চন্দ্রনাথ বন্দ্যোপাধ্যায়,বোলপুর: হাজার হাজার পর্যটক ও শান্তিনিকেতনে থাকা বয়স্ক মানুষদের কথা মাথায় রেখে বীরভূম জেলা পুলিস প্রশাসন একটি মোবাইল অ্যাপ ও দুটি হেল্পলাইন নম্বর চালু করল। রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি এই মোবাইল অ্যাপ্লিকেশনের নাম রেখেছেন ‘রাঙামাটি হেল্পলাইন’। গুগুল প্লে স্টোর থেকে পাওয়া যাবে, পাশাপাশি ‘আশ্বাস’ নামের হেল্পলাইনের জন্য দুটি মোবাইল নম্বর রাখা হয়েছে:‌ ৭৭১৮৫৭৩১৩৮ ও ৭৪২৭৯৭৫৫২৪। 
শুক্রবার সন্ধেয় শান্তিনিকেতনের লিপিকা প্রেক্ষাগৃহে এই দুটি প্রকল্পের সূচনা হল। উদ্বোধন করলেন রাজ্য গ্রামীণ উন্নয়ন পর্ষদের সভাপতি অনুব্রত মণ্ডল। জেলা পুলিস সুপার সুধীর কুমার নীলকান্তম জানান, ‌‘‌প্রতিদিন হাজার হাজার পর্যটক আমাদের জেলাতে, বিশেষ করে শান্তিনিকেতনে আসেন। কখনও সেই সংখ্যা লাখে পৌঁছে যায়। কিন্তু তাঁদের কাছে শান্তিনিকেতন ও তার আশপাশের জায়গা নিয়ে পরিষ্কার কোনও তথ্য থাকে না। রাঙামাটি হেল্পলাইন সেই অভাবটা মেটানোর চেষ্টা করবে। এর সঙ্গে আমরা ওই অ্যাপ্লিকেশনে একটি ইমারজেন্সি বোতাম দিয়েছি, সেখানে চাপ দিলেই করলেই আমাদের কন্ট্রোল রুমে মেসেজ পৌঁছে যাবে, এবং আপনার লোকেশন দেখে পুলিস তাড়াতাড়ি পৌঁছে যাবে আপনার কাছে।’‌ তিনি আরও বলেন, ‘আমরা দেখেছি শান্তিনিকেতনে বহু বয়স্ক মানুষ বসবাস করেন। তাঁদের সন্তান বা আত্মীয়রা কাজের সূত্রে বহু দূরে থাকেন। সমস্যায় পড়লে তাঁদের পাশে প্রয়োজনের সময় দাঁড়ানোর কেউ থাকে না। তাই আমরা এই ‘আশ্বাস’ হেল্পলাইনের মাধ্যমে তাঁদের পাশে দাঁড়ানোর, তাঁদের সঙ্গে সব সময় থাকার অঙ্গীকার নিয়েছি। শুধু দরকারের সময় নয়, বছরের বিভিন্ন সময়ে নানা ছোট ছোট অনুষ্ঠানের মাধ্যমে তাঁদের এক জায়গায় এনে কিছুটা হলেও একাকিত্ব দূর করার পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে।’‌ এই মোবাইল অ্যাপ্লিকেশন ও হেল্পলাইন নম্বর চালু হওয়াতে খুশি সকলেই। জেলা পুলিসের এই উদ্যোগের ভূয়সী প্রশংসা করেন রাজ্য গ্রামীণ উন্নয়ন পর্ষদের সভাপতি অনুব্রত মণ্ডল। ‌

শান্তিনিকেতন।

জনপ্রিয়

Back To Top