স্বদেশ ভট্টাচার্য, হিঙ্গলগঞ্জ: সোশ্যাল মিডিয়ায় আপত্তিকর ছবি দেওয়ায় অপমানে কীটনাশক খেয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করলেন এক গৃহবধু। পুলিশ জানিয়েছে, সোমবার সকালে ঘটনাটি ঘটেছে হিঙ্গলগঞ্জের বাঁকড়া গ্রামে। মহিলাকে প্রথমে স্থানীয় সান্ডেলেরবিল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। শারীরিক অবস্থার অবনতি হওয়ায় তাঁকে বসিরহাট জেলা হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয়েছে।
মহিলার স্বামীর অভিযোগের ভিত্তিতে পুলিশ রাহুল সর্দার নামে এক যুবককে গ্রেপ্তার করেছে। মঙ্গলবার তাকে বসিরহাটের এসিজেএম আদালতে তোলা হলে বিচারক ৫ দিনের জন্য পুলিশি হেফাজতের নির্দেশ দেন। বাঁকড়ার বাসিন্দা এক ব্যক্তি মুম্বইতে কাজ করেন। সেখানে তাঁর সঙ্গে পরিচয় হয় হাসনাবাদের বরুণহাট গ্রামের রাহুল সর্দারের। গত কয়েক মাস আগে রাহুল বাড়ি ফিরেছে খবর পেয়ে ওই ব্যক্তি তাঁর খারাপ হয়ে যাওয়া মোবাইলটি বাড়ি পৌঁছে দেওয়ার জন্য দেন। অভিযোগ, রাহুল মোবাইলটি মেরামত করে তাতে যে সব ছবি ছিল,  সব ছবি কপি করে নেয়। মোবাইলে ওই ব্যক্তি এবং তার স্ত্রীর কিছু অন্তরঙ্গ মুহূর্তের স্টিল এবং ভিডিও ছবি ছিল। রাহুল সেইসব ছবি দেখিয়ে বন্ধুর স্ত্রীকে কুপ্রস্তাব দেয়। মহিলা তাতে রাজি না হওয়ায় ছবিগুলি সোশাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে দেয় বলে অভিযোগ।

ছবি: প্রতীকী

জনপ্রিয়

Back To Top