তরুণ চক্রবর্তী- স্বাস্থ্যবিধি মেনে সোমবার থেকে  দেশে চালু হল ১০০ জোড়া স্পেশ্যাল ট্রেনের যাতায়াত। এর মধ্যে গোটা বিশেক ট্রেন বাংলার মধ্যে দিয়ে চলবে। রয়েছে পূর্ব রেলের ৮ জোড়া বিশেষ ট্রেন। এদিনই একাধিক ট্রেন হাওড়া, শিয়ালদা ও কলকাতা থেকে অন্যান্য শহরের উদ্দেশে রওনা দেয়। বহু দিন পর আলিপুরদুয়ারের সঙ্গেও স্থাপিত হল সরাসরি রেল যোগাযোগ।  এদিকে,দু’‌মাসের বেশি সময় পার করে ফের কলকাতার সঙ্গে ট্রেনে যুক্ত হচ্ছে উত্তরবঙ্গ। উত্তর–পূর্ব সীমান্ত রেল থেকে সোমবারপদাতিক এক্সপ্রেসের চলাচল শুরু হওয়ার খবর জানানো হয়েছে। সোমবার আলিপুরদুয়ার থেকে শুরু হয়েছে দিল্লিগামী মহানন্দা এক্সপ্রেস। গুয়াহাটি থেকে দিল্লিগামী ব্রহ্মপুত্র মেল। এদিন আলিপুরদুয়ার জংশন স্টেশন থেকে ছাড়ে মহানন্দা লিঙ্ক এক্সপ্রেস। ছিলেন ডিআরএম কে এস জৈন। উত্তর–‌পূর্ব সীমান্ত রেলের মুখ্য জনসংযোগ আধিকারিক শুভানন চন্দা বলেন, ‘‌একটি জনশতাব্দী এক্সপ্রেস, ব্রহ্মপুত্র মেল, মহানন্দা লিঙ্ক এক্সপ্রেস আজ থেকেই যাত্রা শুরু করেছে। আগের নিয়মেই চলবে ট্রেনগুলি। আগামীকাল থেকে পদাতিক এক্সপ্রেস, ৩ জুন লোকমান্য তিলক এক্সপ্রেস, ৫ জুন কর্মভূমি এক্সপ্রেস যাত্রা শুরু করবে। ‌ দক্ষিণ–‌পূর্ব রেলেরও একাধিক ট্রেন এদিন যাত্রা শুরু করে। ১০০ জোড়া বিশেষ ট্রেনের মধ্যে তাদের রয়েছে ৯ জোড়া। এ ছাড়া বাংলার ওপর দিয়েই যাবে উত্তর–‌পূর্ব সীমান্ত রেলের একাধিক স্পেশ্যাল। রয়েছে দিল্লির সঙ্গে রাজধানী এক্সপ্রেসের ধঁাচে এসি স্পেশ্যালও।
এদিন যাত্রীদের থার্মাল চেকিং করেই ট্রেনে তোলা হয়। রিজার্ভেশন টিকিট ছাড়া কাউকেই স্টেশনে প্রবেশ করতে দেওয়া হয়নি। রেলকর্মীদেরও শারীরিক পরীক্ষা দিতে হয়েছে। রেল সূত্রে জানা গেছে, এদিন ১০০ জোড়া স্পেশ্যাল ট্রেন চালু হলেও ইএমইউ, ডিএমইউ বা মেমু ট্রেন ৩০ জুনের আগে চালু হবে না। আনলক–‌ওয়ানে প্যাসেঞ্জার ট্রেনে নিষেধাজ্ঞা থাকছেই। তাই বাড়ানো হয়েছে প্যাসেঞ্জার ট্রেন চলাচল বন্ধ রাখার সময়সীমাও। এখন শ্রমিক স্পেশ্যাল ছাড়া ১১৫ জোড়া স্পেশ্যাল ট্রেনই শুধু চালাবে রেল।
মেট্রো কবে থেকে চলবে এখনও কিছু ঠিক না হলেও, এদিন উচ্চ পর্যায়ের বৈঠক হয়েছে মেট্রো ভবনে। কলকাতা মেট্রো রেলের জেনারেল ম্যানেজার মনোজ যোশি উচ্চপদস্থ অফিসারদের এদিন নির্দেশ দেন যাত্রীদের সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার বিষয়টি নিয়ে এখন থেকেই যত্নশীল হতে। মেট্রো চালু হওয়ার আগেই প্ল্যাটফর্ম ও বগিতে স্টিকার লাগিয়ে সামাজিক দূরত্বের বিষয়টি নিশ্চিত করা হবে। সেই সঙ্গে বাড়তি গুরুত্ব পাবে পরিচ্ছন্নতার বিষয়টিও। জিএমের নির্দেশ, আমফানে ক্ষতিগ্রস্ত মেট্রোর সমস্ত পরিকাঠামোই দ্রুত মেরামতি করতে হবে।

জনপ্রিয়

Back To Top