আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ রাজ্যে এখনও বাকি আরও ৪ দফার ভোট। আর তার মধ্যেই শীতলকুচি কাণ্ড নিয়ে রাজনৈতিক তরজা ক্রমশ বেড়েই চলেছে। ‌সেদিন শীতলকুচিতে আধা সেনাদের উপর হামলা হয়েছিল বলে অভিযোগ করছিল কমিশন। আত্মরক্ষার জন্যই বাধ্য হয়ে গুলি চালিয়েছিল কেন্দ্রীয় বাহিনী। তা নিয়ে কিছু প্রশ্ন উঠছে অসমর্থিত এক ভাইরাল ভিডিয়োয়। আর সেই ভিডিওটি ভুয়ো বলে দাবি করছে কমিশন। রাজ্যে নির্বাচন কমিশনের দায়িত্বপ্রাপ্ত বিশেষ পুলিশ পর্যবেক্ষক বিবেক দুবে জানান, ‘‌শীতলকুচিতে সেদিন যদি কেন্দ্রীয় বাহিনী না থাকত, সেক্ষেত্রে বুথ দখল হয়ে যেত। আর যে ভিডিওটিতে দেখা যে কেন্দ্রীয় বাহিনীর উপর কোনওরকম আক্রমণের ঘটনা ঘটেনি। সেই ভিডিওটি পুরোপুরি ভুয়ো। ওই ভিডিওতে যেটা দেখাচ্ছে তার সঙটগে সেদিনের ঘটনার কোনও যোগ নেই।’‌ বিবেক দুবের আরও সংযোজন, কেন্দ্রীয় বাহিনী ছাড়া রাজ্যের কোথাও ভোট হোক সেটা নির্বাচন কমিশন চায় না। রাজ্যের সর্বত্র যদি কেন্দ্রীয় বাহিনীকে না দিয়ে রাজ্য পুলিশ দিয়ে ভোট করানো হয় সেক্ষেত্রে বুথ দখলের ঘটনা ঘটবে। নির্বাচন কমিশন তা কোনওভাবেই মেনে নেবে না। এর পাশাপাশি শেষ ৩ দফার ভোট একসঙ্গে করার ক্ষেত্রেও রয়েছে সমস্যা। শেষ ৩ দফার ভোট একসঙ্গে করতে গেলে মোট ১৪০০ কোম্পানি অতিরিক্ত কেন্দ্রীয় বাহিনী প্রয়োজন। যা এত অল্প সময়ের মধ্যে জোগাড় করা সম্ভব নয় বলেই জানালেন বিবেক দুবে।

Back To Top