উদয় বসু: কাঁকিনাড়া বাজারের কাছে শুক্রবার তৃণমূলের বিশাল জনসভায় বিজেপি ছেড়ে ৫ হাজার কর্মী তৃণমূলে যোগ দেন। তাঁদের মধ্যে ছিলেন গণেশ সিং। অভিযোগ, শনিবার রাতে একা পেয়ে বিজেপি কর্মীরা তাঁর ওপর হামলা চালায়। বেধড়ক মারধর করা হয়। এমনকী, তাঁর একটি পা ভেঙে দেওয়া হয়। তাঁর মাথায় ও বুকে চোট লাগে। তিনি আশঙ্কাজনক অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি। তৃণমূলের পক্ষ থেকে ভাটপাড়া থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।
তৃণমূল নেতা সোমনাথ শ্যামের অভিযোগ, গণেশ সিং আগে তৃণমূলেই ছিলেন। তাঁকে ভয় দেখিয়ে বিজেপি–তে নিয়ে যাওয়া হয়েছিল। শুক্রবার তিনি অন্যদের সঙ্গে তৃণমূলে ফিরে আসেন। এর পর থেকেই গণেশ বিজেপি–র টার্গেট হয়ে যান। শনিবার ওঁর ওপর আক্রমণ চালানোর নেপথ্যে রয়েছে বিজেপি সাংসদ অর্জুন সিং।
এদিকে, অর্জুনের দাবি, তিনি যখন কাঁকিনাড়া আর্য সমাজ রোড ধরে যাচ্ছিলেন তখন তাঁর গাড়িতে পাথর ছোড়া হয়। পাশে একটি বোমাও মারা হয়। তিনি ও তাঁর দেহরক্ষীরা গাড়ি থেকে নেমে এলে গণেশ সিং ও অন্যরা পালাতে থাকে। পালানোর সময় পড়ে গিয়ে পা ভাঙে গণেশের। অর্জুনের কথায়, তিনিই গণেশকে তাঁর গাড়িতে তুলে ভাটপাড়া স্টেট জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যান। পুলিশ ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে।‌‌

জনপ্রিয়

Back To Top