আজকালের প্রতিবেদন: তাসে নাশ নয়। বরং ‘‌তাসের ঘরেই’‌ অর্জন করা যেতে পারে আত্মবিশ্বাস। তৈরি করা যেতে পারে নেতৃত্ব দানের ক্ষমতা। চাকরি, ব্যবসা বা ব্যক্তিগত জীবন, সাফল্যের চূড়ায় উঠতে যার প্রয়োজন অবশ্যম্ভাবী। আর এই তাসেরই একটি খেলা হল ‘‌পোকার’‌। দক্ষতা বাড়ানো এবং পরিকল্পনা তৈরির জন্য দ্রুত যা জনপ্রিয় হয়ে উঠছে দিন দিন। পড়ুয়াদের মানসিক জোর বাড়িয়ে তঁাদের আগামী দিনের জন্য তৈরি করতে স্বদেশ এবং বিদেশের বিভিন্ন নামী বিশ্ববিদ্যালয় এখন পোকার খেলাকেই অন্যতম হাতিয়ার হিসেবে বেছে নিচ্ছে।  প্রতিদ্বন্দ্বীকে যদি হারাতে হয় তবে বুঝে নিতে হবে সে কী করতে চলেছে। এই আপ্তবাক্যটি সর্বক্ষেত্রেই প্রযোজ্য। পোকারের ক্ষেত্রেও ব্যতিক্রম নয়। বিশেষজ্ঞদের দাবি, হিসেব কষা ঝঁুকি বা দ্রুত সিদ্ধান্ত নেওয়ার ক্ষমতা, পোকার শিখিয়ে দিতে পারে এই বিষয়গুলি। যার ফলেই বিভিন্ন আইআইটি, আইআইএম বা অন্যান্য নামী প্রতিষ্ঠানে এই খেলা জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে। অনলাইন বা মুখোমুখি, দু’‌ভাবেই খেলা হচ্ছে পোকার। একে আরও জনপ্রিয় করতে অনলাইন সংস্থা পোকারস্টারস.‌ইন গঁাটছড়া বেঁধেছে বিভিন্ন ‘‌বিজনেস অ্যাডমিনিস্ট্রেশন’‌ এবং ‘‌ম্যানেজমেন্ট’‌ ডিগ্রি প্রদানকারী প্রতিষ্ঠানগুলির সঙ্গে। আইআইটি খড়্গপুরকে সঙ্গে নিয়ে তারা আয়োজন করতে চলেছে তিনদিনের দিন এবং রাতের এক ‘‌স্প্রিং ফেস্ট পোকার কার্নিভ্যাল’‌। অনলাইনের এই পোকার প্রতিযোগিতায় ৮০ হাজার টাকা পুরস্কার থাকছে। দিনের বেলায় যে খেলাগুলি হবে তার পুরস্কার মূল্য ১০ হাজার টাকা এবং রাতে ৩০ হাজার টাকা পুরস্কার দেওয়া হবে। 
আর শুধু আইআইটি খড়্গপুর নয়, পড়ুয়াদের প্রতিযোগী হিসেবে তৈরি করতে আইআইটি কোঝিকোরের এক শিক্ষক পোকার খেলার মাধ্যমে প্রশিক্ষণ দিচ্ছেন বলে জানা গেছে। গোপনীয়তার শর্তে নামী একটি প্রতিষ্ঠানের এক শিক্ষক জানিয়েছেন, পরিস্থিতি বোঝা বা নতুন পরিকল্পনা তৈরি–সহ একাধিক বিষয় এই পোকারের মাধ্যমে করা যায়। সব মিলিয়ে তঁার মতে পোকার হল ‘‌নেতাদের খেলা’‌। ‌

জনপ্রিয়

Back To Top