যজ্ঞেশ্বর জানা,কঁাথি: ওজন আর গুণগতমানে দুর্নীতি ধরা পড়লে এবার থেকে রেশন ডিলারদের বহিষ্কার করা হবে বলে স্পষ্ট হুঁশিয়ারি দিলেন রাজ্যের খাদ্যমন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক। মঙ্গলবার কঁাথিতে খাদ্যভবনের উদ্বোধন করতে এসে এমনই বার্তা দেন তিনি। এদিন কঁাথির খাদ্য ভবনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের মঞ্চ থেকে মন্ত্রী হলদিয়া ও এগরা খাদ্য ভবনেরও আনুষ্ঠানিক  উদ্বোধন করেন। ছিলেন রাজ্যের পরিবহণ ও পরিবেশ মন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারী, স্বাস্থ্য প্রতিমন্ত্রী চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য, সাংসদ শিশির অধিকারি, দিব্যেন্দু অধিকারি, এগরা ও হলদিয়া পুরসভার দুই চেয়ারম্যান শঙ্কর বেরা, শ্যামল আদক, বিধায়ক অখিল গিরি, জ্যোর্তিময় কর, বনশ্রী মাইতি, রণজিৎ মণ্ডল, ফিরোজা বিবি–সহ রাজ্য ও জেলা খাদ্য দপ্তরের অধিকারিকরা।
কোলাঘাটের বলাকা মঞ্চে মন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় এদিন সাংবাদিক বৈঠকে স্পষ্ট বলেন, ‘‌রেশনের চালের গুণগত মান নিয়ে কোনওভাবে আপস করবে না খাদ্য দপ্তর। মুখ্যমন্ত্রী খুব কষ্টে গরিব মানুষকে ২ টাকা কেজিতে চাল দিচ্ছেন। খাদ্য দপ্তরের জন্য বরাদ্দকৃত ৮ হাজার ৩৯ কোটি টাকার মধ্যে শুধুমাত্র রেশনের চাল, গমের জন্য খরচ করা হচ্ছে সাড়ে ৫ হাজার কোটি টাকা। সেই চাল নিয়ে কোনও ব্যবসা করা যাবে না।’‌ রেশন–দুর্নীতি রুখতে এবার থেকে ১০০টি ভিজিল্যান্স টিম রাজ্যের বিভিন্ন জায়গায় ঘুরে ঘুরে চালের মান খতিয়ে দেখবে বলেও জানান মন্ত্রী। বলেন, ‘‌এই টিম সাদা পোশাকে কখন, কোথায়, কীভাবে হানা দেবে কেউ জানবে না। মূলত ডিস্ট্রিবিউটরের গুদামে, রেশন দোকানে এবং রাইস মিলে হানা দেবে টিম।’‌
গ্রাহকদের হয়রানি কমাতে খাদ্য দপ্তর এবার থেকে ৫ হাজার গ্রাহক পিছু একটি করে রেশন দোকানের অনুমোদন দেবে বলে জানান মন্ত্রী। ২৬ শতাংশ ছাড়ে রেশন দোকানে সাবান, তেল, মশলা, হরলিকস থেকে শুরু করে ৬০০ প্রোডাক্ট বিক্রির কথাও এদিন ঘোষণা করেন তিনি। রেশন ব্যবস্থাকে ঢেলে সাজানোর পাশাপাশি কৃষকদের ক্ষেত্রে ধান কেনার অভিনব উদ্যোগ নিয়েছে খাদ্য দপ্তর। এবার ধান বিক্রি করতে হলে কৃষকের যাবতীয় তথ্য রেজিস্ট্রেশন করাতে হবে। রেজিস্ট্রেশন করালে একটি কার্ড পাবেন কৃষকরা। সেই কার্ড দেখিয়ে সহজে সরকারি ধান ক্রয়কেন্দ্রে  সরকারি দামে ধান বিক্রি করা যাবে। মন্ত্রী বলেন, ‘‌এবার আরও বেশি ধান কেনার লক্ষ্যমাত্রা নিয়েছে খাদ্য দপ্তর। গত বছর আমরা ৩৫ লক্ষ মেট্রিক টন ধান কিনেছিলাম। এবার বেশি ধানের পাশাপাশি দামও বাড়ানো হয়েছে। ধান বিক্রির টাকা সরাসরি কৃষকের ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে পৌঁছে যাবে।’‌ ছবি:‌ প্রতিবেদক

জনপ্রিয়

Back To Top