নিরুপম সাহা
পেঁয়াজের ঝঁাজে সরগরম গোটা রাজ্য। এই পরিস্থিতিতে রাজ্য সরকারের হস্তক্ষেপে রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তে শুরু হয়েছে রাজ্য সরকার নির্ধারিত মূল্যে পেঁয়াজ বিক্রি। হাবড়ার বিধায়ক তথা খাদ্যমন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিকের নির্দেশে হাবড়া এলাকায় নির্ধারিত মূল্যে পেঁয়াজ এবং আলু বিক্রি করা হল। সস্তায় সেই পেঁয়াজ কিনতে এদিন হাজির হয়েছিলেন এলাকার বহু মানুষ।
প্রথমে আলু এবং পরে পেঁয়াজের আকাশছোঁয়া দামে নাভিশ্বাস উঠেছে সাধারণ মানুষের। পেঁয়াজের দাম বাড়তে বাড়তে কিলো প্রতি ১৪০ থেকে ১৫০ টাকায় চলে যায়। এ ব্যাপারে কেন্দ্রীয় সরকারের চরম উদাসীনতার বিরুদ্ধে সংসদেও সরব হন বিরোধীরা। এই পরিস্থিতিতে রাজ্যের মানুষকে কিছুটা স্বস্তি দিতে উদ্যোগ নেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি। কলকাতার পাইকারি বাজারগুলিতে টাস্ক ফোর্স পাঠিয়ে খোঁজ নেওয়ার পাশাপাশি নিজেও হাজির হন বাজারে। সবদিক খোঁজ নিয়ে রাজ্য সরকার সিদ্ধান্ত নেয় যে, আপাতত সুফল বাংলার মাধ্যমে কলকাতা–সহ রাজ্যের বিভিন্ন বাজার এবং রেশন দোকানের মাধ্যমে ভর্তুকিযুক্ত পেঁয়াজ সাধারণ মানুষের হাতে তুলে দেওয়া হবে। মঙ্গলবার সকাল থেকে সেই উদ্যোগ শুরু হয়েছে। সুফল বাংলার সহযোগিতায় এদিন হাবড়া স্টেশন রোড এলাকায় এই সংক্রান্ত অস্থায়ী বিপণন কেন্দ্র খোলা হয়। বাজার দর থেকে অনেকটাই সস্তায় এই পেঁয়াজ কিনতে এদিন লাইন পড়ে যায়।

জনপ্রিয়

Back To Top