আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ ফের বিতর্কে বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। না এবার কোনও বেফাঁস মন্তব্য নয়, বরং একসময়ের 'মাস্তান' তথা চেতলার ত্রাস নামে পরিচিত শ্রীধর দাসকে বিজেপিতে যোগদান করালেন তিনি। আর দিলীপবাবুর এই কাজে দলের অন্দরেই শুরু হয়েছে চাপানউতোর।  ঠিক যেমন হয়েছিল মণিরুল ইসলামকে দলে নেওয়ার সময়। বাম আমলে চেতলার ত্রাস ছিলেন এই শ্রীধর। তোলাবাজি–সহ একাধিক মামলা রয়েছে তাঁর নামে। সেই সময় তাঁর উপরে সিপিএম নেতাদের বরাভয় ছিল, এমনটাই দাবি স্থানীয়দের। এরপর সরকার পরিবর্তনের পর তৃণমূলে এলেও এবার তিনি যোগ দিলেন বিজেপিতে। সম্প্রতি রাসবিহারীর একটি দুর্গাপুজোর দখল নিয়ে ফের  প্রচারে আসেন শ্রীধর। মূলত তাঁর সাহায্যেই ওই পুজোটি দখলের চেষ্টায় ছিল বিজেপি। ওই পুজো কমিটির অফিসে বিজেপি নেতা সায়ন্তন বসু যাওয়ার পর আর উত্তপ্ত হয়ে ওঠে পরিস্থিতি। দুপক্ষের মধ্যে বাঁধে সংঘর্ষ। গ্রেপ্তার করা হয় শ্রীধরকে। এহেন শ্রীধরই আনুষ্ঠানিকভাবে বুধবার যোগ দিলেন বিজেপিতে। তাঁর হাতে দলীয় পতাকা তুলে দেন রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। বিজেপির রাজ্য সভাপতির প্রতিক্রিয়া, শ্রীধর আসায় দক্ষিণ কলকাতায় সংগঠন মজবুত হবে। অন্যদিকে, শ্রীধরের অভিযোগ, তাঁকে মিথ্যা মামলায় ফাঁসানো হয়েছে। সে কারণে এলাকার বাইরে থাকতে হচ্ছে।  

জনপ্রিয়

Back To Top