গৌতম মণ্ডল: ডায়মন্ড হারবার মহিলা বিশ্ববিদ্যালয়ে অনুষ্ঠিত হল দ্বিতীয় সমাবর্তন। বৃহস্পতিবার এই অনুষ্ঠানে ছিলেন আচার্য রাজ্যপাল কেশরীনাথ ত্রিপাঠী, বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অনুরাধা মুখোপাধ্যায়, অধ্যাপিকা সুদীপ্তা সেনগুপ্ত প্রমুখ। আসার কথা ছিল শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চ্যাটার্জির। কিন্তু এদিন তিনি এই সমাবর্তনে আসতে পারেননি। বুধবার নির্বাচন কমিশনে গিয়ে বাংলায় প্রতিটি বুথকে অতি স্পর্শকাতর ঘোষণার দাবি জানিয়েছে বিজেপি। অনুষ্ঠান শেষে রাজ্যপালকে এ নিয়ে প্রশ্ন করা হলে তিনি কোনও মন্তব্য করতে রাজি হননি। এদিন বিশ্ববিদ্যালয়ের পক্ষ থেকে বিশিষ্ট অভিনেত্রী সাবিত্রী চট্টোপাধ্যায় ও তিরন্দাজ দোলা বন্দ্যোপাধ্যায়কে ডিলিট উপাধি দেওয়া হয়। ২০১৩ সালে এই মহিলা বিশ্ববিদ্যালয়ের পথচলা শুরু হয়। বর্তমানে বিজ্ঞান ও কলা বিভাগ মিলিয়ে ১৪টি বিষয়ে স্নাতকোত্তর পড়ানো হয়। এছাড়া এমফিল, পিএইচডি ও গবেষণা করার সুযোগ আছে এই বিশ্ববিদ্যালয়ে। 
এদিন রাজ্যপাল দীক্ষান্ত ভাষণে বলেন, ‘এই বিশ্ববিদ্যালয় উত্তর–‌পূর্ব ভারতের মধ্যে প্রথম নারী শিক্ষার প্রসার ও ক্ষমতায়নের লক্ষ্যে কাজ করে চলেছে।’‌  এদিন ডিলিট পাওয়ার পর বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষকে ধন্যবাদ জানিয়ে সাবিত্রী বলেন, ‘‌অভিনয় জীবনের উপান্তে এসে এই স্বীকৃতি আমাকে গর্বিত করেছে।’‌ তিরন্দাজ দোলা প্রথাগত পড়াশোনার পাশাপাশি খেলাধুলোর ব্যাপারেও ভাবার কথা বলেন বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষকে।‌‌‌‌    

সাবিত্রী চট্টোপাধ্যায়ের হাতে ডিলিট সম্মান তুলে দিচ্ছেন রাজ্যপাল কেশরীনাথ ত্রিপাঠী।ছবি: প্রতিবেদক

জনপ্রিয়

Back To Top