রিনা ভট্টাচার্য

 

রাজ্যে এক বছর রেশন বিনামূল্যে।
মঙ্গলবার নবান্নে মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি এ কথা ঘোষণা করেছেন। তিনি জানান, আগামী বছর (‌২০২১)‌–এর জুন মাস পর্যন্ত সবাইকে বিনামূল্যে রেশন দেবে রাজ্য সরকার। কেন্দ্রের কাছে তাঁর অনুরোধ, বাংলার ৬০ শতাংশ মানুষ নয়, ১০০ শতাংশ মানুষকেই বিনামূল্যে রেশন দেওয়া হোক। পাশাপাশি তিনি বলেন, ‘‌শুধু বাংলাকেই নয়, সারা দেশের ১৩০ কোটি মানুষকেই বিনামূল্যে রেশন দেওয়া হোক।
মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ‘‌আগের ঘোষণামতো সেপ্টেম্বর পর্যন্ত রাজ্যের ১০ কোটি মানুষই বিনামূল্যে রেশন পাবেন। অক্টোবর থেকে আগামী বছরের জুন মাস পর্যন্ত ‘‌খাদ্যসাথী’‌র আওতায় থাকলেই বিনামূল্যে রেশন দেওয়া হবে। ওই সময়ে এই প্রকল্পের আওতায় যাঁরা নেই তাঁদের রেশন বিনামূল্যে দেওয়া যাবে কি না তা নিয়ে রাজ্য সরকারের সিদ্ধান্ত পরে জানানো হবে।’‌
প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী এদিন ঘোষণা করেছেন, আগামী নভেম্বর মাস পর্যন্ত বিনামূল্যে মাথাপিছু ৫ কিলো করে গম ও ১ কিলো করে ছোলা দেওয়া হবে। মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ‘‌কেন্দ্র নভেম্বর পর্যন্ত দেবে বলেছে। আমি আগামী বছরের জুন পর্যন্ত দেব।’‌ প্রধানমন্ত্রীর কাছে তাঁর অনুরোধ, ‘‌ওয়ান নেশন ওয়ান রেশন কার্ড’‌ বলার থেকে, সবাইকে বিনামূল্যে রেশন দেওয়ার ব্যবস্থা করা হোক। বাংলায় কেন্দ্রের দেওয়া রেশন ৬ কোটি মানুষ পান। ৪ কোটি মানুষ পান না। এই পার্থক্য যেন না থাকে। সবাই যাতে রেশন পান, তা নিশ্চিত করা উচিত। তিনি বলেন, ‘‌কেন্দ্র ফুড কর্পোরেশন অফ ইন্ডিয়া থেকে চাল দেয়। এর গুণমান ভাল নয়। আমরা কৃষকদের কাছ থেকে নিয়ে চাল দিই। আমাদের চাল ভাল। জুলাই মাস থেকে রাজ্য সরকার ৫ কেজি চালের জায়গায় ৩ কেজি চাল, ২ কেজি আটা দেবে। অনেকে আবার আটা পছন্দ করেন। তাই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।’‌
রাজ্যে করোনা সংক্রমণ কমাতে লকডাউন শুরু হওয়ার পর সাধারণ মানুষকে যাতে অনাহারে থাকতে না হয় মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশে বিনামূল্যে রেশন দেওয়া হচ্ছিল। ‘‌খাদ্যসাথী’‌র আওতায় থাকা প্রায় ৪ কোটি মানুষ বিনামূল্যে রেশন পাচ্ছেন।

 তা ছাড়াও পাচ্ছেন পরিযায়ী শ্রমিকেরা। যাঁরা রেশন কার্ডের জন্য আবেদন করেছেন তাঁরা এবং যাঁদের রেশন কার্ড নেই, কিন্তু রেশন চান তাঁদেরও কুপনের মাধ্যমে রেশন দেওয়ার ব্যবস্থা করেছে রাজ্য সরকার। সব মিলিয়ে রাজ্যের ১০ কোটি মানুষই বিনামূল্যে রেশন পাচ্ছেন।
প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণা অনুযায়ী সারা দেশে একটাই রেশন কার্ড চালুর বিষয়ে মুখ্যমন্ত্রীর বক্তব্য, ‘‌বিষয়টা আমার কাছে পরিষ্কার নয়। আগে ছিল বড় বড় রেশন কার্ড। তারপর হল লাল, নীল রেশন কার্ড। এরপর হল ডিজিটাল কার্ড। এখন আবার বলছে ওয়ান নেশন, ওয়ান রেশন। কী যে হচ্ছে বুঝতেই পারছি না।’‌

জনপ্রিয়

Back To Top