োজন ছিল না। ৪০-৪২ ওভার পর্যন্ত উইকেটে টিকে থাকা উচিত ছিল রোহিতের। কিন্তু একটি ভুলের খেসারত দিতে হল দলকে। তিন উইকেট নেন উইলি। জোড়া উইকেট রশিদ এবং ওকসের। 



বিশেষ খবর

নানান খবর

রজ্যের ভোট

নানান খবর

সোশ্যাল মিডিয়া