আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ ৪৬তম মার্কিন প্রেসিডেন্ট হিসেবে শপথ নিলেন জো বাইডেন। ইতিহাস রচনা করে দেশের প্রথম মহিলা ভাইস প্রেসিডেন্ট হিসেবে শপথ নিলেন ভারতীয় বংশোদ্ভূত কমলা হ্যারিস। 
শপথ নিয়ে কমলা হ্যারিস, চাক সুমার–সহ অন্যান্য প্রশাসনিক নেতাদের অভিনন্দন জানিয়ে ভাষণ শুরু করলেন বাইডেন। বলেন, ‘‌সম্পূর্ণ আত্মিক ভাবে কাজ করব। আমরা আমেরিকার নতুন ইতিহাস রচনা করব। সবাই আমার সঙ্গে আসুন। প্রতিশ্রুতি দিচ্ছি, সব সময় আপনাদের পাশে থাকব। চাকরির সমস্যা, অসুস্থতা সব সমাস্যার সমাধান খুঁজব আমরা। মারণ ভাইরাসকেও রুখব। আমরা আবার আমেরিকাকে মহান তৈরি করব। আমরা একসঙ্গে অনেক ভাল কাজ করতে পারি। এখনও অনেক কিছু তৈরি করা বাকি। সন্ত্রাসবাদকে পরাজিত করতে হবে। অনেক ক্ষত মেরামত করতে হবে। অনেক দূরে এগিয়ে যেতে হবে। এটা গণতন্ত্রের দিন। আমি সব আমেরিকানদের প্রেসিডেন্ট হব। যাঁরা সমর্থন করেন তাঁদেরও। যাঁরা করেন না, তাঁদেরও। আমরা অনেক দূর এগিয়ে এসেছি। আরও এগোতে চাই। পূর্বসূরিদের ধন্যবাদ জানাতে চাই। আমি প্রতিজ্ঞা করছি, আমরা একত্রে সব বাধা পেরিয়ে যাব। থ্যাঙ্ক ইউ আমেরিকা!‌’‌ ভাষণ শেষে ফার্স্ট লেডি জিল বাইডেনের উদ্দেশে জো বলেন, ‘‌আমার এই সফরে তোমার সঙ্গ পাওয়া সত্যিই ভাগ্যের।’‌ শপথের আগেই টুইটে বাইডেন লিখেছিলেন, ‘‌আজ আমেরিকার নতুন দিন।’‌
শপথ গ্রহণের আগেই বাইডেনকে শুভেচ্ছা জানিয়ে টুইট করেছিলেন বারাক ওবামা। লিখেছিলেন, ‘‌শুভেচ্ছা বন্ধু এ বার তোমার পালা।’ ওবামা আমলে ভাইস প্রেসিডেন্ট ছিলেন জো। রীতি ভেঙে বাইডেনের শপথ অনুষ্ঠানে থাকেননি ট্রাম্প। তবে যাওয়ার আগে একটি চিঠি রেখে গিয়েছেন তিনি। বলেছেন, ‘‌আমি তোমার সঙ্গে যুদ্ধ চালিয়ে যাব। আমি দেখব, শুনব। আমি প্রশাসনের সাফল্য কামনা করি।’‌ বাইডেনকে শুভেচ্ছা বার্তা দিয়ে টুইটারে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি লিখেছেন, ‘‌মার্কিন প্রেসিডেন্ট পদে দায়িত্বভার গ্রহণ করার জন্য জো বাইডেনকে উষ্ণ অভিনন্দন জানাই। ভারত–মার্কিন কৌশলগত বোঝাপড়ার উন্নতির বিষয়ে তাঁর সঙ্গে কাজ করার দিকে তাকিয়ে আছি। মার্কিন প্রেসিডেন্ট হিসেবে জো বাইডেনের সাফল্য কামনা করছি। আন্তর্জাতিক শান্তি, নিরাপত্তা এবং নানা সমস্যার মোকাবিলায় আমরা একসঙ্গে কাজ করতে তৈরি। প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের সঙ্গে কাজ করতে আমি দায়বদ্ধ। ভারত–মার্কিন সম্পর্ককে এবার অন্য উচ্চতায় নিয়ে যাওয়া সম্ভব হবে।’‌
বাইডেনের অভিষেক অনুষ্ঠানে কোনও খামতি রাখেনি মার্কিন প্রশাসন। ক্যাপিটল কাণ্ড থেকে শিক্ষা নিয়ে এদিন ঢেলে সাজানো হয়েছে নিরাপত্তা। মোতায়েন করা হয়েছে ন্যাশনাল গার্ডের প্রায় ১৫ হাজার সেনাকে। নিশ্চিদ্র নিরাপত্তা সত্ত্বেও মার্কিন সুপ্রিম কোর্টে বিস্ফোরণে হুমকি দেওয়া হয়েছে। সুপ্রিম কোর্টের মুখপাত্র ক্যাথলিন আর্বার্গ জানিয়েছেন, বিস্ফোরণের হুমকি এসেছে। তবে সম্পূর্ণ ভবন ঘুরেও কোনও বোমা পাওয়া যায়নি। ক্যাপিটল ভবনের পাশেই সুপ্রিম কোর্ট। 
ঐতিহাসিক অনুষ্ঠানের সঞ্চালনা করেছেন টম হ্যাঙ্কস। হাজির ছিলেন জন লেজেন্ড, অ্যান্ট ক্লেমনস, জন বন জভি, এভা লঙ্গোরিয়া, ডেমি লোভাতো, ব্রুস স্প্রিংস্টিন, জাস্টিন টিম্বারলেক ও কেরি ওয়াশিংটন। অনুষ্ঠানে হাজির হয়েছেন বারাক ওবামা এবং তাঁর স্ত্রী মিশেল ওবামা। এসেছিলেন বিল এবং হিলারি ক্লিন্টনও। হিলারি বলেন, ভাবতে ভাল লাগছে যে আমেরিকার ইতিহাসে আজ এক জন মহিলা ভাইস প্রেসিডেন্টের পদে শপথ নিতে চলেছেন। 

জনপ্রিয়

Back To Top