আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ একমঞ্চে শোভন–বৈশাখী। টিভিতে দেখছেন রত্না। বিজেপি’‌র সদর দপ্তরে গিয়ে গেরুয়া শিবিরে যোগ দিলেন এই চর্চিত যুগল। আর এই যোগের পর প্রাক্তন স্ত্রী রত্না চ্যাটার্জির প্রতিক্রিয়া, ‘‌নিজের স্ত্রী এবং সন্তানদের ছেড়ে যে অন্য মহিলার কাছে চলে যায়, তাঁর মুখে নীতি–নৈতিকতার কথা মানায় না। যে আমার সংসার ভাঙিয়েছে সে অনৈতিক জীবনযাপন করেছে। তাঁর জীবনে অনৈতিকতা ঘটেছিল বলেই অনৈতিক দলে গিয়েছেন। বিজেপি একটি অনৈতিক দল। তারা কখনও শোভনকে বলবে না ফিরে যেতে। ওই দলে এরকম হয়ে থাকে। শোভন–সহ বৈশাখীর যোগ নিয়ে জল্পনা ছিলই। সেটা সত্য প্রমাণিত হল।’‌
যদিও বিজেপি’‌র সদর দপ্তরে বসে শোভনকে বলতে শোনা যায় বৈশাখী একজন বিশিষ্ট নেত্রী। এই বিষয়ে রত্নার দাবি, ‘‌আমি কোনওদিন তৃণমূলের কোনও মিটিং–মিছিলে বৈশাখী ব্যানার্জিকে দেখিনি। ওয়েবকুপার একটা পদে থাকলেই যদি নেত্রী হয়ে যায়, তাহলে তৃণমূলে এরকম অনেক নেত্রী ছড়িয়ে ছিটিয়ে আছে।’‌ মুকুল রায় যদিও দাবি করেছেন বৈশাখীর যোগদান বিজেপিকে শক্তি জোগাবে। পাল্টা রত্নার প্রতিক্রিয়া, ‘‌সেটা সময়ই বলবে।’‌
কিন্তু শোভন চ্যাটার্জির বিজেপিতে যোগদানের কারণ কী?‌ এই প্রশ্নের জবাবে রত্নাদেবী বলেন, ‘‌মমতাদির দলে থেকে অনৈতিক কার্যকলাপ করা যাচ্ছিল না। তাই এই দলবদল। তাছাড়া বারবার মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি কাননকে বলে আসছিলেন এইসব কাজ করিস না। এটা ঠিক নয়। বিজেপিতে এইসব কেউ বলবে না। তাই সেখানে যাওয়াই শ্রেয় মনে করেছেন তিনি।’‌ ‌‌

জনপ্রিয়

Back To Top