প্রভাত সরকার, ফরাক্কা, ১৩ আগস্ট- বাবার দেওয়া টিফিনের পয়সা বঁাচিয়ে তা দিয়ে বিভিন্ন জিনিস কিনে রাখি বানিয়ে বিক্রি করে আয় করছে অষ্টম শ্রেণির এক ছাত্রী। তা দেখে রীতিমতো গর্বিত ওই ছাত্রীর প্রতিবেশীরা। ছাত্রীর নাম অনুশ্রী প্রামাণিক। বাড়ি সুতি থানার আহিরণ ঘোষ পাড়ায়। অনুশ্রীর বাবা ঝেটুন প্রামাণিক। পেশায় সবজি বিক্রেতা। মা মায়া প্রামাণিক। বিড়ি শ্রমিক। অনুশ্রীরা পঁাচ ভাই–বোন। অভাবের সংসার। জীর্ণ বাড়ি। সেই সংসারে আয় বাড়াতে উদ্যোগী হয়েছে বাচ্চা মেয়ে অনুশ্রী। অনুশ্রী বলল, ‘‌স্কুলের কর্মশিক্ষা ক্লাস থেকেই রাখি বানানো শিখি। বাবা স্কুলের টিফিনের জন্য যে পয়সা দিতেন, তা থেকে অল্প অল্প করে জমাতাম। সামনেই রাখি পূর্ণিমা। সেই জমানো পয়সা দিয়ে রাখি তৈরির সরঞ্জাম কিনি। রাখি তৈরি করি। কিছু পরিচিত মানুষকে বিক্রি করেছি। রাখি বিক্রি করে এমন দুটি দোকানির সঙ্গে কথা বলে এসেছি। এই ভাবে আয় করে অভাবের সংসারে বাবা–মাকে সাহায্য করতে চাইছি।’‌
এই প্রসঙ্গে স্কুলের বাংলা ভাষার শিক্ষিকা, (তিনি কর্মশিক্ষারও ক্লাস নেন) মোনালিসা দাস বললেন, ‘‌অনুশ্রীর হাতের কাজ শেখার খুব আগ্রহ আছে। ক্লাসে খুব মনোযোগ দিয়ে হাতের কাজ যা শেখানো হয়, তা শেখে। শুনলাম টিফিনের পয়সা বঁাচিয়ে সে এবার রাখি তৈরি করে বিক্রি করছে। শুনে ভাল লাগছে। সে যদি আমার কাছ থেকে কোনও সাহায্য চায়, আমি তা করতে প্রস্তুত।’‌

রাখি তৈরি করছে অনুশ্রী। ছবি:‌ প্রতিবেদক
 

জনপ্রিয়

Back To Top