আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ দেনার দায়ে আত্মঘাতী হলেন এক পাথর ব্যবসায়ী৷ ঘটনাটি ঘটেছে বারুইপুর থানার চম্পাহাটি নড়িদানা এলাকায়৷ মৃত ব্যবসায়ীর নাম সুভাষ পৈলান (৩৫)৷ শ্রীহরি মার্বেল নামে এলাকায় একটি দোকান ছিল সুভাষের। ব্যবসা বাড়াতে পাথরের দোকান বন্ধক রেখে ব্যাঙ্ক থেকে ঋণ নিয়েছিলেন তিনি৷ কিন্তু সময়মতো সব টাকা শোধ করতে পারেননি। যার ফলে অবসাদে ভুগছিলেন। ব্যবসাও ঠিকঠাক চলছিল না। ব্যাঙ্কের তাগাদা ও ব্যবসায় মন্দার জন্য বৃহস্পতিবার গভীর রাতে নিজের ঘরেই গলায় দড়ি দিয়ে আত্মঘাতী হন ওই ব্যবসায়ী৷ শুক্রবার সকালে পরিবারের সদস্যরা দরজা ভেঙে ওই ব্যক্তির ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার করেন৷ বারুইপুর মহকুমা হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে সুভাষকে মৃত ঘোষণা করেন চিকিৎসকরা৷ মৃতদেহ ময়নাতদন্তে পাঠানো হয়েছে। 
মৃতের পরিবারের বক্তব্য, ঋণ মেটানোর জন্য ব্যাঙ্ক কর্তৃপক্ষের তরফে লাগাতার চাপ দেওয়া হচ্ছিল৷ তার উপর ব্যবসাও ভাল চলছিল না। যার ফলে মানসিকভাবে ভেঙে পড়েছিলেন ওই ব্যবসায়ী। বাজারেও দেনা ছিল সুভাষের। সংসার চালানোই সমস্যা হয়ে দাঁড়িয়েছিল। যার ফলে আত্মঘাতী হয়েছেন সুভাষ। 

জনপ্রিয়

Back To Top