আজকাল ওয়েবডেস্ক: ভোটের ফলাফল প্রকাশ হতেই রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তে শুরু হয়েছে রাজনৈতিক হিংসা। রাজ্যের সর্বত্র তৃণমূল বিপুল ভোটে জিতলেও ময়নাগুড়ি আসনে জয় পেয়েছে বিজেপি। আর তারপর থেকেই ময়নাগুড়ির বিভিন্ন এলাকায় শুরু হয়েছে যুযুধান দু’পক্ষের মধ্যে মারামারি। গতকাল রাতে ময়নাগুড়ির ব্রহ্মপুর এলাকায় অশান্তি হয়েছিল তৃণমূল এবং বিজেপির মধ্যে। আর আজ ময়নাগুড়ির রানিরহাট মোড় সংলগ্ন চুরান্ডার এলাকা উত্তপ্ত হয়ে উঠল তৃণমূল–বিজেপি সংঘর্ষে। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে বিজেপি কর্মীদের অভিযোগ, ময়নাগুড়ি আসনে তৃণমূল হারার পর থেকেই তাঁদের উপর হামলা চালাচ্ছে তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীরা। তাঁদের বাড়িতে ভাঙচুর চালায়। মোটর সাইকেলে লাগিয়ে দেওয়া হয় আগুন। এই ঘটনায় এলাকায় রয়েছে যথেষ্ট উত্তেজনা। সংঘর্ষের মধ্যে পড়ে আহত হন বেশ কয়েকজন বিজেপি কর্মী। আহত বিজেপি কর্মীদের নিয়ে যাওয়া হয় ময়নাগুড়ির স্থানীয় স্বাস্থ্যকেন্দ্রে। কয়েকজনের অবস্থা বেশ গুরুতর। খবর পেয়েই ঘটনাস্থলে হাজির হয় ময়নাগুড়ির থানার বিশাল পুলিশ বাহিনী। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে এলাকায় টহল দিচ্ছে র‍্যাফ। ভোট পরবর্তী হিংসার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে আসে কেন্দ্রীয় বাহিনীর জওয়ানরাও। ভোটগ্রহণের দিন থেকেই রাজনৈতিক সংঘর্ষে উত্তেজনা ছিলই এলাকায়। ফল প্রকাশের পর থেকে ময়নাগুড়ির বিভিন্ন এলাকায় দফায় দফায় শুরু হয়ে যাচ্ছে অশান্তি। অশান্তি ঠেকাতে ময়নাগুড়ির বিভিন্ন ব্লকে মোতায়েন করা হয়েছে পুলিশ। নিরাপত্তা ব্যবস্থা তদারকির দায়িত্বে রয়েছেন পুলিশের উচ্চপদস্থ আধিকারিকরা।

Back To Top