আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ বহুদিন ধরেই ক্ষোভের কথা ব্যক্ত করার চেষ্টা করছিলেন বনমন্ত্রী। মাঝে শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চ্যাটার্জির সঙ্গে কথা বলে সমস্যা মিটে যাওয়ার ইঙ্গিত দিলেও এদিনের ফেসবুক লাইভে রাজীব ব্যানার্জি ঠারেঠোরে বুঝিয়ে দিলেন, তিনি এখনও অসন্তুষ্ট!‌ তবে মুখমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জিকে ‘‌নেত্রী’ সম্বোধন করেছেন তিনি। কিছুটা অভিমানের সুরে এদিন রাজ্যের মন্ত্রী বলেন, ‘‌আমি কোনওদিন মানুষকে ঠকাবো না। নিজের কেন্দ্রের মানুষের পাশে সব সময়ে দাঁড়িয়েছি। দলনেত্রীর আদর্শ মেনে কাজ করেছি। কখনও কখনও বাধা এসেছে, তা নিয়ে কথাও বলেছি। কিন্তু কেউ কেউ বিষয়গুলো অন্যদিকে ঘুরিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করেছেন। আমি কিছু বললে তা নিয়ে আলোচনা হচ্ছে, কিন্তু কাজ না হওয়া নিয়ে কোনও কথা বলছে না কেউ। যেটুকু বলা হবে, যদি সেটুকুই করতে হয়, তাহলে তো স্বাধীনতা বলে কিছুই নেই!‌ মমতা ব্যানার্জিও দলের কর্মীদের সম্মানের কথা বলেন। যখন দেখা যায়, কর্মীদের সম্মান দেওয়া হয় না, তখন কিছু বললে অন্যায়? আমি ব্যক্তিগত আক্রমণ করতে পছন্দ করি না। পদের মোহ নেই। শুধু মানুষের জন্যেই কাজ করে যেতে চাই।’‌ ‌
স্বামী বিবেকানন্দ ও নেতাজি সুভাষ চন্দ্র বসুকে স্মরণ করে তিনি বলেন, ‘‌এই যুবসমাজ একজনকে চাইছে, যিনি পথ দেখাতে পারবেন। খারাপ লাগে, যুব ভাইবোনেরা চাকরি পাচ্ছেন না। কিন্তু লক্ষ্য যদি দেখানো যায়, তাহলে অনেকে সফল হয়। অন্য রাজ্যে চলে যাচ্ছে, অন্য দেশে চলে যাচ্ছে। তখন দুঃখ হয়। তাই প্রতিযোগিতামূলক পরীক্ষার প্রস্তুতির জন্য বিনামূল্যে কোচিং সেন্টার চালু করেছি।’‌

জনপ্রিয়

Back To Top