প্রদীপ দে 
আধার কার্ড সংশোধন নিয়ে উভয় সঙ্কটে মুর্শিদাবাদের মানুষ। আধার কার্ড সংশোধন করতে জেলার ডাকঘরগুলিতে লম্বা লাইন। সেখান থেকে যে কুপন দেওয়া হচ্ছে, তাতে যে তারিখ থাকছে তা ডিসেম্বর মাসের। অর্থাৎ প্রায় এক বছর পর সংশোধন হবে। এর মধ্যে যদি আধার কার্ড দরকার হয়, সেই ক্ষেত্রে আবার পুরনো কার্ড কাজে লাগবে না, এতেই সমস্যায় পড়েছেন সাধারণ মানুষ। এমন ছবি মুর্শিদাবাদ জেলা জুড়ে। 
অনেকের আধার কার্ডে নাম, জন্ম তারিখ ভুল রয়েছে। কারও আবার ঠিকানা ভুল। এসবের সংশোধন করার কাজ চলছে। জেলার সব ডাকঘরে ও নির্দিষ্ট কিছু ব্যাঙ্কে। এনআরসি নিয়ে আতঙ্ক দেখা দেওয়ায় মুর্শিদাবাদ জুড়ে আধার কার্ড সংশোধন করতে ভিড় করছেন সাধারণ মানুষ। জেলা প্রশাসনের তরফে বারবার বলা হচ্ছে, এনআরসি নিয়ে কোনও ভয় পাবেন না, আধার কার্ড সংশোধন নিয়ম মাফিক হচ্ছে। রাত জেগে মানুষ লাইন দিচ্ছেন। ফল ক্ষোভ বাড়ছে। বহরমপুর জেলা ডাকঘরে কুপন পাবার জন্য শীতের রাতেও বহু মানুষ খোলা আকাশের নীচে লাইন দিচ্ছেন। কিন্তু সেই কুপন পেয়ে হতাশ হয়ে পড়েছেন সকলে। নবগ্রামের সাইদুল ইসলামের কুপনে লেখা, আধার কার্ড সংশোধন করার তারিখ চলতি বছরের ৮ ডিসেম্বর। অর্থাৎ ১১ মাস পরে। তিনি বলেন, ‘‌এখন যে কার্ড আছে তাতে অনেক ভুল। কোনও অফিসে গেলে কাজ হচ্ছে না। আমাকে ১১ মাস বসে থাকতে হবে! যে সব ব্যাঙ্কে সংশোধন হচ্ছে, সেখানেও একই ছবি। জেলার উত্তর থেকে দক্ষিণ, পূর্ব থেকে পশ্চিম সব জায়গায় একই ছবি।’‌ সব মিলিয়ে আধার কার্ড সংশোধন করার নামে মানুষ সমস্যায় পড়েছেন।‌‌

জনপ্রিয়

Back To Top