প্রতি বছরের মতো এ বছরেও বিশ্ব ঐতিহ্য দিবস উপলক্ষে ‘‌হেলো হেরিটেজ’ এক পদযাত্রার আয়োজন করে ১৮ এপ্রিল। এই সংগঠন বহুদিন ধরেই ঐতিহ্যের সংরক্ষণ নিয়ে নাগরিক সমাজকে সচেতন করতে প্রয়াসী। বিভিন্ন সংগ্রহশালার পুনরুজ্জীবনের কথা উল্লেখ করছে। এ বছর তারা মঙ্গলযাত্রা শুরু করে কলকাতার জিপিও থেকে বেঙ্গল চেম্বার অফ কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি বিল্ডিং থেকে। পুরো যাত্রাপথটিই শতাব্দীপ্রাচীন স্থাপত্যকে ছুঁয়ে ছুঁয়ে চলা। যেখান থেকে শুরু, সেই জিপিও স্থাপিত হয় ১৮৬৮ সালে। এ বছর তার ১৫০ বছর। সিরাজদ্দৌলার সেই কুখ্যাত অন্ধকূপহত্যার সেই কারাগার থেকে ফিনিক্স পাখির মতো জন্ম নিয়েছে এই জিপিও। কলকাতার প্রধান ডাকঘর। গোটা ডালহৌসি চত্বরই ইতিহাসকে বুকে ধরে আছে। গোলদীঘি, রাইটার্স বিল্ডিং, ফাঁসি লেন, রিজার্ভ ব্যাঙ্ক, কারেন্সি হাউস, পি অ্যান্ড টি বিল্ডিং, কোল হাউস ইত্যাদি। এই যাত্রাপথের উদ্বোধন করেন মেয়র পারিষদ দেবাশিস কুমার। অংশ নেয় হরিয়ানা বিদ্যাপীঠ, জর্জ টেলিগ্রাফ–‌সহ একাধিক সংস্থা, সঙ্গীতশিল্পী, চিত্রশিল্পী প্রমুখ বহু বিশিষ্ট মানুষ। ঋত্বিকা ব্যানার্জির ভ্রমণবিষয়ক বই ‘‌বেঙ্গল অন হুইলস’‌ প্রকাশ করেন কিউরেটর রেশমি চ্যাটার্জি ও হ্যান্ডশ্যাডোগ্রাফার অমর সেন।‌

জনপ্রিয়

Back To Top