আজকলা ওয়েবডেস্ক:‌ গেরুয়া শিবিরে নাম লেখালেন কোচবিহার দক্ষিণের তৃণমূল বিধায়ক মিহির গোস্বামী। অনেক দিন ধরেই জল্পনা চলছিল তাঁর রাজনৈতিক ভবিষ্যত নিয়ে। শেষমেশ শুক্রবার দিল্লিতে বিজেপির সদর দপ্তরে বঙ্গ বিজেপির পর্যবেক্ষক কৈলাশ বিজয়বর্গীয়ের উপস্থিতিতে বিজেপিতে যোগ দিলেন মিহির। কৈলাশের পাশাপাশি সেখানে ছিলেন ব্যারাকপুরের বিজেপি সাংসদ অর্জুন সিংহ, কোচবিহারের বিজেপি সাংসদ নিশীথ প্রামাণিক, দলের কেন্দ্রীয় মুখপাত্র আরপি সিংহ–সহ অন্য বিজেপি নেতারা।
যোগদানের পর মিহির গোস্বামী বলেন, ‘‌রাজ্যে যেভাবে অনাচার, দুর্নীতির রাজত্ব চলছে, তার বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াতেই বিজেপিতে যোগ দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিলাম। স্বাধীনতার পর থেকে উত্তরবঙ্গ বঞ্চিত। ধারাবাহিকভাবে অবহেলিত হয়েছে। এটা আমার ধর্মযুদ্ধ। নতুন ভোর দেখতে চাই। বলাই বাহুল্য, আমরা নরেন্দ্র মোদির নেতৃত্বে সুদিন দেখতে পাব। এ আমার দৃঢ় বিশ্বাস।’ সম্প্রতি একটি ফেসবুক পোস্টে দলের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগড়ে দিয়ে মিহির বলেছিলেন, ‘‌জেলায় জেলায় বারবার অপমানিত হয়েছি। দলের রাজ্য নেতৃত্ব তাতে নীরব ও প্রচ্ছন্ন মদত জুগিয়ে গিয়েছে। দলনেত্রীকে সে সব কথা জানিয়েও অবস্থার পরিবর্তন হয়নি। আজ সব সহ্যের সীমা অতিক্রম করার সময়েও দেখেছি নেত্রী একইরকমের আশ্চর্য নীরবতা পালন করেছেন। সম্ভবত তিরস্কার–বহিস্কারের ক্ষমতাও তাঁর লুপ্ত হয়েছে। দলের চালক সিটে তিনি আর নেই। আজ এই তৃণমূল দলের সঙ্গে যাবতীয় সম্পর্কের অবসান ঘটিয়ে প্রাথমিক সদস্য পদ থেকেও ইস্তফা দিলাম।’‌ 
প্রাক্তন তৃণমূল বিধায়ককে পদ্ম শিবিরে স্বাগত জানিয়ে কৈলাশ বিজয়বর্গীয় বলেন, ‘‌মিহির দা অভিজ্ঞ রাজনীতিক। ছাত্রাবস্থা থেকে রাজনীতির সঙ্গে জড়িত।’‌ 

জনপ্রিয়

Back To Top