আজকালের প্রতিবেদন: করোনায় উপসর্গহীন বা মৃদু উপসর্গ রয়েছে যঁাদের, তঁাদের ক্ষেত্রে হাসপাতালে ভর্তির ১০ দিন পর ছাড়ার সময় আইসিএমআর প্রোটোকল অনুযায়ী চিকিৎসককে লিখে দিতে হবে, রোগী এখন সুস্থ। তঁার কোভিড টেস্টের দরকার নেই। হাসপাতাল থেকে বাড়ি ফিরে ৭ দিন টানা হোম আইসোলেশনে থাকতে হবে। বাইরে বেরোনো যাবে না। তার পর তিনি স্বাভাবিক জীবন কাটাতে পারবেন। এই রকমই একটি লিখিত নথি হাসপাতালকে দিতে হবে রোগীকে। এই সিদ্ধান্ত স্বাস্থ্য দপ্তরের। এক স্বাস্থ্যকর্তা জানিয়েছেন, এ বিষয়ে আগে বলা হলেও, কোনও কোনও চিকিৎসক লিখতেন, কেউ আবার লিখতেন না। ফলে রোগী বাড়ি ফিরলেও, সমস্যায় পড়তে হত পাড়াপড়শির কাছে। এবার থেকে সেই সমস্যা যাতে না হয়, তার জন্যই স্বাস্থ্য দপ্তরের এই সিদ্ধান্ত। এ বিষয়ে বিজ্ঞাপন দেওয়ার কথাও ভাবছে স্বাস্থ্য দপ্তর। 
‌‌রাজ্যে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা থেকে সুস্থ হয়েছেন ২ হাজার ১১৮ জন। মোট সুস্থ হওয়ার সংখ্যা ৪৮ হাজার ৩৭৪ জন। সুস্থতার হার ৬৮.‌৯২ শতাংশ। শুক্রবার স্বাস্থ্য দপ্তরের দেওয়া বুলেটিনে এই তথ্য জানানো হয়। রাজ্যে নতুন করে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ২ হাজার ৪৯৬ জন। মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৭০ হাজার ১৮৮ জন। বর্তমানে সক্রিয় করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ২০ হাজার ২৩৩ জন। নতুন করে আরও ৪৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। এদের মধ্যে কলকাতা ২১, উত্তর ২৪ পরগনা ১৩ জন। বাকিরা অন্য জেলার। রাজ্যে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল ১ হাজার ৫৮১ জন। নতুন আক্রান্তদের মধ্যে কলকাতা ৬৭০, উত্তর ২৪ পরগনা ৬৪৪, হাওড়া ১৬০, দক্ষিণ ২৪ পরগনা ১৯৯, দার্জিলিং ১২২ জন–‌সহ আরও একাধিক জেলা থেকে আক্রান্ত হয়েছেন। আক্রান্ত হয়েছেন প্রবীণ সিপিএম নেতা শ্যামল চক্রবর্তী।
এদিন আরও এক কোভিড–‌যোদ্ধা পুলিশকর্মীর মৃত্যু হয়েছে। চিৎপুর থানায় কর্মরত অ্যাসিস্ট্যান্ট সাব–‌ইনস্পেক্টর তপনচন্দ্র কুমার কোভিডে আক্রান্ত হন। ২৪ জুলাই থেকে ভর্তি ছিলেন এমআর বাঙুর হাসপাতালে। শুক্রবার সকালে তাঁর মৃত্যু হয়। এই নিয়ে করোনায় সাত পুলিশকর্মীর মৃত্যু হল।
ফরাক্কায় কর্মরত সিআইএসএফের এক জওয়ান আর কে সলোমন এদিন মারা যান। ফায়ার ইউনিটে সাব ইনস্পেক্টর পদে ছিলেন। সিআইএসএফ থেকে মৃতের পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জানানো হয়।
করোনায় আক্রান্ত হলেন মধ্যমগ্রাম থানার আইসি–‌সহ ওই থানারই আরও এক পুলিশকর্মী। জেলা প্রশাসন সূত্রে জানা গেছে, বৃহস্পতিবার তাঁদের রিপোর্ট পজিটিভ আসে। তার পরই তাঁদের হোম কোয়ারেন্টিনে রাখা হয়।  
এদিন ফের এক চিকিৎসকের করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয়। ৭০ বছর বয়সি চিকিৎসক তপনকুমার ব্যানার্জি সল্টলেকের এক বেসরকারি হাসপাতালে গত সপ্তাহে ভর্তি ছিলেন। তাঁর করোনা পজিটিভ ধরা পড়ে। এক মাস আগে হৃদযন্ত্রের সমস্যায় দুটি স্টেন্ট বসানো হয়েছিল।
করোনায় আক্রান্ত হয়ে বৃহস্পতিবার রাতে মৃত্যু হয়েছে বিধাননগরের দত্তাবাদ এলাকার বাসিন্দা এক যুবকের। কিছুদিন আগে এই যুবকের মায়ের করোনার কারণে মৃত্যু হয়।  
গত ২৪ ঘণ্টায় বীরভূমে নতুন করে ৪০ জনের করোনা সংক্রমণ ধরা পড়েছে। সবচেয়ে বেশি নলহাটিতে। নলহাটি পুরসভার উপ-পুরপ্রধান তহিদ শেখ এবং পুরসভার এক অস্থায়ী কর্মী–সহ ৯ জন আক্রান্ত। বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে নলহাটি পুরসভা ভবন। আক্রান্তদের রামপুরহাট কোভিড হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
কোভিড পেশেন্ট ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম (‌সিপিএমএস)‌ কলকাতার পাশাপাশি জেলার বেসরকারি কোভিড হাসপাতালকেও মেনে চলতে হবে। নির্দেশিকা জারি করেছে স্বাস্থ্য দপ্তর। রোগী ভর্তির সময় তথ্য ঠিক করে নথিভুক্ত করা, রোগীর আর্লি ওয়ার্নিং স্কোর স্বাস্থ্যভবনে দিনে একবার জানানো, যাবতীয় রিপোর্ট, দৈনিক ছুটি ও মৃত্যু সংক্রান্ত তথ্য সিপিএমএস পোর্টালে আপলোড করতে হবে।  
কোভিড সংক্রান্ত চিকিৎসা নিয়ে স্বাস্থ্য দপ্তর ফের নতুন করে প্রোটোকল প্রকাশ করেছে। আগের প্রোটোকল থেকে বেশ কিছু সংশোধনী করা হয়েছে নতুন এই প্রোটোকলে। কোভিড রোগীর ট্রায়াল কী করে করতে হবে, মাইল্ড কেস, হোম আইসোলেশনে মৃদু বা প্রি–সিম্পটোম্যাটিক উপসর্গ থাকলে, মাঝারি থেকে সিভিয়ার উপসর্গ হলে কী করণীয় তার বিস্তারিত তথ্য দিয়েছে স্বাস্থ্য দপ্তর। ফিভার ক্লিনিকের প্রোটোকল, ক্রিটিক্যাল কেয়ার ইউনিটে, গর্ভবতীদের ক্ষেত্রে কী করণীয়, ডিসচার্জ পলিসি নতুন করে ফের সবকিছু নিয়ে ৫০ পাতার এই প্রোটোকল প্রকাশ করেছে স্বাস্থ্য দপ্তর। 

জনপ্রিয়

Back To Top