আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ বাইক বাহিনীর হাতে খুন হতে হল উত্তরপ্রদেশের এক বিজেপি নেতা দয়াশঙ্কর গুপ্তাকে। এই ঘটনায় উত্তেজনা ছড়িয়েছে এলাকায়। 
ঘটনাটি ঘটেছে উত্তরপ্রদেশের ফিরোজাবাদ জেলায়। শুক্রবার রাতে দয়াশঙ্কর গুপ্তা নামের এক বিজেপি নেতাকে গুলি করে খুন করে দুষ্কৃতীরা। একটি বাইকে করে ওই তিন দুষ্কৃতী এসেছিল বলে জানা গিয়েছে।
পুলিশ সূত্রে খবর, দয়াশঙ্কর গুপ্তা বিজেপির স্থানীয় মণ্ডল সভাপতি। শুক্রবার রাতে নিজের দোকান বন্ধ করে বাড়ি ফেরার পথে বাজারের মধ্যেই গুলি করা হয় তাঁকে। বেশ কয়েকটি গুলি লাগে তাঁর গায়ে। গুলি চালানোর পরে বাইকে করেই পালিয়ে যায় দুষ্কৃতীরা। সঙ্গে সঙ্গে স্থানীয় বাসিন্দারা ওই নেতাকে নিয়ে হাসপাতালে যান। সেখানে তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করা হয়।
এই ঘটনার পরেই বিক্ষোভ দেখানো শুরু করে বিজেপি। যে হাসপাতালে ওই নেতাকে নিয়ে যাওয়া হয় সেখানে আসেন তাঁর পরিবারের সদস্যরা। জড়ো হন বিজেপি কর্মী–সমর্থকরা। দোষীদের দ্রুত গ্রেপ্তার ও শাস্তির দাবি তুলতে থাকেন তাঁরা। কিছু কর্মী তো আগ্রায় পথ অবরোধও করেন। পরিস্থিতি সামলাতে নামতে হয় পুলিশকে। মৃত বিজেপি নেতার পরিবারের দাবি, রাজনৈতিক শত্রুতার জেরেই খুন হতে হয়েছে তাঁকে।
খুনের অভিযোগে ইতিমধ্যেই দলীয় সহকর্মী বীরেশ তোমর ও তার দুই কাকা নরেন্দ্র ও দেবেন্দ্র তোমরকে পুলিশ হেফাজতে নেওয়া হয়েছে। স্থানীয়রা জানিয়েছেন, কিছুদিন আগেই বিজেপিতে যোগ দিয়েছিল বীরেশ। 
এদিকে ময়নাতদন্তের পরে গতকাল রাতেই হাসপাতাল থেকে ওই নেতার দেহ বাড়ি নিয়ে যান তাঁর পরিজনরা। আজ তাঁর শেষকৃত্য সম্পন্ন হবে। 

জনপ্রিয়

Back To Top