আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ দলীয় দায়িত্ব নিয়ে লখনউতে পৌঁছলেন প্রিয়াঙ্কা গান্ধী। লখনউ পৌঁছে গিয়ে রোড শো শুরু করলেন তিনি। তাঁর সঙ্গে আছেন কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী। গোটা রাস্তাটাই ঢাকা পড়েছে তাঁর পোস্টারে।   রোড শো শুরু হতেই কর্মীদের উদ্দেশ্যে হাত নাড়তে শুরু করেন প্রিয়াঙ্কা। আর তাতেই টলে যায় গোটা উত্তরপ্রদেশ। তিনি দলের পূর্ব উত্তরপ্রদেশের সাধারণ সম্পাদক হিসাবে দায়িত্ব নিয়েছেন। সোমবার সেই দায়িত্বের জন্য তিনিই যে উপযুক্ত রোড শো করে বুঝিয়ে দিলেন। 
তাঁর সঙ্গেই নতুন দায়িত্ব পেয়েছেন মধ্যপ্রদেশের কংগ্রেস নেতা জ্যোতিরাদিত্য সিন্ধিয়া। তিনি পশ্চিম উত্তরপ্রদেশে কংগ্রেসকে শক্ত ভিতের উপর দাঁড় করানোর কাজ করবেন। ইতিমধ্যে দায়িত্ব বুঝে নিয়েছেন জ্যোতিরাদিত্য। এদিন  তিনিও এসেছেন। খাতায় কলমে রাজনৈতিক জীবন শুরুর আগে পরিবর্তনের বার্তা দিয়েছেন প্রিয়াঙ্কা। শক্তি অ্যাপের মাধ্যমে সমর্থকদের প্রিয়াঙ্কা বলেন, ‘‌আমি চাই আমাদের সবার অংশগ্রহণের মাধ্যমে রাজনীতিতে একটা পরিবর্তন আসুক। রাজনীতির পরিসর এমন হোক যেখানে সকলে নিজেকে তার অংশ ভাবতে পারে।’‌ আর এই পরিণত বার্তাই এখন ভাবিয়ে তুলেছে বিজেপিকে বলে মনে করছেন রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকরা। 
এই তিন নেতা লখনউ বিমানবন্দরে এসে নামেন। সেখান থেকে তাঁদের স্বাগত জানিয়ে শোভাযাত্রার মধ্য দিয়ে লখনউ শহরের কংগ্রেসের কার্যালয়ে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে। জানা গিয়েছে, আগামী তিন চারদিন উত্তরপ্রদেশেই থাকবেন প্রিয়াঙ্কা। বিভিন্ন এলাকার নেতাদের সঙ্গে কথা বলে সংগঠনের হাল–হকিকত বুঝে নেবেন তিনি। দেশের সবচেয়ে বড় রাজ্য উত্তরপ্রদেশে ৮০টি লোকসভা কেন্দ্র রয়েছে। তার মধ্যে প্রায় ৪০টি কেন্দ্র নিয়ে বৈঠক করবেন বলে খবর। তবে এই সফরে পূর্ব উত্তরপ্রদেশের কয়েকটি জায়গাতেও যেতে পারেন নয়া সাধারণ সম্পাদক।‌‌

জনপ্রিয়

Back To Top