প্রিয়দর্শী বন্দ্যোপাধ্যায়- শহরের বৃহত্তম প্রযুক্তিবিদ্যা–উৎসব হয়ে গেল শিবপুর আইআইইএসটি–তে। নাম ‘‌ইনস্ট্রুও’‌। এবার ছিল তার একাদশতম বর্ষ। ৮ থেকে ১০ নভেম্বর সফলভাবে উৎসবটির আয়োজন করেন আইআইইএসটি–র পড়ুয়া ও অধ্যাপকেরা। ‘‌বুলবুল’‌–এর জেরে ঝড়বৃষ্টি এড়িয়ে তিনদিনের এই টেক–ফেস্টে অংশ নেন প্রায় সাড়ে ৬ হাজার ছাত্রছাত্রী। টেকনো ইন্ডিয়া ইউনিভার্সিটি, সিস্টার নিবেদিতা ইউনিভার্সিটি–সহ কলকাতা, হাওড়া তথা রাজ্যের একাধিক ইঞ্জিনিয়ারিং ও ম্যানেজমেন্ট কলেজের পড়ুয়ারা এই উৎসবে শামিল হন। অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি ছিলেন সাহা ইনস্টিটিউট অফ নিউক্লিয়ার ফিজিক্সের অধ্যাপক জিষ্ণু বসু। ছিলেন আইআইইএসটি–র ডিরেক্টর পার্থসারথি চক্রবর্তীও।
আইআইইএসটি ক্যাম্পাস চত্বরে আয়োজিত এই প্রযুক্তিবিদ্যা–উৎসবকে আরও আকর্ষণীয় করে তুলতে বিভিন্ন আবিষ্কারমূলক প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়েছিল।

যার মধ্যে ওয়েব ডিজাইনিং, কোডিং, রোবোটিক্স প্রভৃতি উল্লেখযোগ্য। এ ছাড়াও পড়ুয়াদের উৎসাহ দিতে পাবজি, ফিফা–র মতো ভার্চুয়াল গেমের আয়োজনও ছিল। ছিল ম্যানেজনেন্ট ইভেন্টসও। এ ছাড়াও ‘‌ভূগর্ভস্থ জলের অভাব ও প্রতিকার’‌–এর মতো বিভিন্ন বিষয়ের ওপর আলোচনাচক্র ও স্লাইড শো প্রেজেন্টেশনেরও ব্যবস্থা ছিল। শুক্র ও শনিবার প্রথম দু’‌দিন প্রধানত ছিল এ সব প্রতিযোগিতার আয়োজন। শেষদিন রবিবার ছিল সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। তাতেও শামিল হন উৎসবে যোগ দিতে আসা একাধিক পড়ুয়া। উদ্যোক্তারা জানান, ‘‌বুলবল’–এর‌ জন্য পড়ুয়াদের উপস্থিতি নিয়ে আমরা কিছুটা চিন্তায় ছিলাম। কিন্তু দুর্যোগ উপেক্ষা করে বহু হবু ইঞ্জিনিয়ার এই উৎসবে যোগ দিয়েছেন।

রোবোটিক্সের মডেল নিয়ে ব্যস্ত এক ছাত্র। ডানদিকে, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে ছাত্রীরা। ছবি:‌ আজকাল

জনপ্রিয়

Back To Top