‌প্রদীপ দে, বহরমপুর: লকডাউনে বন্ধ হয়ে যায় থিয়েটার। বন্ধ প্রেক্ষাগৃহ। এমন অবস্থায় নাটকের শহর বহরমপুরেও বন্ধ হয়ে পড়ে সংস্কৃতির কর্মকাণ্ড। আনলক–৪ শুরুতে সরকারি নিয়মে বহিরঙ্গে নাটক করা যাবে এমন সিদ্ধান্ত জানার পরই ২১ সেপ্টেম্বর প্রথম দিনেই নাটক করল যুগাগ্নি নাট্য সংস্থা। সংস্থার মহলা ঘরে মাত্র ৩০ জন দর্শককে নিয়ে করল প্রচেত গুপ্তের গল্প অবলম্বনে ‘‌তিন তারিখ’‌ নাটক। 
দেবাশিস সান্যালের নির্দেশনায় মানুষের সম্পর্কের কথা নাটকে বলা হয়েছে। কলকাতার পরই বহরমপুর নাটকের শহর বলে খ্যাত। ১৮টি নাটকের দল নিয়মিত নাট্যচর্চা করে। সারা বছর ধরে রবীন্দ্র সদনে হয় নাটক, নাট্যোৎসব। এদেশের বিভিন্ন রাজ্য তো বটেই, বিদেশ থেকেও নাটকের দল আসে। লকডাউনে সব বন্ধ হওয়ায় মুষড়ে পড়েছিলেন নাট্যকর্মীরা। যুগাগ্নির পাশাপাশি বহিরঙ্গের নাটক শুরু করছে ঋত্বিক, ব্রীহি ও রণ নাট্য সংস্থা। ঋত্বিক তাদের মহলা ঘরে ২৭ সেপ্টেম্বর থেকে ১০ অক্টোবর পর্যন্ত তিনটি পর্যায়ে শহরের আরও তিনটি দলকে নিয়ে করবে নাটক। 

জনপ্রিয়

Back To Top