আজকালের প্রতিবেদন: দলের ভাবমূর্তি আরও উজ্জ্বল করতে ছাত্রদের নতুন বার্তা দেওয়া হচ্ছে। শনিবার তৃণমূল ভবনে ছাত্র পরিষদের সংগঠন নিয়ে আলোচনা করেন দলের মহাসচিব পার্থ চ্যাটার্জি। ছাত্র পরিষদের সভানেত্রী জয়া দত্তকে আগেই সরিয়ে দেওয়া হয়েছে। ৫ জনের নতুন উপদেষ্টামণ্ডলী কমিটি তৈরি হল। কমিটিতে চেয়ারম্যান পার্থ চ্যাটার্জি, কো–‌চেয়ারম্যান অভিষেক ব্যানার্জি। অন্য 
সদস্যরা হলেন অশোক দেব, তাপস রায় ও বৈশ্বানর চ্যাটার্জি। জয়া দত্তকে কমিটির আহ্বায়ক করা হয়েছে। 
পার্থ সাংবাদিকদের বলেন, ‘‌রাজ্য কমিটি ও সব জেলা কমিটি ভেঙে দেওয়া হয়েছে। কিছুদিনের মধ্যেই কমিটি পুনর্গঠন করা হবে। সকলকে বসিয়ে দেওয়া যাবে না। পুরনোদের অভিজ্ঞতাকেও কাজে লাগাতে হবে। কয়েকজন জেলা সভাপতি ইস্তফা দিতে চেয়েছিলেন। সেই সময় গ্রহণ করা হয়নি। আজ সব ভেঙে দেওয়া হল। অ–‌ছাত্ররা কলেজে ঢুকতে পারবে না।’‌ পার্থ এদিন জানিয়ে দিয়েছেন, ‘‌নতুন প্রজন্মকে আনতে হবে। বিশেষ করে ছাত্রীদের রাজনীতিতে আনতে হবে।’‌
 বৈঠকে আলোচনা হয়েছে, কলেজে উপস্থিতির হার ৬৫ শতাংশ থাকতে হবে। তা না হলে ১০ শতাংশ কাটা যাবে। শিক্ষকদের সঙ্গে আচরণ ভাল করতে হবে। এদিন বৈঠকে ছিলেন সুব্রত মুখার্জি। পার্থ বলেন, ‘‌সুব্রতদার উপস্থিতি আমাদের অনুপ্রাণিত করেছে। পুরনো দিনের কথা তিনি বলেছেন। ছাত্র–‌ছাত্রীদের কী কী করতে হবে, সেই উপদেশও দিয়েছেন‌‌‌।‌‌‌’‌ 
সুব্রত বলেছেন, ‘‌টাকা দিয়ে নয়, ফুল দিয়ে নতুনদের অভ্যর্থনা জানাবেন।’‌ ঠিক হয়েছে জেলা থেকে ৫ জনের নাম বৈশ্বানরের হাতে জমা দিতে হবে। আগামী রাজ্য সম্মেলনে নতুন সভাপতির নাম ঘোষণা হতে পারে। এদিন পার্থ বলেন, ‘‌২৮ আগস্ট ছাত্র পরিষদের প্রতিষ্ঠা দিবসে মমতা কোর কমিটি তৈরি করে দেন। তাঁর নির্দেশেই শনিবার আমরা বৈঠক করেছি। বৈঠকে প্রতিটি কলেজের ২ জন করে প্রতিনিধি ছিলেন।’‌ 
ছাত্র পরিষদের বৈঠকের পর প্রাথমিক শিক্ষক সংগঠনের সঙ্গেও বৈঠক করেন পার্থ। সংগঠনের নতুন সভাপতি হয়েছেন অশোক রুদ্র। আগের সভাপতি শ্যামপ্রসাদ পাত্রকে উপদেষ্টামণ্ডলীর চেয়ারম্যান করা হয়েছে। ২৫ সেপ্টেম্বর আশুতোষ কলেজের হলে বিবেকানন্দের শিকাগো বক্তৃতার প্রাসঙ্গিকতা নিয়ে ছাত্রদের মধ্যে প্রতিযোগিতা হবে।

 

 

পার্থ চ্যাটার্জি ও অভিষেক ব্যানার্জি

জনপ্রিয়

Back To Top