আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ এক হাজার কোটি টাকা দেবে কেন্দ্রীয় সরকার। বিধ্বস্ত বাংলাকে আর্থিক সাহায্যের কথা ঘোষণা করলেন মোদি।  
মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জির ডাকে সাড়া দিয়ে বেলা ১১টা নাগাদ বাংলায় এলেন প্রধানমন্ত্রী। আমফানের বিপর্যয় পরিস্থিতি দেখতে আকাশপথে বসিরহাটে এসে বৈঠক করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ও মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জী। ছিলেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনখর, মুখ্যসচিব রাজীব সিনহা প্রমুখ। ‌হেলিকপ্টারে করে আমফান বিধ্বস্ত বাংলা পরিদর্শন করলেন তিনি। বসিরহাট কলেজের পেছনে তৈরি হয়েছিল হেলিপ্যাড। সেখানেই বায়ু সেনার চপারে করে বেলা বারোটা দশ নাগাদ প্রধানমন্ত্রী, মুখ্যমন্ত্রী ও রাজ্যপাল নামেন। বসিরহাট কলেজের ঘরে তাঁরা বৈঠক করেন। সামাজিক দূরত্ব মেনেই সমস্ত কর্মসূচী সম্পন্ন হয়। সংবাদ মাধ্যমের সেখানে প্রবেশের অনুমতি ছিল না। সেই বৈঠক শেষ হলে সাংবাদিক বৈঠক শুরু হয়।
সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে জানালেন, এই কঠিন সময়ে তিনি বাংলার পাশে আছেন। বাংলাকে আবার স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরিয়ে আনার চেষ্টায় তিনিও কাঁধে কাঁধ মেলাবেন। এছাড়া তিনি ঘোষণা করলেন মৃতদের পরিবারকে প্রধানমন্ত্রী তহবিল থেকে দু’‌লক্ষ টাকা করে দান করবেন। একইসঙ্গে আহতদের পরিবারকে ৫০ হাজার টাকা দেবেন। এদিন ওডিশার মুখ্যমন্ত্রী নবীন পট্টনায়েকও মুমতা ব্যানার্জিকে ফোন করে সবরকম সাহায্যের প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন।

 

গত বুধবার বিকেলে বাংলার বুকে আছড়ে পড়ে আমফান সাইক্লোন। টানা চার ঘণ্টার ওই ভয়াবহ দাপটে ক্ষতির মুখে পড়ে বাংলা। কেবল আর্থিক ক্ষতিই নয়। এখনও পর্যন্ত যা খবর, ৮০ জনের মৃত্যু হয়েছে এই ঝড়ে।   

 

জনপ্রিয়

Back To Top