আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ শনিবার সকাল ১০.‌৩০ মিনিট নাগাদ সুপ্রিম কোর্টের পাঁচ বিচারপতির বেঞ্চ অযোধ্যা মামলার রায় দেবে। কোনওরকম গন্ডগোল এড়াতে তৎপর প্রশাসন। অযোধ্যার জেলাশাসক অনুঝ ঝা দেশবাসীকে আশ্বস্ত করে বলেছেন, অযোধ্যার অবস্থা অত্যন্ত স্বাভাবিক। উদ্বেগের কোনও কারণ নেই। তবে মুখে জেলা প্রশাসন যাই বলুক না কেন, কোনওরকম অপ্রীতিকর পরিস্থিতি এড়াতে শুক্রবার রাতের মধ্যেই অযোধ্যা এবং সংলগ্ন এলাকা থেকে সব তীর্থযাত্রীদের ফেরত পাঠিয়েছে প্রশাসন। শুধু অযোধ্যাতেই বহুস্তরীয় নিরাপত্তা বলয়। সারা রাজ্যজুড়ে ১২০০০ নিরাপত্তাকর্মী মোতায়েন করা হয়েছে। পাঁচ বিচারপতিই নিরাপত্তা আরও বাড়ানো হয়েছে। বন্ধ রাজ্যের সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান।
উত্তর প্রদেশের অযোধ্যার রায়ের জন্য শুধু ওই রাজ্যেই নয়, দেশের বিভিন্ন প্রান্তে নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে। জম্মুর ১০টি জেলা এবং মধ্য প্রদেশের ভোপালে জারি ১৪৪ ধারা। হায়দরাবাদের পুলিস কমিশনার অঞ্জনী কুমার জানিয়েছেন শহরের সংবেদনশীল অঞ্চলগুলিতে বিশেষ নিরাপত্তা বাহিনী মোতায়েন করা হয়েছে। জম্মুর সব সরকারি, বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ। উত্তরাখণ্ডের ১৩টি জেলাতে কড়া নিরাপত্তা। সংবেদনশীল অঞ্চলগুলিতে অতিরিক্ত বিশেষ বাহিনী। মুম্বই পুলিসও তাদের নিরাপত্তা বলয় আঁটোসাঁটো করেছে বলে জানিয়ে বলেছে বিশেষ উত্তেজনাপ্রবণ এলাকাগুলিতে চলছে নজরদারি। বেঙ্গালুরুর সব মদের দোকান এই মামলার রায়ের জেরে শনিবার বন্ধ থাকবে বলে জানিয়ে দিয়েছে কর্নাটক সরকার। বৃহস্পতিবারই পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি জনতার কাছে আর্জি জানিয়েছিলেন, রায় যে পক্ষেই যাক, মানুষ যেন শান্তিশৃঙ্খলা বজায় রাখে। শুক্রবার উত্তর প্রদেশের ডিজি মানুষকে সোশ্যাল মিডিয়ায় মামলা সংক্রান্ত কোনও কিছু পোস্টিং–এর সময় মাথা খাটাতে আবেদন করেছেন। এদিন সারা দেশের সোশ্যাল মিডিয়ার সব পোস্টেই নজরদারি চালানো হবে বলে প্রশাসন সূত্রে খবর। মানুষকে গুজবে কান না দিতে আবেদন করেছেন উত্তর প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ। কেরলের মুখ্যমন্ত্রী সাফ জানিয়ে দিয়েছেন তাঁর রাজ্যে কোনওরকম বিদ্বেষপূর্ণ আচরণ সহ্য করা হবে না।          

জনপ্রিয়

Back To Top